পরবর্তী প্রজন্মের এন্ড্রয়েড ব্রাউজার ইঞ্জিন বানাচ্ছে মজিলা ও স্যামসাং

By -

gs4ফায়ারফক্স ডেভলপার মজিলা ও স্মার্টফোন জায়ান্ট স্যামসাং এআরএম এবং এন্ড্রয়েড ডিভাইসের জন্য নতুন একটি ব্রাউজার ইঞ্জিন তৈরি করার ঘোষণা দিয়েছে। সার্ভো নামক এই ইঞ্জিন আগামী দিনের দ্রুততর ও মাল্টিকোর কম্পিউটিং পরিবেশের সুবিধা কাজে লাগিয়ে এর ব্যবহারাযোগ্যতা সম্পর্কে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে বলে আশা করছে নির্মাতারা।

এটি মজিলার রাস্ট প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজে ডেভলপ করা হবে যেখানে সাম্প্রতিক কয়েক মাস ধরেই স্যামসাং সহযোগিতা করে যাচ্ছে। রাস্ট এখনও পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে এবং একে এন্ড্রয়েড ডেভলপার কমিউনিটির নিকট গতকাল উপলভ্য করা হয়েছে। অবশ্য কবে নাগাদ সার্ভো’র দেখা মিলবে সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

গুগল ক্রোমকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে সরাসরি একটি মোবাইল ব্রাউজার সফটওয়্যার ডিজাইন না করে ব্রাউজার ইঞ্জিনের মাধ্যমে ওয়েবকিটকে টার্গেট করল মজিলা-স্যামসাং। যদিও এখানেও চূড়ান্তভাবে প্রতিযোগিতা হবে ক্রোমের সাথেই।

ওয়েব ব্রাউজার ইঞ্জিন (অথবা রেন্ডারিং ইঞ্জিন) হচ্ছে এক ধরণের সফটওয়্যার কম্পোনেন্ট, যা এইচটিএমএল, এক্সএমএল, ইমেজ ফাইল প্রভৃতি মার্কডআপ কনটেন্ট এবং ফরম্যাটিং তথ্য নিয়ে সেগুলোর সমন্বয়ে ডিসপ্লেতে আকাঙ্ক্ষিত বিষয়বস্তু প্রদর্শন করে। এগুলো ওয়েব ব্রাউজার, ইবুক-রিডার, ইমেইল ক্ল্যায়েন্ট ইত্যাদি এপ্লিকেশনের মধ্যে এমবেডেড থাকে।

মজিলা ফায়ারফক্সে “গিকো”, মাইক্রোসফট ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারে “ট্রাইডেন্ট”, অপেরায় “প্রেস্তো” এবং গুগল ক্রোম ও অ্যাপল সাফারি ব্রাউজারে “ওয়েবকিট” রেন্ডারিং ইঞ্জিন ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

রাস্ট প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজের সাথে যুক্ত হওয়ার জন্য ডেভলপারদের উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছে মজিলা। সংস্থাটি স্যামসাংয়ের সাথে মোবাইল প্ল্যাটফর্মে আরও সুযোগ গ্রহণের প্রত্যাশা করছে।

Comments

Leave a Reply