মোবাইল সেটের IMEI নিবন্ধন প্রক্রিয়া আসছে বাংলাদেশে

Lumia-550

বাংলাদেশে ইতোমধ্যেই মোবাইল ফোনের সিম কার্ড নিবন্ধন ও সঠিক তথ্য হালনাগাদ করানোর কাজ অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে চলছে। আর এরপর নিকট ভবিষ্যতে মোবাইল ফোনের হ্যান্ডসেটের আইএমইআই (ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইক্যুইপমেন্ট আইডেন্টিটি- IMEI) নম্বরও নিবন্ধনের আওতায় আসছে। এপ্রিল ২০১৬ এর পর থেকেই এই কার্যক্রম শুরু হবে। এই তথ্য জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। প্রথম আলোর খবর।

প্রতিটি মোবাইল ফোন সেটের ১৫ অংকের একটি একক সনাক্তকারী নম্বর থাকে যেটি আইএমইআই নামে পরিচিত। এই নম্বরটি প্রত্যেক সেটের জন্য আলাদা। ফোনের কি-প্যাডে *#06# প্রেস করলে আইএমইআই নম্বর দেখা যায়। হ্যান্ডসেটটি কোন নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হচ্ছে, কোন নম্বরের সিম এতে চলছে, কোন স্থানে আছে, কোন কোম্পানি এটি তৈরি করেছে এসব কিছুই নির্নয় করা যায় আইএমইআই নম্বর থেকে। এজন্য অবশ্য নেটওয়ার্কে ট্র্যাকিং এক্সেস থাকতে হয় যা সাধারণত আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও সংশ্লিষ্ট মোবাইল নেটওয়ার্ক কোম্পানির নিকট উপলভ্য থাকে।

১৫ নভেম্বর ২০১৫ থেকে দেশে মোবাইল ফোনের সিম কার্ড নিবন্ধনের জন্য বায়োমেট্রিক পদ্ধতির প্রয়োগ শুরু হয়েছে। পরীক্ষামূলকভাবে চালু হওয়া এই পদ্ধতি ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে। এ পদ্ধতিতে গ্রাহকদের ছবি ও জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য ছাড়াও আঙুলের ছাপ সংরক্ষণ করে রাখা হবে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

Join 8,575 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *