এন্ড্রয়েড ফোনের স্টোরেজ চেক এবং ফাঁকা করার উপায়

আমরা যখন কোনো স্মার্টফোন কিনি তখন সেই ফোনের স্টোরেজ স্পেস কেমন আছে সেটার ব্যাপারে খুব বেশি নজর দিয়ে থাকি। কিন্তু এক দিন না এক দিন ঠিকই আমাদের ফোনের স্টোরেজ বেশি ফাঁকা নেই এই সম্পর্কিত একটি মেসেজ চলে আসে। আর যখন এটি ঘটে তখন আপনি আর নতুন কোনো অ্যাপ কিংবা ছবি ফোনে আর রাখতে পারেন না।

এসকল ক্ষেত্রে অনেকে তাদের বাচ্চা, পোষা প্রাণী এবং অন্যান্য প্রিয়জনের ব্যাক আপ স্ন্যাপ শট পর্যন্ত ডিলিট করতে চায় না। তবে আপনার ডিজিটাল এ মেমোরিগুলো ডিলিট না করেও একটি আইফোন কিংবা এন্ড্রয়েড ফোনে জায়গা ফাঁকা করার আরো অনেক উপায় রয়েছে। আমাদের আজকের এই আর্টিকেলে আমরা স্মার্টফোনের স্টোরেজ কিভাবে চেক করতে হয় এবং সেটি ভরে গেলে কিভাবে ফাঁকা করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো। 

এন্ড্রয়েডে অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ চেক করার উপায়

আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ডিভাইসের স্টোরেজ Settings অ্যাপের মাধ্যমে চেক করতে পারবেন। এন্ড্রয়েড ডিভাইসের সেটিংস অ্যাপে স্টোরেজ সেটিংস সহ আরো অনেক ধরনের গুরুত্বপূর্ণ জিনিস থেকে থাকে। সেটিংসের মাধ্যমে আপনি আপনার স্মার্টফোনের স্টোরেজের কতটুকু জায়গা ব্যবহার করছেন সে ব্যাপারে জানতে পারবেন। তাছাড়াও আপনার সকল ছবি, ভিডিও এবং অডিও ফাইল গুলোর মধ্যে কোনটি সবচেয়ে বেশি জায়গা নিচ্ছে সে ব্যাপারেও একটা ধারণা পেয়ে যাবেন।

এন্ড্রয়েড ফোনে স্টোরেজ সেটিংস খুঁজে পাওয়ার জন্য প্রথমে এক বার কিংবা দুই বার আপনার ফোনের টপ স্ক্রিন থেকে নিচের দিকে সোয়াইপ ডাউন করুন। অপশনটি কোথায় থাকে তা মূলত আপনার স্মার্টফোনের উপর নির্ভর করে থাকে। তারপর সেখান থেকে গিয়ার আইকনে ট্যাপ করে সেটিংস অ্যাপ চালু করুন। তাছাড়া ফোনের হোম স্ক্রিনেও আপনি সেটিংস অ্যাপ পাবেন। গুগল পিক্সেল সহ স্যামসাং ব্যতীত প্রায় সকল ফোনেই আপনি নোটিফিকেশন ট্রে থেকে সরাসরি স্টোরেজ সেকশনে যেতে পারবেন। স্যামসাং গ্যালাক্সি ডিভাইস গুলোতে এজন্য আপনাকে প্রথমে ব্যাটারি এন্ড ডিভাইস কেয়ারে প্রথমে যেতে হবে এবং সেখান থেকে আপনি স্টোরেজ অপশন পেয়ে যাবেন।

সেটিংসে গিয়ে স্টোরেজ সরাসরি না পেলে storage লিখে সার্চ করতে পারেন। সেখানে আপনার ডিভাইস তার ব্যবহার করা স্টোরেজ এনালাইজ করে থাকে। সেখান থেকে আপনি আপনার ফোনের স্টোরেজ সম্পর্কিত সকল ধরনের তথ্য পেয়ে যাবেন। কতটুকু জায়গা ব্যবহার করা হয়েছে এবং কোন ক্যাটাগরিতে কতটুকু জায়গা লেগেছে সব ইনফরমেশন আপনারা এখান থেকে পেয়ে যাবেন। তবে এক্ষেত্রে স্মার্টফোন ভেদে আপনি আপনার ক্যাটাগরি ভিত্তিক বিভাজন দেখতে পারবেন।

স্টোরেজের জায়গা ফাঁকা করার উপায়

আপনার স্মার্টফোনে কোন জিনিস কতটুকু জায়গা দখল করে রাখছে আপনি যখন জানতে পারবেন তখন তার উপর ভিত্তি করে আপনি কিছু ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন।

ডাউনলোড থেকে ফাইল ডিলিট করুন

আপনি প্রায়শই আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে কিছু ডাউনলোড করেন। একবার দেখার পরে হয়তো আর সেটার প্রয়োজন হয় না, কিন্তু , তাও সেটা ফোনে পড়ে থাকে । এই অবস্থায় আপনি যখন ফোনের মেমরি খালি করতে চান, তখন প্রথমে ফাইল এক্সপ্লোরার, যাকে ফাইল ম্যানেজারও বলা হয়, সেখানে যান এবং ডাউনলোড করা ফাইলটি ডিলিট করুন।

অ্যাপ্লিকেশন আনইনস্টল করুন

আপনার ফোনে এমন অনেক পুরানো অ্যাপ্লিকেশন পড়ে আছে যা আপনি একবারও ব্যবহার করেননি। সেই অ্যাপগুলিকে আনইনস্টল করুন এবং যদি এমন কোনও প্রিলোডেড অ্যাপ থাকে যা আপনি ব্যবহার করেন না এবং সেটি আনইন্সটল হচ্ছে না, তবে সেটিংসে যান এবং অ্যাপগুলিতে যান এবং সেখান থেকে সেই অ্যাপটি নির্বাচন করুন এবং সেটি রিমুভ করুন।

ক্যাশে মেমোরি ক্লিন করুন

এটি সাধারণ কিন্তু সবচেয়ে কার্যকরী কৌশল যা প্রত্যেক অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীকে বলা হয়৷ আপনি যখন অ্যান্ড্রয়েড ফোনে কোনো অ্যাপ বা ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, সেই সময়ের মধ্যে অ্যাপ এবং ব্রাউজার ফোনের মেমরিতে কিছু ডেটা জমা রাখে যাতে আপনি যদি সেই ওয়েবসাইট বা অ্যাপটি আবার ব্যবহার করেন তাহলে অনেক তথ্য যাতে আগে স্টোর হয় যাতে পুনরায় ওই ওয়েবসাইট অনেক দ্রুত খোলা যায়। এইভাবে আপনাদের অনেক সময় বেঁচে যায়। কিন্তু ক্যাশে মেমরি ফোনের ইন্টারনাল মেমোরিতে থাকে এবং তা ধীরে ধীরে এতটাই বেড়ে যায় যে এটি আপনার ফোনের পারফরম্যান্সকে প্রভাবিত করতে শুরু করে। এমন পরিস্থিতিতে, আপনি ফোনে থাকা ক্যাশে মেমরি পরিষ্কার করে মেমোরি স্পেস বাড়াতে পারেন। সেটিংসে স্টোরেজে ক্যাশে মেমোরির অপশন পাওয়া যাবে।

OnePlus 10T

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ছবি এবং ভিডিও ডিলিট করুন

বর্তমানে সব ফোনেই অনেক বেশি মেগা পিক্সেল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয় এবং এর কারণে ছবিগুলি বেশ ভারী হয়ে যায়। ফোনের মেমোরিও এইসব ছবিতেই ভরে যায়। আপনার ফোনে এমন অনেক ছবি আছে যেগুলো আপনি ব্যবহার করেন না। এমতাবস্থায় ফোন থেকে আপনার সেইসব ছবি ডিলিট করে দিলে ভালো হয়। ছবি তোলার সময় এমন অনেক ছবি আছে যেগুলো ঝাপসা কিন্তু ফোনে পড়ে আছে। এইসব ছবি ডিলিট করলে আপনারা ফোন মেমরিতে অনেকটা খালি হবে।একইভাবে, ফোনে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে আসা ভিডিও এবং ফটোগুলিও প্রচুর মেমরি আটকে রাখে। এই ভিডিওগুলো একবার দেখার পর আর কখনো দেখাও হয় না। তাই এগুলো ডিলিট করে দেওয়াই ভালো।

ক্লাউড স্টোরেজ ব্যবহার করুন

ক্লাউড স্টোরেজ ফোনের ইন্টারনাল মেমরি খালি করার সেরা মাধ্যম। এর মাধ্যমে, আপনি ফোনে উপলব্ধ সমস্ত ডেটা ক্লাউডে সংরক্ষণ করতে পারেন, যা আপনি সবসময় ব্যবহার করেন না। এতে শুধু ফোনের মেমরিই খালি হবে না, ফোন আগের চেয়ে দ্রুত হবে। আজ ফোনে ক্লাউড স্টোরেজের জন্য অনেকগুলি অপশন রয়েছে। গুগল ড্রাইভ ইতিমধ্যেই অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনগুলিতে বিল্ট ইন দেয়া হয়েছে, আপনি ড্রপবক্স এবং মাইক্রোসফট ওয়ানড্রাইভের মতো অ্যাপ্লিকেশনগুলিও ডাউনলোড করতে পারেন৷ তাদের ডেস্কটপ সংস্করণও রয়েছে এবং এর মাধ্যমে আপনি ডেস্কটপ থেকে মোবাইল ডেটা এবং মোবাইল থেকে ডেস্কটপ ডেটা অ্যাক্সেস করতে পারবেন।

ফ্যাক্টরি ডেটা রিসেট করুন

যদি ফোনের মেমরি পূর্ণ থাকে, তাহলে আপনি ফ্যাক্টরি ডেটা রিসেট এবং হার্ড রিসেট করে অনেক মেমরি খালি করতে পারেন। তবে মনে রাখবেন যে হার্ড রিসেট এবং ফ্যাক্টরি রিসেট করার আগে, ফোনে থাকা জরুরি জিনিসগুলির একটি ব্যাকআপ নিন। কেননা এই প্রক্রিয়ায় আপনার ফোন থেকে সবকিছু ডিলিট হয়ে যাবে। ফ্যাক্টরি ডেটা রিসেট অপশনটি ফোনের সেটিংসে পাওয়া যাবে, যেখানে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে একটি হার্ড রিসেট করতে, আপনাকে ফোনটি বন্ধ করতে হবে এবং একই সাথে পাওয়ার এবং ভলিউম ডাউন বাটন প্রেস করতে হবে। 👉 এন্ড্রয়েড ফোন ব্যাকআপ নেয়ার উপায়

উল্লিখিত কোনো উপায় অনুসরণ করেও যদি আপনার ফোনের স্টোরেজ খালি করতে না পারেন, সেক্ষেত্রে নতুন ফোন কেনার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। ফোনের স্টোরেজ সম্পর্কিত আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কাছে কেমন লেগেছে তা আমাদের কমেন্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিতে পারবেন। এছাড়াও নিত্য নতুন টেকনোলজি বিষয়ক নানা ধরনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য এবং প্রয়োজনীয় সকল ধরনের টিপস এন্ড ট্রিকস পেতে চোখ রাখুন আমাদের এই ওয়েবসাইটে। 

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,586 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *