৬৪ জেলায় পৌঁছে গেছে গ্রামীণফোনের থ্রিজি

gp 3g in 64 distsবাংলাদেশের বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন আনুষ্ঠানিকভাবে থ্রিজি চালুর ৬ মাসের মধ্যে দেশের ৭টি বিভাগীয় শহর ও ৬৪টি জেলা শহরে তৃতীয় প্রজন্মের মোবাইল সেবা (থ্রিজি) পৌঁছে দিয়েছে। ঢাকার ওয়েস্টিন হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জিপি সিইও বিবেক সুদ এই তথ্য জানান।

তিনি বলেন “মাত্র ৬ মাসে ৬৪টি জেলায় থ্রিজি সেবা পৌঁছানো টেলিনর গ্রুপের ইতিহাসে সবচেয়ে দ্রুতগতির থিজি রোলআউট এবং এটা আমাদের ‘সবার জন্য ইন্টারনেট’ লক্ষ্য অর্জনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ।”

গ্রামীণফোনের চিফ টেকনোলজি অফিসার তানভীর মোহাম্মদ বলেন, “আমাদের গ্রাহকদের মধ্যে প্রায় শতকরা ৪০ ভাগ এখন থ্রিজি নেটওয়ার্কের আওতায় আছেন এবং বিদ্যমান থ্রিজি ডিভাইসের শতকরা ৮৫ ভাগ থ্রিজি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতে পারে।”

গত ৮ অক্টোবর বাণিজ্যিকভাবে থ্রিজি চালু করে গ্রামীণফোন। থ্রিজি লাইসেন্স শর্তে বলা হয়েছিল ৯ মাসের মধ্যে বিভাগীয় শহরগুলোতে এই সেবা চালু করতে হবে।

বিবেক সুদ আরও বলেন, “বর্তমানে গ্রামীণফোনের প্রায় ৪ লাখ থ্রিজি গ্রাহক রয়েছে, আর প্রতিদিন ১০ হাজার গ্রাহক বিভিন্ন ধরনের থ্রিজি প্যাকেজ নিচ্ছে এবং এদের মধ্যে ২০ থেকে ২৫ শতাংশ গ্রাহক প্রথমবারের মতো থ্রিজি প্যাকেজ নিচ্ছে।”

ইমেজ ক্রেডিটঃ বিডিনিউজ২৪ ডটকম

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,889 other subscribers

Comments