বিশ্বের প্রথম ২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ফোন এলো – ১০ মিনিটে ফুল চার্জ!

২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধাযুক্ত ফোন নিয়ে এলো আইকো। আইকো ১০ প্রো নামের এই বাণিজ্যিক মডেলটি নিয়ে এলো স্মার্টফোনের জন্য বিশ্বের প্রথম ২০০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং। একই সাথে আইকো ১০ ফোনটি ঘোষণা করা হয় যা ১২০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এই পোস্টে আইকো ১০ ও আইকো ১০ প্রো, ফোন দুইটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানব।

আইকো ১০ প্রো – IQOO 10 Pro

আইকো ১০ প্রো ফোনটির ৪,৭০০মিলিএম্প এর ব্যাটারি দুইটি সেলে আলাদা করা, যার ফলে GaN চার্জার দ্বারা ১০এম্পিয়ার কারেন্ট পুশ করে মাত্র ১০মিনিটে ফোনটি ফুল চার্জ করা যায়। ১.৫মিটার ইউএসবি-সি চার্জিং ক্যাবল এর সাথে আইকো ১০ প্রো এর বক্সেই দেওয়া থাকবে ২০০ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার। এছাড়া ফোনটি ৬৫ওয়াট পর্যন্ত ইউএসবি পাওয়ার ডেলিভারি ও ৫০ওয়াট পর্যন্ত ওয়্যারলেস ও রিভার্স চার্জিং সাপোর্ট করে।

আইকো ১০ প্রো ফোনটিতে ২০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এর পাশাপাশি প্রসেসর হিসেবে রয়েছে লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ চিপসেট। সর্বোচ্চ ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে আইকো ১০ প্রো। অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক অরিজিন ওএস দ্বারা চলবে ফোনটি।

আইকো ১০ প্রো ফোনটিতে ৬.৭৮ইঞ্চি অ্যামোলেড ডিসপ্লে রয়েছে। ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেটের এই ডিসপ্লের রেজ্যুলেশন ১৪৪০x৩২০০পিক্সেল। আইকো ১০ প্রো ফোনটিতে আলট্রাসনিক ফিংগারপ্রিন্ট রিডার রয়েছে। স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ এর পাশাপাশি ফোনটিতে ভিভো’র ভি১+ চিপ রয়েছে যা গেমিংয়ের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ফ্রেম রেট পেতে সাহায্য করবে।

এই ভি১+ চিপ ইমেজ প্রসেসিং এর ক্ষেত্রেও সাহায্য করে। আইকো ১০ প্রো ফোনটিতে ৫০মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরার পাশাপাশি ১৪.৬মেগাপিক্সেল ৩এক্স টেলিফটো ক্যামেরা ও ৫০মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা রয়েছে। ফোনের ফ্রন্টে ১৬মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে।

বর্তমানে শুধুমাত্র চীনে অনলাইন শপ থেকে আইকো ১০ প্রো কেনা যাবে। আইকোন ১০ প্রো এর দাম নিম্নরুপঃ

  • ৮জিবি র‍্যাম ২৫৬জিবি স্টোরেজ মডেলের দাম ৫,০০০ইউয়ান বা ৭৪০ডলার
  • ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি স্টোরেজ মডেলের দাম ৬,০০০ইউয়ান বা ৮৯০ডলার
iQOO 10 and iQOO 10 Pro
iQOO 10, iQOO 10 Pro

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

আইকো ১০ – iQOO 10

আইকো ১০ প্রো ফোনটির সাথে আইকো ১০ এর অনেক সাদৃশ্য রয়েছে। দামে কিছুটা কম হওয়ার কারণে আইকো ১০ ফোনটির ব্যাটারি ও ক্যামেরা সেকশনে কিছু ফিচারের কমতি রয়েছে। 

আইকো ১০ ফোনটিতে ৪,৭০০মিলিএম্প এর ব্যাটারি রয়েছে, যা আবার ১২০ওয়াট ফাস্ট চার্জার সাপোর্টেড। মাত্র ৭মিনিটে ৫০% ও ১৯মিনিটে ফুল চার্জ করা যাবে আইকো ১০। ৬৫ওয়াট পর্যন্ত ইউএসবি পিডি চার্জিং সাপোর্ট করে আইকো ১০। তবে এই ফোনটিতে কোনো ধরনের ওয়্যারলেস চার্জিং সুবিধা নেই।

একই ৬.৭৮ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে আইকো ১০ ফোনটিতে, তবে এখানে রেজ্যুলেশন কমে হয়েছে ১০৮০x২৪০০পিক্সেল। এখানেও একই ফিংগারপ্রিন্ট রয়েছে আইকো ১০ প্রো এর ন্যায়। এছাড়া স্টিরিও স্পিকার ও এক্স-এক্সিস মোটর এখানেও উপস্থিত রয়েছে।

আইকো ১০ ফোনটির ক্যামেরা সেকশনেও কিছুটা কাটছাট করা হয়েছে আইকো ১০ প্রো এর বিবেচনায়। ৫০মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরার পাশাপাশি ১৩মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা ও ১২মেগাপিক্সেল ২এক্স টেলিফটো ক্যামেরা রয়েছে আইকো ১০ ফোনটিতে। এই ফোনটিতেও ১৬মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। 

আইকো ১০ ফোনটিতেও স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ প্রসেসর রয়েছে, এখানেও ভিভো ভি১+ চিপ রয়েছে গেমিং ও ফটোগ্রাফি উন্নত করতে। সর্বোচ্চ ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি ইএফএস৩.১ স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে আইকো ১০। বোনাস 👉 ভিভো মোবাইলের দাম জানুন

আইকো ১০ ফোনটির দাম আইকো ১০ প্রো এর চেয়ে অনেকটাই কম। আইকো ১০ এর দাম নিম্নরুপঃ

  • ৮জিবি র‍্যাম ১২৮জিবি স্টোরেজ মডেল এর দাম ৩,৭০০ইউয়ান বা ৫৫০ডলার
  • ১২জিবি র‍্যাম ২৫৬জিবি স্টোরেজ মডেল এর দাম ৪,৭০০ইউয়ান বা ৭০০ডলার 

আপনার কাছে কেমন লেগেছে আইকো ১০ ও আইকো ১০ প্রো ডিভাইস দুইটি? ফোন দুইটি সম্পর্কে আপনার মতামত আমাদের জানাতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

👉 ভিডিওঃ স্মার্টফোন কেনার সময় যে বিষয়গুলো খেয়াল করা দরকার

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,268 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.