বিকাশ থেকে রকেটে টাকা পাঠানোর সুবিধা আসছে

কেমন হতো যদি বিকাশ থেকে রকেটে টাকা পাঠানো যেতো? বেশ সুবিধা হতো বটে, তাই নয় কি? ঠিক এমনি একটি সেবা বেশ শীঘ্রই আসতে যাচ্ছে যার মাধ্যমে বিকাশ থেকে রকেটে মুহুর্তের মধ্যে টাকা পাঠানো যাবে।

আসছে “বিনিময়” নামের একটি নতুন সেবা, যার মাধ্যমে বিকাশ রকেট এর মত মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস (এমএফএস) সার্ভিসের পাশাপাশি ব্যাংক থেকে এমএফএসে ও এমএফএস থেকে ব্যাংক টাকা পাঠানো যাবে। ভারতে ইতিমধ্যে ইউনাইটেড পেমেন্ট ইন্টারফেস (ইউপিআই) রয়েছে যা একই কাজ করে। ইউপিআই এর আদলে তৈরী হবে আমাদের দেশের ইন্টার অপারেবল ডিজিটাল ট্রানজেকশন প্ল্যাটফর্ম বা আইডিটিপি। আর এই সেবার নাম “বিনিময়” রাখা হয়েছে। এই নতুন সেবার কল্যাণে দেশের ডিজিটাল লেনদেনে অন্য মাত্রা যুক্ত হবে।

নভেম্বরের ১৩ তারিখ আনুষ্ঠানিক উদ্ভোদন এর কথা থাকলেও ৬ তারিখ রবিবার থেকে এই নতুন সেবা চালু করা হবে বলে জানা গেছে। “বিনিময়” তৈরিতে খরচ হয়েছে ৬৫ কোটি টাকা যা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ (আইডিয়া) প্রকল্প ও বাংলাদেশ ব্যাংক সরবরাহ করছে।

“বিনিময়” এর আওতাধীন ব্যাংক ও এমএফএস পরস্পরের মধ্যে লেনদেন করা যাবে। অর্থাৎ ব্যাংক থেকে এমএফএস বা এফএফএস থেকে ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার করার বিষয়টি বাস্তব ও সহজ হতে চলেছে। এই মানি ট্রান্সফার এর ক্ষেত্রে আপাতত কোনো ফি গুণতে হবেনা গ্রাহকদের। তবে পরে এই সার্ভিসের জন্য ফি নির্ধারণ করবে বাংলাদেশ ব্যাংক। সরকারি সেবা হওয়ায় ফি কম থাকলেও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান বাড়তি ফি নিতেও পারে।

পূর্বে এক ধরনের একটি প্রকল্প চালু হওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সেটি পিছিয়ে যায়। উক্ত প্রক্রিয়ায় এমএফএস ও ব্যাংক পরস্পরের মধ্যে অর্থ লেনদেন করার সুবিধা পাবে বলে আশা করা হয়েছিলো। চালু হতে হতেও শেষ পর্যন্ত এই প্রকল্পের কাজ বন্ধ হয়ে যায়। ন্যাশনাল পেমেন্ট সুইচ বাংলাদেশ (এনপিএসবি) এর মাধ্যমে বিকাশ থেকে রকেট, রকেট থেকে ব্যাংক, ইত্যাদি মানি ট্রান্সফারের সুবিধা চালু ছিলো। ২০২০ সালের ২৭ অক্টোবর এই সেবা চালু থাকার কথা থাকলেও অবশেষে তা আর চালু হয়নি

এবার বিনিময় শিরোনামে অবশেষে চালু হতে যাচ্ছে এই কাংখিত সুবিধা। তবে এখনই সকল ব্যাংক, এমএফএস ও পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার (পিএসপি) এই সেবার আওতাধীন হবেনা। আপাতত সোনালী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, মিডল্যান্ড ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, আল–আরাফাহ্‌ ইসলামী ব্যাংক ও ডাচ্‌–বাংলা ব্যাংক এই সেবায় যুক্ত হতে যাচ্ছে বলে প্রথম আলোর প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে

এমএফএস এর মধ্যে বিকাশ ও রকেট বিনিময় এর সাথে যুক্ত হতে যাচ্ছে। এছাড়া পিএসপি হিসেবে প্রগতি সিস্টেমের টালিপে সেবাটিও বিনিময়ের সাথে যুক্ত হচ্ছে। তবে অন্যান্য এমএফএস যেমন নগদ, উপায় প্রভৃতিও এর আওতায় আসবে বলে আশা করা যায়।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

বিকাশ থেকে রকেটে টাকা পাঠানোর সুবিধা আসছে

👉 বিকাশ লোন নেওয়ার উপায় – জামানত ছাড়া সিটি ব্যাংক ও বিকাশ ঋণ!

“বিনিময়” সেবা যেভাবে কাজ করবে

আর মাত্র কয়েকদিনের মধ্যে বিনিময় সেবা সকলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। তবে শুরুতে কোনো ধরনের অ্যাপ থাকছেনা বিনিময় ব্যবহারের জন্য। আপাতত ব্যাংক ও এমএফএস এর অ্যাপে সেবা হিসেবে বিনিময় যোগ হবে। গ্রাহকগণ বিনিময় ব্যবহার করবেন নিবন্ধন করে। নিবন্ধন সম্পন্ন করার পর গ্রাহকগণ নামের পরে @binimoy.gov.bd যুক্ত হয়ে আইডি তৈরী হবে। নিবন্ধন সফলভাবে সম্পন্ন করার পর “সেন্ড মানি” ও “রিসিভ মানি” অপশন দুইটি দেখা যাবে। এরপর গ্রাহকগণ ফোন নাম্বার বা বিনিময় আইডি ব্যবহার করে টাকা পাঠাতে পারবেন।

শুরুতে শুধুমাত্র লেনদেন এর সেবা হিসেবে চলবে বিনিময়। তবে পরবর্তীতে বিনিময় অ্যাপ আসবে যার সুবাদে ধাপে ধাপে মেট্রোরেলের ভাড়া, টোল দেওয়া, এনবিআরের সেবা ও বিভিন্ন পরিষেবা বিল যুক্ত হবে বিনিময়ে। এই সেবাটি আর্থিক খাতে বড় ধরনের পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে।

প্রথম আলো লিখছে, ৫৫কোটি টাকা প্রাথমিক ব্যায়ে এই প্রকল্প হাতে নিলেও ৬৫কোটি টাকা পর্যন্ত প্রকল্পের ব্যয় যেতে পারে। ওরিয়ন ইনফরম্যাটিকস লিমিটেড, মাইক্রোসফট বাংলাদেশ লিমিটেড, ফিনটেক সল্যুশন লিমিটেড ও সেইন ভেঞ্চারার্স লিমিটেড; এই চারটি প্রতিষ্ঠান এই প্রক্রিয়া বাস্তবায়নে কাজে নিয়োগ করা হয়েছে। যে হারে বর্তমানে এমএফএস ব্যবহারের সংখ্যা বাড়ছে, সে হিসাব খুব শীঘ্রই ডিজিটাল লেনদেন ব্যবস্থায় ব্যাংক ও এমএফএস এর মধ্যে পার্থক্য বেশ কমে আসবে।

👉 ভিডিওঃ ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা ও অসুবিধা জানুন

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,628 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.