মোবাইলে ভিডিও এডিট করার সেরা অ্যাপ ডাউনলোড করুন

যেকোনো ডিভাইসের জন্যই ভিডিও এডিটিং একটি ভারী কাজ। কম্পিউটারেই যেখানে ভিডিও এডিট করতে গিয়ে র‍্যাম আর স্পেসিফিকেশন এর জটিলতায় ভুগতে হয়, সেখানে স্মার্টফোনে ফাইনাল কাট প্রো কিংবা এডোবি প্রিমিয়ার প্রো এর মত কার্যকরী সফটওয়্যার এর আশা করাটা উচ্চাশাই হয়ে যায়। কিন্তু আপনার যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকে এবং আপনি ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে আপনার কখনো কখনো মোবাইলেও ভিডিও এডিট করতে হতে পারে।

আপনি জেনে খুশি হবেন যে তবে স্মার্টফোনের জন্য এমন কিছু ভিডিও এডিটিং অ্যাপ রয়েছে, যেগুলোতে সত্যিকার অর্থেই অনেক ভালো মানের ভিডিও এডিটিং সক্ষম। এসব অ্যাপ আপনি মানসম্পন্ন ভিডিও আউটপুট পেতে ব্যবহার করতে পারবেন। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো, এই অ্যাপগুলোর ফ্রি ভার্সন রয়েছে এবং আপনি চাইলে অনেকগুলোর ক্ষেত্রে প্রিমিয়াম ভার্সনও নিতে পারবেন। আর দেরি নয়, চলুন কথা বলি স্মার্টফোনের জন্য সেরা ১০টি ভিডিও এডিটিং অ্যাপ নিয়ে।

কাইনমাস্টার

ফোনে ভিডিও এডিটিং নিয়ে যারা একটু হলেও সময় ব্যয় করেছেন, তাদের কাছে কাইনমাস্টার নামটা অজানা নয়। সাধারণ ভিডিও এডিটিং, যেমন ট্রিমিং, ক্রপিং থেকে শুরু করে ভিডিও লেয়ারিং এর মত এডভান্সড সব ফিচারে ঠাসা অ্যাপটি। কাইনমাস্টারে রয়েছে অডিও ফিল্টার, ভিডিও ট্রান্সজিশান, ভিডিও ইফেক্ট এবং আরো অনেককিছু। যে কারণে অ্যাপটি বেশি খ্যাতি অর্জন করেছে, এর মধ্যে প্রধান হলো ক্রোমা-কি ফিচারটি।

এই ফিচার ব্যবহার করে ভিডিওতে থাকা গ্রিন স্ক্রিন রিমুভ করে পছন্দসই ভিডিও বা ছবি এড করা যায়। যদিওবা এটি কম্পিউটার এর ভিডিও এডিটরগুলোর মত অত শক্তিশালী নয়, তবে ফোনের জন্য কাইনমাস্টার অ্যাপটি ভিডিও এডিটর হিসেবে ব্যবহারকারীদের পছন্দের শীর্ষেই অবস্থান করছে।

তবে আপনার ভিডিওতে যথেষ্ট পরিমাণ ব্যাকগ্রাউন্ড লাইট থাকলে কাইনমাস্টারের ক্রোমা কি ভালো আউটপুট দিতে সক্ষম। মোবাইল অ্যাপ হওয়ায় আপনি এর সকল অপশন পাচ্ছেন নখদর্পনে যা এর আরেকটি ভাল দিক বলতেই হবে।

কাইনমাস্টার অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

ফিল্মোরা গো

ওয়ান্ডারশেয়ার এর অ্যাপ ফিল্মোরা গো, একটি ফ্রি ভিডিও এডিটিং অ্যাপ, যা বিনামূল্যে অনেক টুলস এবং ফিচার এর সুবিধা প্রদান করছে।

ফিল্মোরা গো অ্যাপটিতে থাকছে ব্যাসিক ভিডিও এডিটিং টুলস, যেমন ট্রিম, কাট, রেন্ডার ইত্যাদি। আরো থাকছে রিভার্স ভিডিও, ইন্সটাগ্রাম এ প্রচলিত স্কয়ার ভিডিও (১:১) এবং ইউটিউব এর জন্য ১৬:৯ রেশিওতে ভিডিও তৈরীর সু্যোগ।

