আপওয়ার্কে কাজ পেতে সেরা স্কিলগুলো জেনে নিন

ডিজিটাল উন্নতির সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে বিভিন্ন দক্ষতাসম্পন্ন লোকবল। অসংখ্য কোম্পানি দক্ষ জনশক্তির খোঁজে আপওয়ার্ক এর মত ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্মসমূহ ব্যবহার করে। অর্থাৎ যারা বিভিন্ন দক্ষতায় দক্ষ, তাদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইটগুলোতে কাজের অভাব নেই।

আপওয়ার্ক একটি ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্ম, যা কাস্টমার ও ফ্রিল্যন্সার, উভয়ের সমন্বয়ে গঠিত। কোম্পানির সাথে ফ্রিল্যান্সারদের সংযোগ স্থাপনের অন্যতম মাধ্যম আপওয়ার্ক। ২০২০সালের একটি জরিপ অনুসারে ১০,০০০ এর অধিক দক্ষতার ক্যাটাগরিতে ২.৫বিলিয়ন ডলার আয় করেছেন আপওয়ার্ক এর ফ্রিল্যান্সারগণ।

ওয়েবসাইট ও অ্যাপ ডেভলপমেন্ট, ক্রিয়েটিভ ও ডিজাইন, কাস্টমার সাপোর্ট, ফাইনান্স ও একাউন্টিং, ইত্যাদি ক্যাটাগরি থেকে দক্ষতা অনুযায়ী নিজের পছন্দের ক্যাটাগরি বেছে নিতে পারেন ফ্রিল্যান্সারগণ।

সম্প্রতি আপওয়ার্ক এর একটি রিপোর্টে রিমোট ফ্রিল্যান্সিং এর গ্রোথ বৃদ্ধি দেখা গিয়েছে। আরো জানা গিয়েছে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং ও মার্কেটিং এর মত সেক্টরে সকল ফ্রিল্যান্সারের মধ্যে ৫৩% দক্ষ সেবা প্রদান করেছে।

এছাড়াও আপওয়ার্ক তাদের সবচেয়ে বেশি ডিমান্ডিং স্কিলসমূহের তালিকা প্রকাশ করেছে। আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং করে আয় করার উদ্দেশ্যে নতুন কোনো দক্ষতা অর্জন করতে চান, সেক্ষেত্রে আপওয়ার্ক এর এই তালিকা থেকে দক্ষতা নির্বাচন করার চিন্তা করতে পারেন।

চলুন জেনে নেওয়া যাক আপওয়ার্কে কাজ পেতে সেরা স্কিলগুলো সম্পর্কে।

সেরা প্রযুক্তি বিষয়ক স্কিলসমূহ

টেক বা প্রযুক্তি সম্পর্কিত স্কিলসমূহের চাহিদা দিনদিন বেড়েই চলেছে। আপওয়ার্ক এর তথ্যমতে সেরা ইন-ডিমান্ড প্রযুক্তি বিষয়ক দক্ষতাসমূহ ও তাদের কাজের ক্ষেত্র হলোঃ

  • ওয়েব ডিজাইনঃ ওয়েবসাইট ডিজাইন, ওয়েব গ্রাফিক ডিজাইন, ইউজার ইন্টারফেস ডিজাইন, ইত্যাদি 
  • ওয়েব প্রোগ্রামিংঃ কোডিং, ওয়েব ডেভলপমেন্ট, ওয়েব সিকিউরিটি, নেটওয়ার্কিং, স্ক্রিপ্টিং, ইত্যাদি
  • জাভাস্ক্রিপ্টঃ ওয়েবসাইট স্ক্রিপ্টিং ও ডেভলপমেন্ট, ইত্যাদি
  • সিএসএস (CSS): ওয়েব পেজ এর স্টাইল ও ডিজাইন
  • এইচটিএমএল (HTML): ওয়েবপেজ ডেভলপমেন্ট ও ডিজাইন
  • পিএইচপি (PHP): ডায়নামিক ও ইন্টারেকটিভ ওয়েবসাইট
  • শপিফাই (SHOPIFY): ই-কমার্স ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট ও ম্যানেজমেন্ট
  • এপিআই (API): এপিআই ডেভলপমেন্ট
  • গ্রাফিক ডিজাইনঃ লোগো ডিজাইন, পোস্টার ডিজাইন, পোস্ট ডিজাইন, টিশার্ট ডিজাইন, ইত্যাদি

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

উল্লিখিত স্কিলসমূহের মধ্যে ওয়েব ডিজাইন ও ওয়েব ডেভলপমেন্ট বৃহৎ পরিসরে স্থান পেয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ ও চোখে পড়বে এই তালিকায়। অর্থাৎ ভালোভাবে ওয়েব ডেভলপমেন্ট শিখলে কাজের অভাব হবেনা আপওয়ার্ক এর মত প্ল্যাটফর্মে।

সেরা মার্কেটিং বিষয়ক স্কিলসমূহ

মার্কেটিং বর্তমান সময়ের আলোচিত স্কিলসমূহের মধ্যে অন্যতম। আপওয়ার্কের সেরা মার্কেটিং বিষয়ক দক্ষতাসমূহ ও কাজের ক্ষেত্র হলোঃ

  • সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংঃ সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট ও মার্কেটিং, সোশ্যাল মিডিয়া এড
  • লিড জেনারেশনঃ প্রোডাক্ট ও সার্ভিস মার্কেটিং
  • ফেসবুকঃ ফেসবুক ম্যানেজমেন্ট, এড এক্সপার্ট, লিড জেনারেশন
  • এসইও (SEO): ওয়েবসাইট সার্চ ইঞ্জিন র‍্যাংকিং অপটিমাইজেশন, এসইও
  • বিটুবি (B2B) মার্কেটিংঃ লিড জেনারেশন, ক্লায়েন্ট সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট
  • ইন্সটাগ্রামঃ একাউন্ট ম্যানেজমেন্ট, এড এক্সপার্ট, লিড জেনারেশন
  • মার্কেটিং স্ট্রাটেজিঃ লিড জেনারেশন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, বিটুবি মার্কেটিং
  • সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট
  • ইমেইল মার্কেটিংঃ  ইমেইল ক্যাম্পেইন, লিড জেনারেশন, ইত্যাদি
  • মার্কেটিং রিসার্চঃ মার্কেট এনালাইসিস, মার্কেটিং রিপোর্ট

আপওয়ার্কে একাধিক ধরনের মার্কেটিং স্কিলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ার আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তার কারণে এই স্কিলগুলো খুব সহজে স্থান করে নিয়েছে।

👉 আপওয়ার্কে বেশি বেশি ফ্রিল্যান্সিং কাজ পেতে করণীয়

সেরা কাস্টমার সার্ভিস স্কিলসমূহ

বর্তমানে সকল প্রতিষ্ঠান তাদের কাস্টমার সার্ভিস উন্নত করার চেষ্টা করছে। ফলস্বরূপ আপওয়ার্ক এর মত ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্মগুলোতে বৃদ্ধি পেয়েছে কাস্টমার সার্ভিস সম্পর্কে দক্ষতার খোঁজ। সবচেয়ে বেশি ডিমান্ডিং কাস্টমার সার্ভিস স্কিলসমূহ ও কাজের ক্ষেত্রসমূহ হলোঃ

আপওয়ার্কে কাজ পেতে সেরা স্কিলগুলো জেনে নিন
  • কাস্টমার সার্ভিসঃ সার্ভিস এক্সিকিউটিভ, সার্ভিস এজেন্ট, সার্ভিস রিপ্রেজেন্টেটিভ
  • কাস্টমার সাপোর্টঃ কাস্টমার সাপোর্ট স্পেশালিস্ট, কাস্টমার সাপোর্ট ম্যানেজমেন্ট
  • ইমেইল কমিনিউকেশনঃ ইমেইল মার্কেটিং ম্যানেজার
  • ফোন সাপোর্টঃ কল সেন্টার, কাস্টমার কেয়ার
  • ইমেইল সাপোর্টঃ ইমেইল সাপোর্ট ম্যানেজার 
  • অনলাইন চ্যাট সাপোর্টঃ লাইভ চ্যাট সাপোর্ট
  • আন্সারিং প্রোডাক্ট কোয়েশনঃ প্রোডাক্ট সম্পর্কিত প্রশ্নোত্তর ক্যাম্পেইন ম্যানেজমেন্ট
  • ডাটা এন্ট্রিঃ ডাটাবেস ম্যানেজমেন্ট, ডাটাবেস প্রোগ্রামার, অনলাইন ডাটা কালেক্টর
  • এডমিনিস্ট্রেটিভ সাপোর্টঃ এডমিনিস্ট্রেটিভ অফিস ম্যানেজার, কমিউনিটি এক্সপার্ট, পারসোনাল সাপোর্ট, ইত্যাদি।

উল্লিখিত তালিকার মধ্যে আপওয়ার্কে কয়েকটি স্কিলের চাহিদা সবচেয়ে বেশি বেড়েছে — ওয়েব প্রোগ্রামিং (৪৩%), ওয়েব ডিজাইন (৩১%), সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (২৫%)। 

উপরের দক্ষতাসমূহের উচ্চ চাহিদা-ই প্রমাণ করে যথেষ্ট দক্ষতাসম্পন্ন ব্যক্তিগণ আপওয়ার্কে বেশ ভালো মানের আয় করতে পারেন। এক বা একাধিক বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করে আপওয়ার্ক এর মতো ওয়েবসাইটে ফ্রিল্যন্সার হিসেবে একজন ব্যক্তি তার ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার গড়ে তুলতে পারেন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,268 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.