নগদ একাউন্ট খোলার সহজ উপায়

ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন সেবা, নগদ – টিভিতে দেখানো বিজ্ঞাপনের কল্যাণে এই বিষয়টি সবার জানা থাকার কথা। নগদ হচ্ছে বাংলাদেশ সরকারের ডাক বিভাগের একটি ডিজিটাল আর্থিক সেবা, যার মাধ্যমে খুব সহজেই টাকা লেনদেন সম্ভব। ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে যাত্রা শুরু হয় এই সেবাটির। এটি অনেকটা বহুল জনপ্রিয় বিকাশ এর মতই। চলুন জেনে নিই, কীভাবে ঘরে বসেই নগদ একাউন্ট খুলতে পারেন।

নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম

নগদের উদ্যোক্তা বা এজেন্টের কাছে গিয়ে কাগজপত্র দিয়ে একাউন্ট খোলার পাশাপাশি আপনি ঘরে বসে নিজের একাউন্ট নিজেই খুলতে পারবেন। নিয়ম নিচে জেনে নিন।

নগদ অ্যাপ থেকে

নগদ একাউন্ট খোলা অনেক সহজ। আপনি ঘরে বসেই নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন। নগদ একাউন্ট খুলতে –

  • প্লে স্টোর কিংবা অ্যাপ স্টোর থেকে “Nagad App” ডাউনলোড করুন
  • অ্যাপ ডাউনলোডের পর ওপেন করে প্রদত্ত নির্দেশনা অনুসরণ করুন।
  • জাতীয় পরিচয়পত্রের উভয় পিঠের ছবি আপলোড করুন
  • একটি সেল্ফি তুলে একাউন্টে যুক্ত করুন
  • টার্মস এবং কন্ডিশনস পড়ুন
  • আপনার সিগনেচার প্রদান করুন
  • উপরোক্ত সকল তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করা হয়ে গেলে আপনি নগদ এর সেবা উপভোগ করতে পারবেন।

গ্রামীণফোন, রবি এবং এয়ারটেল সিম থেকে

গ্রামীণফোন, রবি এবং এয়ারটেল সিম যারা ব্যবহার করেন, তাদের জন্য নগদ একাউন্ট খোলা আরো সহজ।  জিপি, রবি এবং এয়ারটেল সিম ব্যবহারকারীগণ *167# ডায়াল করে নিজের একাউন্টের পিন কোড সেট করলেই একটিভ হয়ে যাবে নগদ একাউন্ট।

নগদ একাউন্ট দেখার কোড

যেকোনো সময় মোবাইল থেকে *১৬৭# ডায়াল করে নগদ একাউন্ট দেখতে পারেন। এছাড়া অ্যাপ থেকে নগদ একাউন্ট ব্যালেন্স দেখা ও অন্যান্য কাজ করার সুযোগ তো থাকছেই!

কেনো নগদ একাউন্ট খুলবেন?

নগদ একাউন্ট খোলার বহুবিধ সুবিধা রয়েছে। যেমন –

  • নিরাপত্তাঃ লেনদেন ব্যবস্থাগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সবসময় সর্বোচ্চ রাখা হয়। নগদ একটি সরকারি সেবা হওয়ায় অন্যান্য লেনদেন ব্যবস্থা থেকে এটি অধিকতর নিরাপদ বলা যায়।
  • অপেক্ষাকৃত কম চার্জঃ কম খরচে একই ধরনের সেবা, যেমন বিকাশ এ ক্যাশ আউট ফি থেকে নগদের ক্যাশ আউট ফি কম।
  • অফারঃ নতুন ব্যবহারকারীদের একাউন্ট খুলে লাখপতি হওয়ার মত অফার দিচ্ছে নগদ।

আপনার কি নগদ একাউন্ট আছে? কমেন্ট করে জানান আমাদেরকে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,534 other subscribers

Comments