এসব সুবিধার পাশাপাশি আরো থাকছে স্লো-মোশন, ট্রানজিশান, ভিডিও ফিল্টার, ওভারলে, এমনকি গান এড করার সু্যোগ। যদিওবা অ্যাপটিতে অধিকাংশ ফিচারই বিনামূল্যে উপভোগ করা যাবে, এছাড়াও বাড়তি অর্থ ব্যয়ের বিনিময়ে পাওয়া যাবে বাড়তি প্রিমিয়াম ফিচার।

ফিল্মোরা গো অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

পাওয়ারডিরেক্টর

পাওয়ারডিরেক্টর একটি অল-ইন-ওয়ান ভিডিও এডিটিং অ্যাপ। অসংখ্য ভিডিও এডিটিং টুলস, ফিচার এবং ইফেক্টস এ ভর্তি পাওয়ারডিরেক্টর অ্যাপটি। অ্যাপটিতে রয়েছে কোলাজ মেকার, স্লো মোশন এর মত অসাধারণ সব ফিচার। ক্লাসিক টাইমলাইন এডিটর ইন্টারফেস থাকায় অ্যাপটি নিয়ে কাজ করা অত্যন্ত সহজ।

মূলত আপনি যদি বড় ডিসপ্লে এর ডিভাইস, যেমন ফোল্ডেবল, ট্যাবলেট কিংবা ক্রোমবুক ব্যবহার করে থাকেন, তবে পাওয়ারডিরেক্টর অ্যাপটি আপনাকে হতাশ করবেনা।

পাওয়ারডিরেক্টর অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

মোবাইলে ভিডিও এডিট করার সেরা অ্যাপ ডাউনলোড করুন

ইনশট

আপনি যদি ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম কিংবা টিকটক উপযোগী  ভিডিও এডিটিং এর অ্যাপ এর খোজ করে থাকেন, তবে ইনশট অ্যাপটি আপনার জন্য স্বস্তির নিশ্বাস বয়ে আনবে।

ইনশট অ্যাপ ব্যবহার করে ভিডিওতে গান, ভয়েসওভার, ইফেক্ট এড করা যায়। এছাড়াও স্টিকার এবং টেক্সট যুক্ত করার সুযোগও থাকছে।

এতে স্লো মোশন, ফাস্ট মোশন এবং হরেকরকম ফিচারও থাকছে। এতসব সুবিধার পাশাপাশি ব্যাসিক এডিটিং ফিচার, যেমন কাট, ক্রপ, ট্রিম এসব তো থাকছেই। ভিডিওর পাশাপাশি ছবি এডিটিং এর সুবিধাও থাকছে অ্যাপটিতে।

ইনশট অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

এডোবি প্রিমিয়ার রাশ

এই তালিকায় থাকা অন্যান্য অ্যাপগুলো থেকে অপেক্ষাকৃত নতুন হলেও এডোবি প্রিমিয়ার রাশ অ্যাপটির কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ করার কোনো কারণ নেই। এডোবি এর কম্পিউটার সফটওয়্যার, প্রিমিয়ার প্রো এর সুনাম ভালোভাবেই অক্ষুন্ন রেখেছে এই অ্যাপটি। ব্যাসিক সব ভিডিও এডিটিং ফিচার এর পাশাপাশি কিছু বাড়তি সুবিধাও দিচ্ছে অ্যাডোবি প্রিমিয়ার রাশ। যদিওবা মাল্টি ট্র‍্যাক সিংকিং, ক্লাউড সিংকিং এর মত অত্যাধুনিক সুবিধাগুলো উপভোগ করতে ব্যবহারকারীদের একটি নির্দিষ্ট অংকের অর্থ খরচ করতে হবে।

এডোবি প্রিমিয়ার রাশ অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

ভিভাভিডিও

ভিডিও এডিটিং অ্যাপগুলোর মধ্যে ভিভাভিডিও একটি বহুল জনপ্রিয় অ্যাপ। মূলত সোস্যাল মিডিয়ার জন্য শর্ট ভিডিও এডিটিং এর ক্ষেত্রে অ্যাপটির জুড়ি নেই।

ভিভাভিডিও অ্যাপটিতে স্টোরিবোর্ড ধরনের ভিডিও এডিটিং ইন্টারফেস রয়েছে। অর্থাৎ, প্রয়োজন অনুসারে আপনি ক্লিপ এডিট, ট্রিম, কাট করতে পারবেন, মিউজিক এড করতে পারবেন। অ্যাপটিতে আরো থাকছে ২০০ এর অধিক ভিডিও ফিল্টার, স্লো মোশন এবং ফাস্ট মোশন সাপোর্ট।

ভিভাভিডিও অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

ভিডিওশো

ভিডিওশো কোনো প্রফেশনাল মানের ভিডিও এডিটিং এর অ্যাপ নয়, এটি মূলত ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম এর মত সোস্যাল মিডিয়াগুলোর উপযোগী ভিডিও তৈরীর অ্যাপ।

অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনি ভিডিও ট্রিম করতে পারবেন, ক্লিপগুলো সাজাতে পারবেন, গান এড করতে পারবেন। এছাড়াও ভিডিওতে ইমোজি এড করা, ফিল্টার এড করা, টেক্সট এড করার মত কাজও করা যবে অ্যাপটি ব্যবহার করে।

ভিডিওশো অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

👉 বোনাস ভিডিওঃ অনলাইনে টাকা আয় করার সেরা ১০ উপায় জানুন

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

মুভি মেকার ফিল্মমেকার

মুভিমেকার ফিল্মমেকার একটি ফ্রি এবং বিজ্ঞাপনমুক্ত ভিডিও এডিটিং অ্যাপ। এতে রয়েছে কাট, ক্রপ, ট্রিম, রিঅর্ডার এর মত ব্যাসিক ফিচার এর পাশাপাশি আরো সব এডভান্স ফিচার।

মুভি মেকার ফিল্মমেকার অ্যাপটিতে থাকছে অনেকগুলো ভিডিও ইফেক্ট। এছাড়াও আপনি নিজেই তৈরি করতে পারবেন কাস্টম ভিডিও ফিল্টার। ক্রোমা কি ফিচারও রয়েছে মুভি মেকার ফিল্মমেকার অ্যাপটিতে। আর গান যুক্ত করার মত ব্যাসিক সব ফিচার তো থাকছেই।

মুভি মেকার ফিল্মমেকার অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড

ইউকাট

আপনি যদি ব্যাসিক সব ফিচারযুক্ত আর ওয়াটারমার্কবিহীন একটি ভিডিও এডিটর খুজে থাকেন, তবে ইউকাট আপনার জন্য আদর্শ একটি অ্যাপ। ভিডিও এডিটিংয়ের জন্য মোটামুটি যত ধরনের ফিচার দরকার, সবই থাকছে অ্যাপটিতে। ভিডিও মার্জিং, ভিডিও ট্রিমিং, ভিডিও কাটিং, ভিডিও স্লাইডার – এর মত ব্যাসিক সব ফিচার এর পাশাপাশি অ্যাপটিতে আরো রয়েছে ভিডিও স্পিড কন্ট্রোল করার, ফটো স্লাইডশো তৈরী করার, এমনকি ভিডিও কালার এডজাস্টিং এর সুযোগ। এছাড়াও ভিডিও এর এসপেক্ট রেশিও চেঞ্জিং, ব্যাকগ্রাউন্ড চেঞ্জিং এর মত ফিচারও থাকছে এ্যাপটিতে। ইউকাট ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড

কুইক

কুইক ভিডিও এডিটিং অ্যাপটি মূলত ব্যাসিক সব ভিডিও এডিটিং ফিচার অফার করছে। আপনি অ্যাপটিতে সর্বোচ্চ ৫০টি ছবি বা ভিডিও ক্লিপ এড করলে অ্যাপটি সব ছবি আর ভিডিও এনালাইজ করে অ্যাপটি আপনাকে একটি শর্ট ভিডিও বানিয়ে দিবে। অ্যাপটি এভাবেই কাজ করে।

এছাড়াও থাকছে ২০ এর অধিক ভিডিও স্টাইল, যা থেকে আপনি আপনার পছন্দেরটা বেছে নিতে পারবেন। ভিডিও এক্সপোর্ট এর আগে থাকছে রি-অর্ডারিং এবং কাস্টমাইজেশন এর সুবিধা। যদিওবা অ্যাপটি এই তালিকার অন্যান্য অ্যাপসমূহ থেকে একটু আলাদা, তবে এটি এর কাজ ভালভাবেই করতে পারে।

কুইক ভিডিও এডিটিং অ্যাপ ডাউনলোড করুন – এন্ড্রয়েড / আইওএস

আপনি কি ফটো এডিটিং অ্যাপ খুজছেন? তাহলে সেরা ফটো এডিটিং অ্যাপ নিয়ে আমাদের এই পোস্টটি ঘুরে আসতে পারেন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,398 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.