১০ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন ২০২৩

আমাদের দেশে ১০ হাজার টাকা দামের মধ্যে মোবাইলগুলোর চাহিদা ব্যাপক। এই কথা মাথায় রেখে ১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি, রিয়েলমি, ওয়ালটন বেশ কিছু ভালো ভালো ফোন অফার করছে। চলুন জেনে নেয়া যাক ১০ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন সম্পর্কে।

আইটেল ভিশন ৫ – itel Vision 5

itel Vision 5

আইটেলের ফোনগুলো কম বাজেটেই অনেক ফিচারযুক্ত হয়ে থাকে। এটিও তার ব্যতিক্রম নয়। ফোনটির পারফর্মেন্সের ক্ষেত্রে একটি অক্টাকোরের প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে বিধায় সাধারণ হালকা কাজে কোন সমস্যা হয় না। এই বাজেটে ভালো ব্যাটারি লাইফ দেয়ার নিশ্চয়তা দিচ্ছে এই ফোনটি। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি এবং ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধা থাকছে এতে। ফোনটি দেখতেও বেশ স্টাইলিশ এবং পাতলা।

সামনে আছে ৬.৬ ইঞ্চির ওয়াটারড্রপ ডিসপ্লে। এছাড়া পেয়ে যাবেন ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ। স্টোরেজ বাড়াতে মাইক্রোএসডি কার্ডের সুবিধাও রয়েছে। সবথেকে আকর্ষণীয় ব্যাপার হচ্ছে এতো কম বাজেটেই আপনি ফেস আনলক ও ফিঙ্গারপ্রিন্টের সুবিধাও পেয়ে যাচ্ছেন। পিছনে ৮ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপও দিচ্ছে আইটেল। তাই ১০ হাজার টাকা বাজেটে ফোনটি বেশ ভালো ফিচার নিয়েই বাজারে প্রতিযোগিতায় নেমেছে।

আইটেল ভিশন ৫ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ অক্টাকোর
  • মেইন ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ৩ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি 
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

আইটেল ভিশন ৫ এর দামঃ ৯,৬৯০ টাকা

ইনফিনিক্স স্মার্ট ৬ এইচডি – Infinix Smart 6 HD

ইনফিনিক্স স্মার্ট ৬ এইচডি – Infinix Smart 6 HD

১০ হাজার টাকা বাজেটেই বেশ ভালো মানের এলসিডি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে নিয়ে বাজারে এসেছে এই ফোন। ৬.৬ ইঞ্চির বেশ ভালো কোয়ালিটির ডিসপ্লে ব্যবহার করায় কন্টেন্ট দেখে মজা পাবেন। পারফর্মেন্সের ক্ষেত্রে ইউনিসকের একটি অক্টাকোর চিপ ব্যবহার করা হয়েছে। হালকা কাজগুলো বেশ স্মুথলি করে ফেলতে পারবেন অ্যান্ড্রয়েডের লাইট ভার্সন ব্যবহার করায়। আছে ৮ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ।

ব্যাটারির ক্ষেত্রেও ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ব্যবহার করায় সারাদিন ব্যাকাপ পেতে পারেন। এছাড়া মাইক্রোএসডি স্লট রয়েছে ফোনে, তবে চার্জিং পোর্ট হিসেবে মাইক্রোইউএসবি পোর্ট দেয়া হয়েছে যা আধুনিক ফোন হিসেবে কিছুটা পুরানো। সব মিলিয়ে কন্টেন্ট দেখবার জন্য ১০ হাজার টাকা বাজেটে এটি সেরা একটি ফোন। ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের ভ্যারিয়েন্ট পেয়ে যাবেন এই বাজেটে।

ইনফিনিক্স স্মার্ট ৬ এইচডি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক এসসি৯৮৬৩এ
  • মেইন ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি 
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

ইনফিনিক্স স্মার্ট ৬ এইচডি এর দামঃ ৯,৪৯৯ টাকা

ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে – Infinix Hot 10 Play

ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে – Infinix Hot 10 Play

ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে ইনফিনিক্সের কম বাজেটে আরেকটি বেশ ভালো ফোন। এই দামেই ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের ফোন পেয়ে যাবেন। তাছাড়া আছে হেলিও জি২৫ চিপ যা দাম হিসেবে বেশ ভালো। দৈনন্দিন হালকা কাজ বেশ ভালোভাবেই করে ফেলতে পারবেন। সেইসাথে অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশন থাকায় বেশ স্মুথভাবে চালানো যায় ফোনটি। তাছারাআ ৬.৮২ ইঞ্চির বেশ বড় স্ক্রিন আছে এই ফোনে। স্ক্রিনের কোয়ালিটি বেশ ভালো হওয়ায় কন্টেন্ট দেখেও আরাম পাওয়া যাবে। পিছনে আছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা।

ফোনটির আরেকটি আকর্ষণীয় দিক এর ৬০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি। এই দামে এত বড় ব্যাটারি আর কেউ দিচ্ছে না। সারাদিন খুব ভালোভাবেই চালাতে পারবেন এই ফোনটি। তবে এই ফোনেও টাইপ সি পোর্ট দেয়া হয় নি, মাইক্রোইউএসবির মাধ্যমে চার্জ দিতে হবে এখানেও। তবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে ফোনটিতে। সব মিলিয়ে ১০ হাজার টাকা বাজেটে বেশ ভালো একটি প্যাকেজ এটি।

ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৮২ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি২৫
  • মেইন ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ৩ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি 
  • ব্যাটারিঃ ৬০০০ মিলিএম্প

ইনফিনিক্স হট ১০ প্লে এর দামঃ ৯,৯৯০ টাকা

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ কোর – Samsung Galaxy A03 Core

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ কোর – Samsung Galaxy A03 Core

যারা ভালো ব্র্যান্ডের ফোন কম বাজেটেই কিনতে চান তারা এই ফোনটি দেখতে পারেন। স্যামসাং কম মুল্যের এই ফোনটিতে বেশ কিছু ভালো ফিচার দিয়েছে। ৬.৫ ইঞ্চির এলসিডি ডিসপ্লে আছে ফোনটির সামনে। পারফর্মেন্সের জন্য আছে ইউনিসকের অক্টাকোর চিপ। সেই সাথে গো এডিশনের অপারেটিং সিস্টেম থাকায় ফোনটি বেশ স্মুথভাবে কাজ করে। পিছনে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরাও রয়েছে। স্যামসাং এর ফোন হওয়ায় ফোনটির ইউআই বেশ ভালো।

এছাড়া ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি থাকায় লম্বা সময় চালানো যায় ফোনটি। ফোনটির ডিজাইনও বেশ ভালো লাগবে আপনার, হাতে ধরে আরাম পাওয়া যায়। ফোনে কোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সুবিধা নেই। এছাড়া মাইক্রোইউএসবি ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজে পাবেন।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ কোর এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক এসসি৯৮৬৩এ
  • মেইন ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি 
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ কোর এর দামঃ ৯,৯৯৯ টাকা

রেডমি এ১ – Redmi A1

রেডমি এ১ – Redmi A1

১০ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে সবথেকে সুন্দর ও স্টাইলিশ দেখতে এই ফোন। ফোনটির ডিজাইন দেখলে প্রিমিয়াম ফোন মনে হবে, পিছনে চামড়ার মতো টেক্সচার ব্যবহার করায় ধরে বেশ আরাম লাগবে। পারফর্মেন্সের ক্ষেত্রেও পিছিয়ে নেই। আছে মিডিয়াটেকের হেলিও এ২২ চিপ। সাথে ক্লিন অ্যান্ড্রয়েড ১২ গো এডিশন পাবেন। ফলে ইউআই বেশ স্মুথ কাজ করবে। ডিসপ্লেটিও বেশ উজ্জ্বল ও ভালো কোয়ালিটির। পিছনে ডুয়াল ক্যামেরা দেয়া হয়েছে যার মেইন লেন্স ৮ মেগাপিক্সেলের চলনসই ছবি তুলতে পারে। তাছাড়া ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারিও আছে। সব মিলিয়ে ফোনটি খুব ভালো স্পেক ও ডিজাইন দিচ্ছে এই কম বাজেটেই। ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ অপশনে পাবেন ফোনটি।

রেডমি এ১ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫২ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২২
  • মেইন ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি 
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

রেডমি এ১ এর দামঃ ৯,৯৯৯ টাকা

টেকনো পপ ৬ প্রো – Tecno Pop 6 Pro

টেকনো পপ ৬ প্রো – Tecno Pop 6 Pro

লুক আর ডিজাইনের দিক থেকে ফোনটি রেডমি এ১ এর সাথে সমানে পাল্লা দিতে পারবে। ফোনের ডিজাইনটি বেশ নজরকারা। ১০ হাজার টাকার ফোনে এমন ডিজাইন কিছুটা অবাক করবে আপনাকে। সেই সাথে ৬.৫৬ ইঞ্চির উজ্জ্বল এলসিডি ডিসপ্লে আছে সামনে। পারফর্মেন্স দিতে আছে হেলিও এ২২ প্রসেসর। এতেও অ্যান্ড্রয়েড ১২ গো এডিশন থাকায় বেশ স্মুথ লাগবে ফোনটি ব্যবহার করে। তাছাড়া পিছনে ৮ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ আছে। এই ফোনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও দিয়েছে টেকনো।

৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি থাকায় ব্যাটারি লাইফ নিয়েও চিন্তা নেই। এই ফোনটিও ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়ান্টে পেয়ে যাবেন। মাইক্রো এসডি স্লট থাকায় স্টোরেজ বাড়িয়ে নেবার সুবিধাও থাকছে।সবদিক মিলিয়ে ফোনটি যথেষ্ট ভারসাম্য রেখেছে দাম অনুযায়ী। সুন্দর ফোন চাইলে ১০ হাজার টাকা বাজেটে এটি আপনার তালিকায় রাখতে পারেন নিঃসন্দেহে।

টেকনো পপ ৬ প্রো এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২২
  • মেইন ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি 
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

টেকনো পপ ৬ প্রো এর দামঃ ৯,৯৯৯ টাকা

রিয়েলমি সি১১ – Realme C11

১০ হাজার টাকা দামের মধ্যে থাকছে রিয়েলমির ফোন, রিয়েলমি সি১১। বেশ কম্পিটিটিভ প্রাইসিং নিয়ে রেডমি ৯এ এর অধিকাংশ ফিচারই প্রদান করছে ফোনটি। মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫, ৫০০০মিলিএম্প ব্যাটারি,  ১৩মেগাপিক্সেঅ ক্যামেরাসহ বেশিকিছু সাদৃশ্য রয়েছে রিয়েলমি সি১১ ও রেডমি ৯এ ফোন দুইটির মধ্যে। ফোনটির প্রধান আকর্ষণ হচ্ছে এর ক্যামেরা। এই দামে রিয়েলমি সি১১ ফোনটি অফার করছে স্লো-মোশন ভিডিও রেকর্ডিং ফিচার। মোবাইলটির ক্যামেরাতে আরো রয়েছে নাইট মোড, যা এই দামে অনন্য।

রিয়েলমি সি১১ - Realme C11

রিয়েলমি  সি১১ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫
  • মেইন ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি 
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

রিয়েলমি সি১১ এর দামঃ ৮,৯৯০ টাকা

👉 ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন ২০২৩

আইটেল ভিশন ২ – Itel Vision 2

আমাদের এই ১০ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইলের তালিকায় আইটেল ভিশন ২ ফোনটি সবচেয়ে বেশি আকর্ষণীয় দেখতে। ফোনটির ডিজাইন দেখে বুঝার উপায় নেই যে এটি একটি ১০ হাজার টাকার চেয়েও কম দামের ফোন।

আইটেল ভিশন ২ ফোনটিতে রয়েছে ৬.৬ইঞ্চির এইচডি প্লাস ডট-নচ ডিসপ্লে। ফোনটির সামনে রয়েছে ৮মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা। থাকছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ব্যাক ক্যামেরা সেটাপ। ৪০০০মিলিএম্প এর ব্যাটারিযুক্ত ফোন আইটেল ভিশন ২।

ফোনটিতে রয়েছে ৩ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, যা দাম বিবেচনায় প্রশংসার দাবিদার। ফিংগারপ্রিন্ট ও ফেস আনলক সুবিধা রয়েছে আইটেল ভিশন ২ ফোনটিতে। সফটওয়্যার হিসেবে ফোনটিতে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ১০ এর গো এডিশন। 

আইটেল ভিশন ২ - Itel Vision 2

আইটেল ভিশন ২ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ১.৬গিগাহার্জ অক্টা কোর
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • মেইন ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪০০০মিলিএম্প

আইটেল ভিশন ২ এর দামঃ ৯,৪৯০ টাকা

ভিভো ওয়াই১এস – Vivo Y1s

১০ হাজার টাকার মধ্যেই পেয়ে যাবেন ৬.২২ ইঞ্চির ফোন, ভিভো ওয়াই১এস ফোনটি। ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজের ফোনটিতে রয়েছে ৪০৩০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি৷ মিডিয়াটেক এর হেলিও এ৩৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে। ১৩ মেগাপিক্সেলের ব্যাক ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা রয়েছে ফোনটিতে।

ভিভো ওয়াই১এস - Vivo Y1s

ভিভো ওয়াই১এস এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.২২ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও পি৩৫
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪০৩০মিলিএম্প

ভিভো ওয়াই১এস এর দামঃ ৮,৯৯০ টাকা

👉 কম দামে ভালো ফোন ২০২৩

ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ – Walton Primo HM5

ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ ফোনটির দুইটি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যাবে ১০ হাজার টাকা দামের মধ্যে। ৩জিবি র‍্যাম ও ৬৪জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ এর দাম ৮৫৯৯ টাকা। অন্যদিকে ৪জিবি র‍্যাম ভ্যারিয়েন্টের দাম ৯,৪৯৯ টাকা। ফোনটিতে রয়েছে ৪,৯০০মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি।

মিডিয়াটেক এর হেলিও এ২০ প্রসেসর দ্বারা চালিত ফোনটিতে রয়েছে ১৩মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা ও ৮মেগাপিক্সেল সেল্ফি ক্যামেরা। ফোনটিতে ডিসপ্লে হিসেবে থাকছে ৬.১ইঞ্চির নচযুক্ত এইচডি প্লাস ডিসপ্লে।

ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ - Walton Primo HM5

ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.১ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২০
  • র‍্যামঃ ৩জিবি / ৪জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪৯০০মিলিএম্প

ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ এর দামঃ ৮,৫৯৯ টাকা / ৯,৪৯৯ টাকা

সিম্ফোনি জেড৩০ – Symphony Z30

১০ হাজার টাকা দামের মধ্যে অসধারণ দেখতে একটি ফোন হলো সিম্ফোনি এর সিম্ফোনি জেড৩০ ডিভাইসটি। ৩জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ এর মোবাইলটি কম দামে অসাধারণ ডিজাইন ও আউটলুক অফার করছে। থ্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটাপ এর সাথে ফোনটিতে রয়েছে ৮মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা। সিম্ফোনি জেড৩০ তে থাকছে ৫০০০মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি। এছাড়াও ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর ও রয়েছে ফোনটিতে।

সিম্ফোনি জেড৩০ - Symphony Z30

সিম্ফোনি জেড৩০ এর দামঃ  ৯,৭৯০ টাকা

রিয়েলমি সি৩০ – Realme C30

রিয়েলমি সি৩০ - Realme C30

১০হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল এর তালিকায় থাকছে রিয়েলমি সি৩০, ফোনটির ডিজাইন ও পারফরম্যান্স ফোনটিকে অসাধারণ করেছে। বাজেটের মধ্যে এই ফোনটি অফার করছে ৮মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা ও ৫মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

২জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি স্টোরেজ এর রিয়েলমি সি৩০ এর স্টোরেজ বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে ১টিবি পর্যন্ত। ফোনটিতে পেয়ে যাচ্ছেন ৫০০০মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি যা যেকোনো ব্যবহারকারীর সারাদিন ব্যবহারের জন্য যথেষ্ট। 

রিয়েলমি সি৩০ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৬১২
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • প্রাইমারি ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • সেলফি ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

রিয়েলমি সি৩০ এর দামঃ ৯,৯৯৯টাকা

ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি – Walton RX7 Mini

১০ হাজার টাকা দামের মধ্যে যদি কেউ ভালো মানের গেমিং ফোন খুজে থাকে, তবে তার জন্য একমাত্র পছন্দ হবে ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি। এতো কম দামের মধ্যে ফোনটিতে থাকছে মিডিয়াটেক এর শক্তিশালী প্রসেসর, হেলিও পি৬০ চিপসেট। ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর এর পাশাপাশি ফোনটিতে রয়েছে ১৩মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা ও ৮মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা। ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি ফোনটতে আছে ৩জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি ফোনটিতে ব্যাটারি থাকছে ৩০০০মিলিএম্প এর।

ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি - Walton RX7 Mini

ওয়ালটন প্রিমো আরএক্স৭ মিনি এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.১ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও পি৬০
  • র‍্যামঃ ৩জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩০০০মিলিএম্প

ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি এর দামঃ ৯,৪৯৯ টাকা

👉 বিশ্বের সেরা স্মার্টফোন ২০২৩

সিম্ফোনি জেড৪০ – Symphony Z40

শুধুমাত্র দাম বেশি হলেই যে ফোনে আকর্ষণীয় ডিজাইন থাকে – এই ধারণাকে সম্পূর্ণ ভূল প্রমাণ করে আমাদের তালিকার এই স্থানে রয়েছে দেশীয় ব্র‍্যান্ড সিম্ফোনি এর সিম্ফোনি জেড৪০ ফোনটি। এই ফোনটিতে আকর্ষণীয় ডিজাইনের পাশাপাশি যুক্ত হয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের পাঞ্চ-হোল সেল্ফি ক্যামেরা যা ফোনটির লুকে অনন্য মাত্রা যোগ করেছে।

সিম্ফোনি জেড৪০ – Symphony Z40

সিম্ফোনি জেড৪০ এর ব্যাকে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ। ফোনটি চলবে মিডিয়াটেক এর হেলিও জি৩৫ প্রসেসর দ্বারা। ৫০০০ মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি থাকছে ফোনটিতে। ১০ হাজার টাকার মধ্যেই পাওয়া যাবে ফোনটির ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট। এছাড়া ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর ও রয়েছে ফোনটিতে।

সিম্ফনি জেড ৩০ এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৫ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২৫
  • র‍্যামঃ ৩জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি 
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

সিম্ফোনি জেড৪০ এর দামঃ ৯,৯৯০ টাকা

ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো – Walton Primo H9 Pro

১০ হাজার টাকা দামের মধ্যে অসাধারণ স্পেসিফিকেশন অফার করছে ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো। তাই এটি আমাদের ১০,০০০ টাকা দামের মধ্যে সেরা ফোনের তালিকায় দ্বিতীয় স্থান দখল করে নিয়েছে। ১০ হাজার টাকার মধ্যে ফোনটিতে ৪জিবি র‍্যাম ও ৬৪জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে। এছাড়াও এই ফোনটিতে থাকছে আলট্রা-ওয়াইড লেন্স। ১৩মেগাপিক্সেল থ্রিপল ক্যামেরা সেটাপের ফোনটিতে থাকছে ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর। থাকছে ৮মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা। ৪০০০মিলিএম্প ব্যাটারির ফোন, ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো ফোনটি চলবে মিডিয়াটেক এর হেলিও এ২০ চিপসেট দ্বারা। 

ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো - Walton Primo H9 Pro

ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.১ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২০
  • র‍্যামঃ ৪জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪০০০মিলিএম্প

ওয়ালটন প্রিমো এইচ৯ প্রো এর দামঃ ৯,৪৯৯ টাকা

ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে – Infinix Hot 9 Play

আকর্ষণীয় ডিজাইন আর কম দামের মধ্যে ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি র‍্যাম অফার করার মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা মধ্যে সেরা ফোনের তালিকার শীর্ষস্থান দখল করে নিয়েছে ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে ফোনটি। ৬.৮২ ইঞ্চির বিশাল এইচডি+ ডিসপ্লে থাকছে ফোনটিতে। ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে ফোনটিতে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের ব্যাক ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা। ফোনটিতে রয়েছে ৬০০০ মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি। ফোনটি চলবে মিডিয়াটেক এর হেলিও এ২৫ প্রসেসর দ্বারা। এছাড়াও ফোনটির পেছনে রয়েছে ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর।

ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে - Infinix Hot 9 Play

ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৮২ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২৫
  • র‍্যামঃ ২জিবি/৪জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি/৬৪জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৬০০০মিলিএম্প

ইনফিনিক্স হট ৯ প্লে এর দামঃ ৯,৯৯০ টাকা

১০ হাজার টাকা দামের মধ্যে আপনার পছন্দের মোবাইল ফোন কোনটি? আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,145 other subscribers

12 comments

    • বাংলাটেক টিম Post authorReply

      আমরা ফোন বিক্রি করিনা।

    • বাংলাটেক টিম Post authorReply

      আমাদের তালিকা ফোনগুলোর অফিসিয়াল দামের উপর ভিত্তি করে তৈরি।

  1. tarequl Reply

    ০৬. ওয়ালটন প্রিমো এইচএম৫ – Walton Primo HM5
    What can be given in installments

    • বাংলাটেক টিম Post authorReply

      হয়তো পাবেন না।

    • বাংলাটেক টিম Post authorReply

      ইনফিনিক্স এর ফেসবুক পেজে যোগাযোগ করে দেখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.