সেলফিন অ্যাপ এর সেরা কিছু সুবিধা জানুন

ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর “omni-channel” ব্যাংকিং অ্যাপ হলো সেলফিন যা ২০২০ সালে যাত্রা শুরু করে। মুক্তির পরপরই বেশ জনপ্রিয়তা পায় এই অ্যাপটি।

সেলফিন একটি অল-ইন-ওয়ান ফিয়ান্সিয়াল সার্ভিস যা ব্যবহার করে একাধিক মাধ্যমে লেনদেন করার সুবিধা পাওয়া যাবে। সেলফিন একাউন্ট তৈরী করে ব্যবহারকারীগণ ভিসা ও মাস্টারকার্ড ভার্চুয়াল প্রিপেইড কার্ড ব্যবহারের সুবিধা পেতে পারেন ইন্সট্যান্টলি।

এছাড়া ভার্চুয়াল ডুয়াল কারেন্সি প্রিপেইড কার্ডও নিতে পারবেন সেলফিন ব্যবহারকারীগণ। যুক্তরাষ্ট্র, সিংগাপুর, অস্ট্রেলিয়াসহ মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপের অনেক দেশ থেকে সেলফিন এর সেবা ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

সেলফিন বেশ সমৃদ্ধ একটি প্ল্যাটফর্ম যাতে সাধারণ মোবাইল ব্যাংকিং ফিচারগুলোর পাশাপাশি অসাধারণ কিছু ইউনিক ফিচারও পাওয়া যাবে। এই পোস্টে সেলফিন অ্যাপের সেরা কিছু সুবিধা সম্পর্কে জানবেন যা সবার জানা উচিত। বুঝার সুবিধার্থে সেলফিন অ্যাপ এর ফিচার ও সুবিধাগুলোকে আমরা নন-ট্রানজেকশনাল ও ট্রানজেকশনাল সেকশনে ভাগ করেছি।

সেলফিন এর সুবিধা ও ফিচার

সেলফিন এর অন্যতম প্রদান সুবিধা হলো একাউন্ট খুলতে বা ব্যবহার করতে কোনো ধরনের পেপারওয়ার্ক এর প্রয়োজন নেই বা ব্যাংকে যাওয়ারও প্রয়োজন হয়না। যেকেউ ঘরে বসেই ইন্সট্যান্টলি একাউন্ট খুলে নিজেদের ডিজিটাল ওয়ালেট তৈরী করতে পারেন। ব্যাংকে যাওয়ার প্রয়োজন ছাড়াই সেলফিন ব্যবহার করে সহজে অসাধারণ সব সুবিধা পাওয়া যাবে। সেলফিন ডিজিটাল ওয়ালেট এর সাথে ভিসা ও মাস্টারকার্ড এর মত ভার্চুয়াল কার্ড সুবিধাও পাওয়া যায়, যা বেশ অনন্য একটি ফিচার। এর ফলে যেকোনো ধরনের লেনদেন সম্ভব হবে সহজেই সেলফিন ব্যবহার করে।

ইসলামিক ব্যাংক খিদমাহ ক্রেডিট কার্ড, প্রিপেইড কার্ড, সিবিএস একাউন্ট, এজেন্ট ব্যাংকিং একাউন্ট, এমক্যাশ একাউন্ট এর সাথে বেশ সুন্দরভাবে ইন্ট্রিগ্রেট করা যাবে সেলফিন ডিজিটাল একাউন্টকে। এর ফলে যেকোনো ধরনের নন-ট্রানজেকশনাল ও ট্রানজেকশনাল সেবা পাওয়া যবে একই ছাদের নিচে।

সেলফিন ব্যবহার করে একই প্ল্যাটফর্মেই কোনো খরচ ছাড়া ব্যাংক, এমক্যাশ ও সেলফিন একাউন্টের ব্যালেন্স চেক করা যাবে। কোনো ধরনের ব্র‍্যাঞ্চ ভিজিট না করেই সরাসরি অ্যাপ এর মাধ্যমে বেশ সহজে কমপ্লেইন টিকেট নাম্বার ফাইল ও রিসিভ করা যাবে।

মুদারাবা সেভিংস, মুদারাবা স্পেশাল সেভিংস, মুদারাবা মান্থলি প্রফিট ডিপোজিট, মুদারাবা স্টুডেন্ট সেভিংস, মুদারাবা ইন্ডাস্ট্রিতাল এমপ্লয়ি সেভিং, পে’রোল, হজ্ব সেভিংস, মুহর সেভিংস একাউন্ট, ইত্যাদি ব্যাংক একাউন্ট সেলফিন অ্যাপ থেকেই খোলা যাবে কোনো ধরনের ব্যাংকের শাখাতে যাওয়া ছাড়াই, ঘরে বসে।

সেলফিন অ্যাপ এর বিল্ট-ইন লোকেটর ফিচার ব্যবহার করে সহজেই ব্র‍্যাঞ্চ, সাব-ব্র‍্যাঞ্চ, এটিএম, ইত্যাদির লোকেশন খুঁজে বের করা যাবে। অ্যাপ থেকেই চেক বই অর্ডার করার সুবিধাও রয়েছে। এক্সক্লুসিভ অফার ও আকর্ষণীয় প্রোমোশন সম্পর্কে জানা যাবে অ্যাপের নোটিফিকেশনের মাধ্যমে।

সেলফিন অ্যাপ এর অন্যতম প্রধান সুবিধা হলো বিশ্বের মোট ২৬ টি দেশ থেকে বাংলাদেশের নাগরিকদের সেলফিন একাউন্ট খোলা ও অ্যাপ ব্যবহারের সুবিধা প্রদান। এর ফলে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা দেশের নাগরিকগণ সেলফিন এর সুবিধা উপভোগ করতে পারছেন ও লেনদেন করতে পারছেন দেশে থাকা প্রিয়জনদের সাথে।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

CellFin app

সেলফিন এর লেনদেন-সম্পর্কিত ফিচার

এবার জানা যাক সেলফিন এর লেনদেন-সম্পর্কিত ফিচারগুলো সম্পর্কে।

সেলফিন অ্যাপ ব্যবহার করে অন্যান্য ব্যাংক কার্ড, IBBL একাউন্ট, এমক্যাশ, IBBPLC ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড থেকে এড মানি করা যাবে সেলফিন একাউন্টে। সহজে ফান্ড ট্রান্সফার অর্থাৎ সেন্ড মানি করা যাবে IBBL একাউন্টে বা ইসলামি ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে যা EFT ও Binimoy সেবা ব্যবহার করে কাজ করে৷ এছাড়া এমক্যাশ, বিকাশ, নগদ ও অন্যান্য এমএফএস একাউন্টেও সেলফিন থেকে সেন্ড মানি করা যাবে।

সেলফিন ব্যবহার করে ব্যাংকে না গিয়ে রেমিট্যান্স রিসিভ করা যাবে যেকোনো সময়। এটিএম বা সিআরএম থেকে মাধ্যমে কার্ড ছাড়াই ক্যাশ উইথড্র বা ডিপোজিট করা যাবে সেলফিন ব্যবহার করে।

সেলফিন কুইক পে ব্যবহার করে ফান্ড ডিপোজিট করা যাবে ব্যাংক একাউন্ট, সেলফিন একাউন্ট, এমক্যাশ বা IBBL খিদমাহ ক্রেডিট কার্ড একাউন্ট থেকে বেশ সহজে। এটি মূলত বাংলা কিউআর ও IBBL কিউআর ব্যবহার করে কাজ করে।

অসংখ্য ই-কমার্স ওয়েবসাইট থেকে সবসময় শপিং করার সুবিধা প্রদান করছে সেলফিন, যার ফলে সেলফিন ব্যবহার করে লেনদেন বেশ সম্পূর্ণ একটি সমাধানে পরিণত হয়েছে। এছাড়া সেলফিন ব্যবহার করে বিদ্যুৎ, গ্যাস, টেলিফোন, ইন্টারনেট, পানি, শিক্ষা, এডমিশন ফি, ইত্যাদি বিল ও পেমেন্ট করা যাবে। সকল ধরনের খরচ এক স্থান থেকে ম্যানেজ করার এই সুবিধা বেশ অসধারণ বটে। 👉 সেলফিনে এলো ভার্চুয়াল কার্ড সুবিধা! লাগবেনা ব্যাংক একাউন্ট!

অন্যান্য সকল মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপের মত সেলফিন ব্যবহার করে মোবাইল ব্যালেন্স টপ আপ করা যাবে, আবার পোস্টপেইড মোবাইল বিলও পে করা যাবে। রবি, এয়ারটেল, বাংলালিংক, গ্রামীণফোন, টেলিটক, অর্থাৎ দেশের সকল অপারেটরে টপ-আপ এর সুবিধা প্রদান করছে সেলফিন।

সেলফিন এর আরেকটি অসাধারণ ফিচার হলো অন্যান্য সেলফিন ব্যবহারকারীর কাছে মানি রিকোয়েস্ট পাঠানোর ফিচারটি। যেকোনো সময় অন্য সেলফিন ব্যবহারকারীদের ফান্ড চেয়ে রিকোয়েস্ট পাঠানো যাবে Request Money ফিচার ব্যবহার করে।

সেলফিন এর অনেকগুলো ফিচার ও সুবিধা আমরা জেনেছি। আপনি কি সেলফিন ব্যবহার করেন? সেবাটি সম্পর্কে আপনার মতামত শেয়ার করতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,575 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *