অ্যাপলকে ৫ বছরের “ব্যাকডেটেড” বললেন ব্ল্যাকবেরি সিইও

heinsএকসময়কার জনপ্রিয় স্মার্টফোন এবং কর্পোরেট টেলিকম সলিউশন প্রোভাইডার ব্ল্যাকবেরি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা থরসেন হিন্স বর্তমান সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপল ইনকর্পোরেশনকে ৫ বছরের পুরাতন ধ্যানধারণার বাহক হিসেবে উল্লেখ করেছেন। অস্ট্রেলিয়ায় ব্ল্যাকবেরি জেড১০ হ্যান্ডসেট উদ্বোধন করার সময় তিনি বলেন, তাদের কোম্পানির মাত্র ১০০,০০০ ন্যাটিভ এপ থাকায় অনেকেই একে দুর্বলতা হিসেবে দেখে থাকেন। কিন্তু শীঘ্রই বিবি প্ল্যাটফর্মের জন্য আরও প্রায় ৭০,০০০ সফটওয়্যার আসবে বলে জানান মিঃ হিন্স।

নিজেদের অস্তিত্বের জন্য সংগ্রামরত ব্ল্যাকবেরি নতুন বিবি ১০ ওএস নির্ভর স্মার্টফোনের মাধ্যমে হারানো বাজার ফিরে পেতে চাইছে।

থরসেন হিন্স ব্ল্যাকবেরি ডিভাইসকে বেশি ভোক্তাবান্ধব বলে দাবী করেন। তিনি এন্ড্রয়েডের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। হিন্স বলেন, একটি ওপেন ওএসের মানে হচ্ছে এর সবকিছুই উন্মুক্ত, যা এর নিরাপত্তা কৌশল ফাঁস করে আক্রমণে সহায়ক করে তুলতে পারে। তাই সাধারণ ব্যবহারকারী থেকে শুরু করে কর্পোরেট পর্যায়েও ব্ল্যাকবেরিকেই প্রথম পছন্দের তালিকায় রাখার পরামর্শ দেন তিনি।

ব্ল্যাকবেরি সিইও ২০০৭ সালে বাজারে আসা অ্যাপল আইফোনের প্রথম মডেলটির প্রশংসা করেন। সেখান থেকে যে ইউজার ইন্টারফেস, আইকন প্রভৃতির সূচনা হয় তা অসাধারণ বলে মেনে নিলেও আইফোনে নতুন কোন ডিজাইন বা ফিচার না থাকার অভিযোগ তুলে অ্যাপল এখনও সেই পাঁচ বছর আগেকার পুরাতন ধ্যানধারণা নিয়ে পরে আছে বলেই উল্লেখ করেন হিন্স। এছাড়া মাল্টিটাস্কিংয়ের ক্ষেত্রে ব্ল্যাকবেরি ডিভাইস আইফোনের চেয়ে এগিয়ে আছে বলেও দাবী করেন তিনি।

গুগল এন্ড্রয়েড এবং অ্যাপল আইওএস উভয় অপারেটিং সিস্টেমের প্রত্যেকটির জন্যই প্রায় ৮০০,০০০ এর উপরে এপ রয়েছে যা ভোক্তাবাজারে বেশ প্রভাব বিস্তার করে থাকে। এপ্লিকেশন সংকটের কারণে অনেকেই চাইলেও নির্দিষ্ট একটি প্ল্যাটফর্মে স্থানান্তরিত হতে পারেন না। আর এন্ড্রয়েড ও আইওএস এদিক থেকে বেশ ভালই সুবিধা ভোগ করছে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 3,164 other subscribers

Comments