আইফোনের মত ডাইনামিক আইল্যান্ড এন্ড্রয়েডে চালু করার উপায়

অ্যাপল তাদের আইফোন ১৪ প্রো মডেলে ডায়নামিক আইল্যান্ড নামের ফিচার আনার পর থেকে অনেক অ্যান্ড্রয়েড ডেভলপারই এই ফিচার নিজেদের মত তৈরি করছেন। ইতিমধ্যে প্লে স্টোরে একাধিক অ্যাপ পেয়ে যাবেন যা অ্যান্ড্রয়েড ফোনে এই মজার ও কাজের ফিচার নিয়ে এসেছে।

অ্যাপগুলোর মধ্যে একটি আমাদের কাছে বেশ অসাধারণ মনে হয়েছে। এই পোস্টে ডায়নামিক আইল্যান্ড ফিচার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে কিভাবে পেতে পারেন সে সম্পর্কে জানবেন।

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ডায়নামিক আইল্যান্ড

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ডাইনামিক আইল্যান্ড ব্যবহারের অন্যতম সেরা অ্যাপ হলো Dynamic Island : dynamicBar নামের একটি ফ্রি অ্যাপ। ইতিমধ্যে ৫০হাজারের অধিকবার ডাউনলোড হয়েছে অ্যাপটি।

প্লে স্টোরে থাকা অন্যান্য ডায়নামিক আইল্যান্ড অ্যাপের চেয়ে এটি অনেকটাই উত্তম। এটি মূলত আপনার ফোনের ডিসপ্লেতে থাকা পাঞ্চ-হোল ডিসপ্লেকে কাজে লাগিয়ে ডাইনামিক আইল্যান্ড ফিচার এমুলেট করবে। 

Dynamic Island : dynamicBar অ্যাপটি প্লে স্টোর থেকে বিনামূল্যে ডাউনলোড করা যাবে, অ্যাপটি ডাউনলোড করতে এর নির্দিষ্ট লিংক ভিজিট করতে পারেন। এছাড়াও প্লে স্টোরে সার্চ করেও অ্যাপটি ইন্সটল করতে পারবেন।

অ্যাপটি ওপেন করার পর একটিভ করতেঃ

  • প্রথমে অনগোয়িং কল ইনফো দেখাতে ব্যবহৃত পারমিশন প্রদান করুন
  • এরপর নোটিফিকেশন প্রদর্শন করতে নোটিফিকেশন পারমিশন প্রদান করুন
  • ডায়নামিক বার ঠিকমত দেখাতে একসেসিবিলিটি পারমিশন প্রদান করুন 

এরপর অ্যাপ সেটিংস ঠিক হওয়ার পরে ডায়নামিক আইল্যান্ড শো করবে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে। খুব সহজে এভাবে ডায়নামিক আইল্যান্ড ফিচার উপভোগ করা যাবে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে।

How to add dynamic island in android

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

ডাউনলোড করার পর অ্যাপটি ওপেন করুন ও প্রয়োজনীয় পারমিশন প্রদান করুন। অ্যাপটি কোনো ধরনের সেনসিটিভ ইনফরমেশন কালেক্ট করেনা বলে দাবি করে। এছাড়া একসেসিবিলিটি ও নোটিফিকেশন পারমিশন প্রদান করতে হবে অ্যাপটিতে যাতে এটি কাজ করতে পারে। ঠিকভাবে সকল পারমিশন প্রদানের পর স্ক্রিনের টপে ডাইনামিক আইল্যান্ড দেখতে পাবেন।

এরপর অ্যাপের Settings সেকশনে গিয়ে কোন অ্যাপ ডায়নামিক আইল্যান্ডে নোটিফিকেশন ও একশন প্রদর্শন করতে পারবে তা সিলেক্ট করা যাবে। এছাড়া height, width, position, বা edge এর মত সেটিংস মডিফাই করে ক্যাপসুল এর লুক পরিবর্তন করা যাবে।

এছাড়া এই বার এর কালার নিজ থেকে সিলেক্ট হওয়ার অপশন রয়েছে। অর্থাৎ সেটিংস থেকে অ্যাপটি কিভাবে কিভাবে কাজ করবে তার সব অপশন দেওয়া রয়েছে যা নিজের ইচ্ছামত মডিফাই করা যাবে।

ফোনের ফ্রন্ট ক্যামেরা কাটআউটকে কাজে লাগানোর অসাধারণ একটি পন্থা এই ডায়নামিক আইল্যান্ড ফিচারটি। এই টুল ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে এই অসাধারণ ফিচারটি নিয়ে আসা সম্ভব। তবে বলে রাখা ভালো অ্যাপটি মাঝেমধ্যে এড প্রদর্শন করে। চাইলে ১ডলার দামের বিনিময়ে অ্যাপটির প্রো ভার্সন কিনে এড ফ্রি অভিজ্ঞতা উপভোগ করতে পারেন।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,558 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *