শাওমি MIUI পিওর মোড কী?

MIUI – মিইউআই কিংবা এমআইইউআই যে নামেই ডাকুন না কেন, এটি শাওমির সুপরিচিত কাস্টম এন্ড্রয়েড রম‘কেই বোঝাবে। মিইউআই হচ্ছে শাওমির অন্যতম সফল পণ্য যেটি কোম্পানিটির অসংখ্য স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের মন জয় করে নিয়েছে। সমালোচকদের চোখে যদিও MIUI আর অ্যাপল আইওএস এর ব্যাপক মিল লক্ষণীয়, তবুও এরকম একটি ফিচার সমৃদ্ধ রম উপহার দেওয়ার কারণে শাওমি একটা ধন্যবাদ পেতেই পারে।

শুধু MIUI তৈরি করেই বসে নেই শাওমি। এতে নিয়মিত বিরতিতে নতুন নতুন সব ফিচার আর উন্নয়ন নিয়ে আসছে এই চীনা ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট। বর্তমানে মার্কেটে MIUI ১২.৫ ভার্সন চলছে।

চীন ভিত্তিক কোম্পানি হওয়ায় শাওমি তাদের MIUI এর নিজস্ব মূল চীনা সংস্করণ এবং পাশাপাশি অন্যান্য আঞ্চলিক সংস্করণ তৈরি করে থাকে। আরো রয়েছে গ্লোবাল ভার্সন যা বাংলাদেশ সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জন্য তৈরি করে শাওমি।

এন্ড্রয়েড যেহেতু একটি ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম, তাই এর এই বিশালতার সুযোগ নিয়ে অনেক অসাধু গোষ্ঠী বিভিন্ন রকম ক্ষতিকর অ্যাপ ছড়িয়ে থাকে। আপনি যদি আইফোন ব্যবহার করে থাকেন তাহলে নিশ্চয়ই লক্ষ্য করেছেন যে আইফোনে অ্যাপ স্টোরের বাইরে থেকে কোনো অ্যাপ ডাউনলোড বা ইনস্টল করা যায়না। কিন্তু এন্ড্রয়েড ফোনে এটা সহজেই সম্ভব।

অনেকেই বিভিন্ন সাইট থেকে এপিকে ফাইল ডাউনলোড করে এন্ড্রয়েড ফোনে ইনস্টল করে থাকেন। এটাকে সাইডলোডিং বলা হয়। প্লে স্টোর কিংবা এরকম সুপ্রতিষ্ঠিত অ্যাপ মার্কেটপ্লেস ব্যতীত অন্য কোনও সাইট থেকে এভাবে অ্যাপ ডাউনলোড করা বিপদজনক। এতে করে অনেক ক্ষতিকর অ্যাপ ইনস্টল হয়ে যেতে পারে আপনার মোবাইলে।

এই সমস্যা মোকাবেলা করার জন্য শাওমি পরীক্ষা করছে মিইউআই পিওর মোড। এই ফিচারটি শাওমি ফোনে চালু করলে তখন আর বাইরে থেকে অ্যাপ ইনস্টল করা যাবেনা। এছাড়া ব্যাকগ্রাউন্ডেও কোনো অ্যাপ ইনস্টল হবেনা। ব্যবহারকারীর সম্মতি ছাড়াও কোনো অ্যাপ ইন্সটল হবেনা।

অবশ্য পিওর মোড বন্ধ করে রাখলে আবার বাইরের সোর্স থেকে এপিকে ডাউনলোড করে ফোনে ইনস্টল করা যাবে।

MIUI পিওর মোড পরীক্ষা করছে শাওমি

যদিও এন্ড্রয়েড এ এর আগেও সাইডলোডিং বন্ধ করার ফিচার ছিল, তবে শাওমির পিওর মুড ব্যাকগ্রাউন্ড অ্যাপ ইনস্টলেশন বন্ধ করে আরো এক ধাপ এগিয়ে থাকবে।

আরো জানুনঃ শাওমি মি একাউন্ট কি? Mi Account এর সুবিধা কি?

শাওমি জানিয়েছে, MIUI ব্যবহারকারীরা যেসব অ্যাপ তাদের ফোনে ইনস্টল করে থাকেন সেগুলোর ৪০ শতাংশই শাওমির নিরাপত্তা নিরীক্ষায় পাশ করেনা। আর ১০% হচ্ছে সম্ভাব্য ক্ষতিকর অ্যাপ। পিওর মুড যদি চালু হয়, এটা ব্যবহারকারীদের উপকারে লাগবে বলে আশা করা যায়। বর্তমানে পরীক্ষামূলক থাকা এই পিওর মুড কবে স্ট্যাবল ভার্সনে আসবে তা নিশিত জানা যায়নি।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,558 other subscribers

2 comments

    • আরাফাত বিন সুলতান Post authorReply

      Please share your experience with us. Thanks.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *