ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

২.৩ বিলিয়নের অধিক ব্যবহারকারী নিয়ে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ভিডিও স্ট্রিমিং ও আপলোডিং প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে ইউটিউব। পরিসংখ্যান অনুসারে, ইউটিউবে ৩০ মিলিয়নের অধিক ব্যবহারকারী প্রতিদিন ৫ বিলিয়নের ও অধিক ভিডিও দেখে।

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে গিয়ে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম, ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সফটওয়্যার, ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার অ্যাপ – এসব সার্চ করতে করতে হাঁপিয়ে গিয়েছেন? আর খুজঁতে হবেনা।

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা কি বেআইনী বা ইলিগাল?

ইউটিউব এ প্রদত্ত তথ্য অনুসারে, “ইউটিউব এ থাকা যেকোনো কনটেন্ট অনুলিপি, পুনরুৎপাদন, বিতরণ, প্রেরণ, সম্প্রচার, প্রদর্শন, বিক্রয়, লাইসেন্স, বা শোষণ অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা উচিত নয়।”

এর মানে হলো ইউটিউব অফিসিয়াল অ্যাপ/সিস্টেম ব্যাতীত অন্য কোনো মাধ্যমে ইউটিউব ভিডিও দেখা গুগল পছন্দ করে না। যদিওবা ব্রাউজার কিংবা অন্য কোনো থার্ড-পার্টি অ্যাপ ব্যবহার করেও ইউটিউব ভিডিও দেখা সম্ভব।

ইউটিউব এর অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস অ্যাপ থেকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। ভিডিও চালানোর সময় ইউটিউব অ্যাপে ভিডিওর নিচে একটি ডাউনলোড বাটন দেখা যায়। সেটি ক্লিক করলে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়, তবে তা শুধুমাত্র ইউটিউব অ্যাপের মধ্যেই চলবে (ইন্টারনেট দরকার হবেনা)।

youtube app video download

এটি ব্যাতীত ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড ইউটিউবের টার্মস অফ সার্ভিস এর মধ্যে পড়েনা।

গুগল ও ইউটিউবের টার্মস অফ সার্ভিসের সাথে সাংঘর্ষিক হওয়ায় থার্ড পার্টি টুল দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার টিপস দেয়া সম্ভব হচ্ছেনা।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,404 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.