পুরাতন স্যামসাং ডিভাইস বিক্রি বন্ধ করতে আবারও কোর্টে গেল অ্যাপল!

যুক্তরাষ্ট্রে কিছু পুরাতন স্যামসাং ডিভাইস বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞার আবেদন করে আবারও আদালতে গেল অ্যাপল। গত বছর ২০ টির বেশি স্যামসাং স্মার্টফোন ও ট্যাবলেটের বিরুদ্ধে কপিরাইট লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে সেগুলো ব্যান করার জন্য মামলা করেছিল আইফোন নির্মাতা। কিন্তু তখন আদালতে অ্যাপলের সেই আবেদন প্রত্যাখ্যাত হয়। তবে গত মাসে এ ব্যাপারে কোম্পানিটিকে আপীলের সুযোগ দেয়া হলে এখন অ্যাপল সেই সুযোগটিই কাজে লাগাতে চাইছে।

এক্ষেত্রে মজার বিষয় হচ্ছে, উক্ত তালিকায় থাকা সবগুলো ডিভাইস ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের বাজার থেকে বিক্রি বন্ধ করে সেগুলোর প্রচার গুটিয়ে নিয়েছে স্যামসাং। তারপরেও অ্যাপল এগুলো বিক্রির ওপর স্থায়ীভাবে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করাতে চাচ্ছে যাতে ভবিষ্যতেও কখনো তা মার্কেটে ফিরে আসতে না পারে।

অ্যাপলের পেটেন্ট লঙ্ঘনকারী ডিভাইস হিসেবে চিহ্নিত স্যামসাং পণ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে গ্যালাক্সি ট্যাব ১০.১, এটিএন্ডটি গ্যালাক্সি এস২ প্রভৃতি।

যুক্তরাষ্ট্রের আপিল আদালতের বরাত দিয়ে ব্লুমবার্গ নিউজ এজেন্সি লিখছে, স্যামসাং স্মার্ট ডিভাইসগুলো ব্যান করতে চাইলে অ্যাপলের এমন কিছু তথ্য উপস্থাপন করতে হবে যাতে প্রমাণ হয় এগুলো বিভিন্ন স্মার্টফোন ফিচার যেমন মাল্টিটাচ প্রযুক্তি প্রভৃতিকে লঙ্ঘন করে। কিন্তু শুধুমাত্র ডিজাইন পেটেন্টের সূত্র ধরে কোন সেলস ব্যান পাওয়া যাবেনা বলেই জানাচ্ছে আদালত সূত্র।

অ্যাপল ও স্যামসাং হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুই স্মার্টফোন নির্মাতা কোম্পানি। আইডিসির হিসেব অনুযায়ী, ২০১৩ পর্যন্ত স্মার্টফোন মার্কেটে অ্যাপলের শেয়ার ১৩% ও স্যামসাংয়ের শেয়ার ৩১ শতাংশ। এরা একে অপরকে পেটেন্ট লঙ্ঘন সঙ্ক্রান্ত মামলায় জড়িয়ে শত শত মিলিয়ন ডলার খরচ করে আসছে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,562 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *