আইওএস ১৫ এর নতুন ফিচারসমুহ

চলতি বছরের জুন মাসে আইওএস অপারেটিং সিস্টেম এর নতুন সংস্করণ, আইওএস ১৫ এর ঘোষণা দিয়েছিল অ্যাপল। সেপ্টেম্বরের ২০ তারিখ থেকে আইওএস ১৫ আপডেট পৌঁছানো শুরু হবে আইফোনগুলোতে। আইফোন অপারেটিং সিস্টেমের এই নতুন সংস্করণে পরিবর্তন এসেছে ইন্টারফেস থেকে শুরু করে সিকিউরিটির ক্ষেত্রেও।

এই পোস্টে আমরা আলোচনা করব নতুন আইওএস ১৫ এর সাথে কী কী ফিচার ও উন্নয়ন অপেক্ষা করছে সে সম্পর্কে।

আইওএস ১৫ এ নতুন কী থাকছে?

WWDC প্রেজেন্টেশনে আইওএস ১৫ এর নতুন ফিচারসমুহ ও পরিবর্তনসমুহ প্রদর্শন করে অ্যাপল। চলুন জেনে নেওয়া যাক আইওএস ১৫ এর নতুন সব ফিচার ও পরিবর্তন সম্পর্কে বিস্তারিত।

ফেসটাইম

আইওএস ১৫ এর হাত ধরে অ্যাপল ভিডিও কলিং সেবা, ফেসটাইম এ আসতে চলেছে অনেক পরিবর্তন। প্রথমত ফেসটাইমে যুক্ত হচ্ছে স্পেশিয়াল অডিও (Spatial Audio) যার ফলে কলে থাকা নির্দিষ্ট ব্যক্তির অডিও ফোনের নির্দিষ্ট স্থান থেকে শোনা যাবে।

ভয়েস আইসোলেশন এর মাধ্যমে অডিও ক্ল্যারিটিতেও উন্নতি আসতে চলেছে। মেশিন লার্নিং ব্যবহারের মাধ্যমে এম্বিয়েন্ট নয়েজ আইডেন্টিফাই ও রিমুভ হয়ে হবে। আবার ওয়াইড স্পেকট্রাম অডিও অপশন বাচাই করার অপশনও রয়েছে, যাতে ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজ যুক্ত থাকে।

এছাড়াও নতুন ইন্টারফেস অপশন যুক্ত হচ্ছে ফেসটাইম অ্যাপে। ফেসটাইমে ব্যবহার করা যাবে পোর্ট্রেইট মোড, যার মাধ্যমে কলে থাকা অবস্থায় ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার করার মাধ্যমে সাবজেক্টের দিকে সহজেই এটেনশন দেওয়া সহজ হবে। আরো রয়েছে গ্রিড ভিউ, যার মাধ্যমে কলের সব পার্টিসিপেন্টকে গ্রিড আকারে দেখা যায়।

আইওএস ১৫ ফেসটাইম

কোভিড-১৯ প্যান্ডেমিককে কেন্দ্র করে ভিডিও মিটিং এর যে চাহিদা বেড়েছে, সেটিকে মাথায় রেখে সকল প্ল্যাটফর্মের ব্যবহারকারীদের সাথে ফেসটাইম ব্যবহার করে যোগাযোগ এর সুযোগ করে দিয়েছে অ্যাপল। আইওএস ১৫ এ ফেসটাইম এর জন্য জেনারেটেড লিংক শেয়ার করা যাবে ও যেকেউ অ্যান্ড্রয়েড কিংবা উইন্ডোজ ডিভাইস থেকে সেই লিংক ব্যবহার করে ফেসটাইম কলে যুক্ত হতে পারবে।

ফেসটাইম আইওএস ১৫ এন্ড্রয়েড

শেয়ারপ্লে

শেয়ারপ্লে একটি ফেসটাইম নির্ভর ফিচার হলেও এটি যুগান্তকারী হতে চলেছে। ফেসটাইম কলে কথা বলার সময় পিকচার-ইন-পিকচার মোড ব্যবহার করে অন্য অ্যাপ থেকে কোনো কনটেন্ট একসাথে দেখা ও শোনা যাবে শেয়ারপ্লে ফিচারের মাধ্যমে।

আইওএস ১৫ শেয়ারপ্লে

এই ফিচার সবচেয়ে বেশি কাজে আসবে কলে থেকেই একসাথে একই গান শোনার ক্ষেত্রে। বন্ধুদের সাথে আড্ডার মধ্যেই নিজেদের পছন্দের গানগুলো উপভোগ করা যাবে খুব সহজেই। বর্তমানে শুধুমাত্র অ্যাপল এর অ্যাপল মিউজিক অ্যাপ থেকে অডিও শেয়ার করা যাবে ফেসটাইম কলের শেয়ারপ্লে ফিচার এর মাধ্যমে।

এছাড়াও এইচবিও ম্যাক্স, ডিজনি প্লাস, হুলু, টুইচ ও টিকটক অ্যাপের কনটেন্ট শেয়ারপ্লে ব্যবহার করে একসাথে দেখার সুযোগ থাকছে। শেয়ারপ্লে এর এপিআই ব্যবহার করে অন্যসব অ্যাপ এর ডেভলপাররা তাদের অ্যাপে এই ফিচার যুক্ত করলে আরো অ্যাপে শেয়ারপ্লে ব্যবহার সম্ভব হবে। আবার স্ক্রিন শেয়ারিং কিংবা গেমপ্লে শো-অফ করার জন্যও ব্যবহার করা যাবে শেয়ারপ্লে।

আইওএস ১৫ ফোকাস মোড

ফোকাস ফিচারটি অনেকের জন্যই একটি লাইফ চেঞ্জিং সংযোজন হতে চলেছে। এই ফিচারটি ব্যবহার করে মূলত বিভিন্ন কাজের জন্য স্মার্টফোনের বিভিন্ন সেটিংস এর বান্ডেল তৈরী করা যাবে। চাকরি থেকে শুরু করে ড্রাইভিং পর্যন্ত, প্রত্যেক কাজের জন্য আলাদা প্রোফাইল তৈরী করা যাবে, যার মাধ্যমে উক্ত কাজে ফোকাস দেওয়া সহজ হয়।

iOS 15 Focus

ফোকাস এ ফোকাস স্ট্যাটাস সেট করার সময় নোটিফিকেশন সেটিংস, অ্যাপ অ্যারেঞ্জমেন্ট, এমনকি হোমস্ক্রিন পর্যন্ত আলাদাভাবে সাজানো যাবে। ধরুন, অফিস প্রোফাইল অন থাকলে তখন আপনার ফোনে থাকা গেমসমুহ প্রদর্শিত হবেনা, এমন সেটিংস করতে পারেন। আবার অবসর কিংবা ঘুমের জন্যও তৈরী করতে পারেন আলাদা ফোকাস প্রোফাইল।

ফোকাসে সাহায্য করতে ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েস নামে একটি ফিচার এসেছে আইওএস ১৫ তে। এটি মূলত সমুদ্র, বৃষ্টি, নদী, ইত্যাদির ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজ জেনারেট করতে সক্ষম, যা ফোকাসে সাহায্য করে।

ফটোস

আইওএস ১৫ এর সাথে উন্নতি চোখে পড়বে ফটোস সার্চ এর ক্ষেত্রে। এখন থেকে স্পটলাইট সার্চে ছবিতে থাকা টেক্সট এর ভিত্তিতে সার্চ রেজাল্টে ছবিও দেখা যাবে।

এই ফিচারটি মূলত লাইভ টেক্সট নামে অন্য একটি ফিচার এর সাথে যুক্ত। ফটো লাইব্রেরিতে কিংবা ক্যামেরার ভিউফাইন্ডারে যেকোনো ছবি দেখার সময় লাইভ টেক্সট চালু করার জন্য একটি বাটন দেখানো হবে। লাইভ টেক্সট এর মাধ্যমে ছবিতে থাকা টেক্সট খুঁজে বের করার পাশাপাশি উক্ত লেখা কপি করে সার্চ কিংবা অন্য যেকোনো কাজে ব্যবহার করা যাবে।

👉 আইফোন ১৩ এলো নতুন ফিচার ও উন্নত ক্যামেরা নিয়ে

শুধুমাত্র লেখার ক্ষেত্রেই এই ইন্টেলিজেন্স এর ক্ষমতা সীমাবদ্ধ নয়। যেকোনো প্রাণি কিংবা স্থাপত্য সম্পর্কেও খুব সহজেই জানা যাবে একই ফিচার ব্যবহার করে। একই ধরনের ফিচার অ্যান্ড্রয়েডে গুগল এর গুগল লেন্স অ্যাপটি ব্যবহার করা সম্ভব হলেও অ্যাপল এটিকে নিয়ে গিয়েছে অন্য মাত্রায়।

ম্যাপস

আইওএস ১৫ এর পরিবর্তনের ছোঁয়া লাগতে যাচ্ছে অ্যাপল ম্যাপসেও। অনেক নতুন রোড ডিটেইলস, যেমমঃ টার্ন লেইন, বাস লেইন, ট্যাক্সি লেইন ও পথচারী ক্রসিংস, ইত্যাদি যুক্ত হতে যাচ্ছে অ্যাপল ম্যাপসে। এছাড়াও উল্লেখযোগ্য স্থাপনাগুলোর বেটার মডেল যুক্ত হয়েছে নতুন ম্যাপে। আরো রয়েছে আকর্ষণীয় নাইট টাইম ভিউ।

আইওএস ১৫ - iOS 15 maps

ট্রানজিট ডিরেকশনে পাওয়া যাবে ব্যাপক সুবিধা। যেমনঃ নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানতে পারবেন আপনার গন্তব্যের সম্ভাব্য পৌছানোর সময়। এছাড়াও এআর ফিচারের কল্যাণে কোনো স্টেশনে নামার পর কোনদিকে যাবেন, তার ডিরেকশনও প্রদর্শন করবে ম্যাপস।

মেসেজেস

মেসেজেস অ্যাপ এর মাধ্যমে পাঠানো কনটেন্ট, কনটেন্ট এর ধরন অনুযায়ী কোরেস্পন্ডিং অ্যাপে “Shared with You” সেকশনে দেখা যাবে। অর্থাৎ কেউ যদি মেসেজেস এর মাধ্যমে কোনো গানের লিংক পাঠায়, সেক্ষেত্রে অ্যাপল মিউজিক এর Shared with You সেকশনে তার প্রদর্শিত হবে।

ios15 music shared with you

এছাড়াও মেসেজেস এ অনেকগুলো ছবি একসাথে পাঠানো হলে, সেক্ষেত্রে একনজরে দেখার জন্য কোলাজ কিংবা সোয়াপেইবল স্ট্যাক আকারে দেখানো হবে। এছাড়াও কন্টাক্ট নেম ব্যবহার করেই মেসেজেস এর মাধ্যমে শেয়ার করা ইমেজ খুঁজে বের করা যাবে।

আইওএস ১৫ এর পরিবর্তনসমুহ

ওয়ালেট অ্যাপ এ যুক্ত হচ্ছে কি বা চাবি যুক্ত করার সুবিধা। এছাড়াও নতুন ডিজাইন, অ্যানিমেশন ও ক্লাইমেট যুক্ত হয়েছে আবহাওয়া দেখার ওয়েদার অ্যাপে।

উইজেটস

আইওএস ১৫ তে অ্যাপল এর তরফ থেকে যোগ হয়েছে নতুন কিছু উইজেটস। এমন কিছু নতুন উইজেটস হলোঃ

  • ফাইন্ড মাই উইজেটঃ বন্ধু কিংবা কোনো পারসোনাল আইটেমের লোকেশন দেখা যায়
  • কন্টাক্ট উইজেটঃ বন্ধু বা পরিবার এর সাথে যোগাযোগের জন্য ফোন, মেসেজ ফেসটাইম, মেইল কিংবা ফাইন্ড মাই শর্টকাট
  • গেম সেন্টার উইজেটঃ ব্যবহারকারীর সদ্য খেলা গেমসমুহ দেখা যাবে। এছাড়াও বন্ধুরাও কোন গেম খেলছে তা জানার মাধ্যমে নতুন গেম ও ডিসকভার করা যাবে
  • স্লিপ উইজেটঃ ঘুমের শিডিউল ও পরিমাপ পর্যবেক্ষণ করা যাবে।

👉 বর্তমানে বিশ্বের সেরা স্মার্টফোন তালিকা (সবদিক মিলিয়ে)

যেসব ডিভাইস আইওএস ১৫ আপডেট পাবে

আইওএস ১৫ এর নতুন ফিচারসমুহ

আইফোন ৬এস ও এর পরে মুক্তি পাওয়া সকল আইফোন পাবে আইওএস ১৫ আপডেট। আইওএস ১৫ সাপোর্ট করবে যেসব আইফোনে, তার তালিকা দেওয়া হলোঃ

  • আইফোন ৬এস
  • আইফোন ৬এস প্লাস
  • আইফোন এসই (২০১৬)
  • আইফোন ৭
  • আইফোন ৭ প্লাস
  • আইফোন ৮
  • আইফোন ৮ প্লাস
  • আইফোন এক্স
  • আইফোন এক্সএস
  • আইফোন এক্সএস ম্যাক্স
  • আইফোন এক্সআর
  • আইফোন ১১
  • আইফোন ১১ প্রো
  • আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স
  • আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স
  • আইফোন এসই (২০২০)
  • আইফোন ১২ মিনি
  • আইফোন ১২
  • আইফোন ১২ প্রো
  • আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্স
  • সকল আইফোন ১৩ মডেল।

উল্লিখিত আইফোনসমুহ ছাড়াও আইপড টাচ ও পাবে আইওএস ১৫ আপডেট। আইওএস ১৩ ও ১৪ এর সাপোর্ট যেসব ডিভাইসে ছিলো, সেসব সকল ডিভাইস পেতে যাচ্ছে আইওএস ১৫ আপডেট।

আইওএস ১৫ সম্পর্কে আপনার মতামত কী? আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,722 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.