‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থের অবৈধ লেনদেন ও সনদ বিক্রি’- টিআইবি

pic_ms_private_university_14_bnট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) এক গবেষণা প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, বাংলাদেশে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন থেকে শুরু করে শিক্ষার্থীদের পাস করিয়ে দেওয়া পর্যন্ত পদে পদে অর্থের অবৈধ লেনদেন হয়। দেশে বর্তমানে ৭৯টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আছে।

টিআইবি’র ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক ওই গবেষণা প্রতিবেদনকে উদ্বৃতি দিয়ে প্রথম আলো লিখছে ‘২০১২ সালের জুন থেকে ২০১৪ সালের মে পর্যন্ত সময়ে এ গবেষণাটি পরিচালিত হয়েছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে দৈবচয়নভিত্তিতে ২২ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এই তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে।’

বিডিনিউজ২৪ ডটকম লিখছে, ঢাকার ব্র্যাক ইন সেন্টারে আয়োজিত ঐ সংবাদ সম্মেলনে টিআইবি জানায়, ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পরীক্ষায় পাস করিয়ে দেয়া থেকে শুরু করে অ্যাসাইনমেন্ট, অডিট, ভুয়া সনদ, পাঠ্যক্রম, বিভাগ অনুমোদন ও অনুষদ অনুমোদন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ নিষ্পত্তি, বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য পরিদর্শন, ভিসি, প্রো-ভিসি, ট্রেজারার নিয়োগের অনুমোদন এবং বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের অনুমোদনসহ বিভিন্ন কাজে ৫০০ থেকে ৩ কোটি টাকা পর্যন্ত লেনদেনের তথ্য পাওয়া গেছে গবেষণায়।’

আপনি চাইলে অফিসিয়াল এই লিংক থেকে টিআইবি’র প্রতিবেদনের সার সংক্ষেপ পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করেও পড়তে পারেন।

প্রথম আলোর পুরো প্রতিবেদনটি পড়তে পারেন এই লিংকে। এ বিষয়ে বিডিনিউজ২৪ ডটকমের রিপোর্ট পাবেন এই লিংকে

টিআইবি’র ঐ গবেষণা প্রতিবেদন ও তার ফলাফলের ব্যাপারে আপনার কী মতামত?

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,398 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.