সোশ্যাল মিডিয়ায় শুধুই শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস

By -

বিগত বেশ কয়েক দশকে বাংলা সিনেমার কয়েকটি জনপ্রিয় জুটির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে সালমান শাহ্‌-শাবনূর, রিয়াজ-শাবনূর ও শাকিব খান-অপু বিশ্বাস। রিয়াজ-শাবনূর জুটির পরপরই সম্ভবত সবচেয়ে সফল ও দর্শকপ্রিয় জুটি ছিল শাকিব খান-অপু বিশ্বাস। এই তারকাজুটির প্রথম সিনেমা ছিল  ‘কোটি টাকার কাবিন’ (২০০৬)। তখন কে জানত, এই জুটি বাস্তব জীবনেও ঘর বাঁধতে যাচ্ছে?

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,399 other subscribers

১০ এপ্রিল ২০১৬, সোমবার বাংলাদেশের সোশ্যাল মিডিয়া ও গণমাধ্যমের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ছিল শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিয়ে। এই তারকা জুটির যে শুধু বিয়ে হয়েছে তাই না, তাদের ৬ মাস বয়সী একটি ছেলেও আছে।

বেসরকারী টিভি চ্যানেল নিউজ টোয়েন্টিফোরের সাথে সরাসরি সম্প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে অপু বিশ্বাস এই তথ্য প্রকাশ করেন। অপু বিশ্বাস বলেন, ৮ বছর আগে (২০০৮ সালে) শাকিবের সাথে তার বিয়ে হয়েছে।

বাংলাদেশে সোশ্যাল মিডিয়া এই খবর নিয়ে সরগরম। চলুন জেনে নিই এ সংক্রান্ত প্রধান প্রধান হেডলাইন।

 

১. বোমা ফাটালেন অপু বিশ্বাস

এই শিরোনাম করেছে বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন পত্রিকা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

 

২. ‘অপু কাজটা ভালো করেনি’

শাকিব অপুকে বিয়ে ও সন্তান হওয়ার কথা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের কাছে স্বীকার করেছেন, তবে অপুর আচরণে নাখোশ হয়েছেন তিনি। শাকিব বলেছেন ‘অপু কাজটা ভালো করেনি’, লিখছে বিডিনিউজ২৪।

 

৩. সন্তানের দায়িত্ব নেব, অপুর নয়: শাকিব

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় সংবাদপত্র প্রথম আলোকে শাকিব খান বলেন, ‘আব্রাহামের দায়িত্ব আমি নিয়ে যাব। সে আমার সন্তান। সারা জীবন তার দায়িত্ব আমি নিয়ে যাব।’ শাকিব-অপুর ছেলের নাম আব্রাহাম খান জয়। কলকাতার একটি হাসপাতালে তাদের ছেলের জন্ম হয় ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর, প্রথম আলোর রিপোর্ট। শাকিবের দাবি, এটি তার ক্যারিয়ার ধ্বংস করার জন্য একটি চক্রান্ত। বিয়ের কথা এত দিন গোপন রাখার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগত জীবন সামনে আনতে চাইনি। এখন সে (অপু বিশ্বাস) এনেছে। তাঁর সব চাহিদা পূরণ করেছি। যখন বলেছে টাকা দিয়েছি।’

 

৪. শাকিবকে আমার দায়িত্ব নিতে হবে না: অপু

“আমি ইন্ডিপেন্ডেন্ট মানুষ। আমার দায়িত্ব নিতে কাউকে বলিনি। আমি অপু বিশ্বাস। এটা তো বলাবাহুল্য,” বলেছেন অর্ধশত চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী অপু – বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রতিবেদন।

৫. ছেলের সামাজিক অবস্থানের জন্যই মুখ খুলেছেন অপু

শাকিব খান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “২০০৮ সালে আমাদের বিয়ে হয়েছে ঠিক। আমাদের ছেলের দায়িত্ব আমি নিচ্ছি। অপু আজকে যে কাজটা করল সেটি ভালো করেনি।”

ওদিকে অপু বলেন, “আর কিছুদিন পর তার (ছেলের) এক বছর হবে, আমার তার বার্থ ডে করতে হবে না? তার তো একটা সামাজিক অবস্থান পেতে হবে… তার বার্থডের সময়ে যদি আপনাদের বলি, এই সময়ে বাচ্চাকে ঘিরে যদি অনেকগুলো ঘটনা ঘটে যায়, সে জন্য আমি সবকিছু ভেবেচিন্তে এই সময়টা বেছে নিয়েছি। তবে আমি ভীষণ হ্যাপি। কারণ বাবা তার ছেলেকে নেবে।”

 

৬. শাকিবের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন না অপু

শাকিবের বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ করলেও আইনি পদক্ষেপ নেবেন না বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন অপু। “আমি এখনও শাকিবের ভালো চাই, ভবিষ্যতেও শাকিবের ভালো চাই। কারণ সে আমার স্বামী। সবচেয়ে বড় কথা সে আমার বাচ্চার বাবা। সবাই সবার পরিবারের ভালো চায়। আমিও আমার পরিবারের ভাল চাই।”

 

৭. বিয়ের পর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন অপু

বিয়ের পর ‘অবন্তী বিশ্বাস অপু’ থেকে ধর্মান্তরিত হয়ে নিজের নাম ‘অপু ইসলাম খান’ রাখেন অপু। জানাচ্ছে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

 

৮. শাকিব ফিরছেন অপুর কাছে (আপডেটঃ ১১ এপ্রিল)

অবশেষে বরফ গলে গেছে। শাকিব খান-অপু বিশ্বাসের সম্পর্ক জোড়া লাগছে। মঙ্গলবার দুপুরে প্রথম আলোকে টেলিফোনে দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে শাকিব জানালেন, ‘গতকাল মেজাজ খুব খারাপ ছিল বলে অনেক কথাই হয়তো বলেছি। কিন্তু এখন উপলব্ধি করছি, যা–ই ঘটে থাকুক না কেন, এটা আমার সংসার, আমার স্ত্রী, আমার সন্তান। আমাকে ওদের সঙ্গেই থাকতে হবে।’

 

ফেসবুক, টুইটার, প্রেস ও ইলেকট্রনিক মাধ্যমে আজকের সবচেয়ে আলোচিত টপিক ছিল শাকিব-অপু। এখন কোথাকার জল কোথায় গড়ায় তা দেখার জন্য আমাদের আরও কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে।

প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply