ফ্রিল্যান্সারের ডায়েরিঃ রবি-এয়ারটেল একীভূত হওয়ার প্রভাব কী?

robi airtel 1 company

রবি ও এয়ারটেল একীভূতকরণ নিয়ে বাকী অপারেটরগুলো “ইতিবাচক” মনোভাব দিয়েছে। ব্যবসা-বাণিজ্যে একাধিক কোম্পানির একীভূত হওয়ার ঘটনা খুবই “কমন” একটা ব্যাপার। অপরদিকে জিপির একারই এখন ৫ কোটির বেশি গ্রাহক। রবি-এয়ারটেল মিলে গেলে তখন “পরিবর্ধিত রবি”র গ্রাহক সংখ্যা হবে ৪ কোটির মত। অর্থাৎ তখনও জিপিই সবার উপরে থাকবে।

রবি কি ৪ কোটি গ্রাহক নিয়ে “মনোপলি” করতে পারবে? জিপি এখন কী করছে? এরপর কী করবে?

কিছুদিন আগে খবরে দেখলাম দুটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এই মার্জার (একীভূত করণ) এর ইমপ্যাক্ট বিশ্লেষণ করার জন্য গবেষণা করার প্রস্তাব এসেছে যাতে গবেষণা ব্যয় ৬ থেকে ১১ লাখ টাকা (প্রস্তাবিত)।

মনেকরি, গবেষণায় উঠে এলো যে রবির অনেক গ্রাহক হয়ে গেলে তারা মনোপলি করতে পারে। তাহলে এয়ারটেল যদি বাংলাদেশে আর ব্যবসা করতে না চায় তখন তাদের গ্রাহকদের কী হবে? টেলিটক নেবে? বাংলালিংক নিলে তো আবার যেই লাউ সেই কদু- তখন আরও একদফা গবেষণা করা লাগবে! সেই হিসেবটা হয়ত আরও জটিল হয়ে উঠবে।

টেলিটকের জন্য খারাপ লাগে। এক সময় লোকজন লাইনে দাঁড়িয়ে টেলিটক সিম কিনেছে। সেই জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে পারেনি টেলিটক। শুধু নেটওয়ার্কটা থাকলেই অনেকটা সম্ভব হত। ইনফ্রাস্ট্রাকচার ভাগাভাগি করাও যেত হয়ত। কিন্তু আমাদের দুর্ভাগ্য, আমরা এখনও টেলিটকের মত সম্ভাবনাময় অপারেটরকে তুলতে পারিনি, বরং রবি-এয়ারটেলের মার্জারের ইমপ্যাক্ট নিয়ে ভাবছি!

আপনি কী মনে করেন? ইমপ্যাক্ট কী হতে পারে?

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,584 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *