সুপারভাইজার নয়, উপসহকারী প্রকৌশলী হিসেবেই যোগদানঃ আন্দোলন স্থগিত

By -

Polytechnic+students+protest_Tejgaonপলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থেকে পাস করা ছাত্রছাত্রীরা চাকরিতে যোগদানের সময় সুপারভাইজার হিসেবে নয়, বরং উপসহকারী প্রকৌশলী হিসেবে বিবেচিত হবেন। আজ ৩০ সেপ্টেম্বর সোমবার  শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের যৌথ সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। (ইমেজ ক্রেডিটঃ বিডিনিউজ২৪ ডটকম)

দুই দফা দাবি পূরণের আশ্বাস পাওয়ার পর ১৫ দিনের জন্য আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিত করেছেন পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,565 other subscribers

চার দিন ধরে চলমান আন্দোলনের পর সোমবার সচিবালয়ে সরকারের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতাদের বৈঠক শেষে বাংলাদেশ কারিগরি ছাত্র পরিষদের আহ্বায়ক জাকির হোসেন সাগর আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, “আমরা ১৫ দিন সময় দিয়েছি। এর মধ্যে তারা আমাদের সব দাবি পূরণ করবেন বলে কথা দিয়েছেন। এজন্য আমরা ১৫ দিনের জন্য আন্দোলন কর্মসূচি স্থগিত করছি।”

সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, পলিটেকনিকের শিক্ষার্থীরা ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার হিসেবেই বিবেচিত হবেন। এ সঙ্ক্রান্ত গেজেট কয়েক দিনের মধ্যেই প্রকাশ করা হবে।

গৃহায়ণসচিব খোন্দকার শওকত হোসেন বলেন, “একটা ভুল ধারণা থেকে উদ্ভূত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। ইতিমধ্যে ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের আমরা ডিপ্লোমা প্রকৌশলী হিসেবেই বিবেচনার সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবং সবাইকে বলতে চাই, কোনোভাবেই আমরা সুপারভাইজার পদ তৈরি করিনি। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলতে চাই, চাকরিতে যোগদানের সময় তাঁদের পদ হবে উপসহকারী প্রকৌশলী।”

শিক্ষাসচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, “আশা করি শিক্ষার্থীরা এখন তাঁদের আন্দোলন প্রত্যাহার করবেন। তাঁরা ডিপ্লোমা প্রকৌশলী হিসেবেই বিবেচিত হবেন।” তিনি আরও বলেন, আন্দোলনের কারণে শিক্ষার্থীরা যেসব পরীক্ষা বর্জন করেছেন, সেসব বিষয়ে দ্রুতই সিদ্ধান্ত হবে।”

চতুর্থ দিনের মত পলিটেকনিকের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ চলেছে আজ। এতে একাধিক স্থানে ভাঙচুর সহ রাজশাহীতে পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আর বগুড়ায় ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে আন্দোলন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলন স্থগিত করার সিদ্ধান্ত ঘোষণার সময় সাগর বলেন, “সব শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেব, কেউ আর রাজপথে থাকব না।”

আন্দোলনে গ্রেপ্তার হওয়া শিক্ষার্থীদের মুক্তির দাবি জানিয়ে  তিনি বলেন, “আমাদের সাড়ে তিনশ শির্ক্ষর্থী গ্রেপ্তার হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে আমরা পরীক্ষা দেব। তাদের নিয়েই আমরা পরীক্ষা দিতে চাই।”

★ টেলিটক অপরাজিতা প্যাকেজ সম্পর্কে সকল তথ্য

       
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply