সিম্ফনি মোবাইলের দাম ২০২৪

বাংলাদেশের স্মার্টফোন সেক্টরে সিম্ফনি একটি চিরচেনা নাম। দেশের অনেক মানুষের স্মার্টফোন ব্যবহারের যাত্রা শুরু এই সিম্ফনি মোবাইলের হাত ধরেই। সময়ের সাথে সাথে ব্র‍্যান্ড হিসেবে জনপ্রিয়তা খুব বেশি বৃদ্ধি করতে না পারলেও এখনো এন্ট্রি লেভেল বাজেটে ভালোই পারফর্ম করছে সিম্ফনির মোবাইলগুলো।

দেশের বাজারে অফিসিয়ালি এন্ট্রি লেভেল বাজেটের সেরা ফোনগুলোর একটা বড় অংশ এখনো সিম্ফনি। স্পেসিফিকেশনের দিক দিয়ে সিম্ফনির ফোনগুলোকে আহামরি মনে না হলেও সফটওয়্যার হিসেবে স্টক অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার করার কারণে বেশ ব্যবহারযোগ্য সিম্ফনির ফোনগুলো। চলুন জেনে নেওয়া যাক দেশের বাজারে অফিসিয়ালি পাওয়া যাচ্ছে এমন সব সিম্ফনি মোবাইলের দাম, স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে বিস্তারিত।

সিম্ফনি জেড৬০ প্লাস – Symphony Z60 Plus

এ বছর একদম নতুন বের হওয়া ফোনটিকে সিম্ফনি মূলত পারফর্মেন্সের দিকে দৃষ্টি রেখে বাজারে এনেছে। তবে জেড৬০ প্লাস ফোনটির আউটলুক ও অন্যান্য ফিচারও বেশ ভালো। তাই সহজেই ক্রেতাদের মন জয় করতে পেরেছে ফোনটি বাজারে আসবার সঙ্গে সঙ্গেই।

ফোনটির আউটলুক দেখলে ফোনটিকে একদম প্রিমিয়াম কোয়ালিটির মনে হবে। সামনে পাবেন ৬.৬ ইঞ্চির আইপিএস পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। ডিসপ্লেটি ৯০ হার্টজের হাই রিফ্রেশ রেটও সাপোর্ট করে। প্রসেসর হিসেবে জেড৬০ প্লাস ফোনে দেয়া হয়েছে ইউনিসকের টি৬১৬। কম বাজেটের ভালো একটি প্রসেসর। তবে দৈনন্দিন কাজ ও টুকিটাকি গেমিং করার ক্ষেত্রে টি৬১৬ ভালো কাজ করে। ৬ জিবি র‍্যামও পাওয়া যাবে ফোনে।

ফোনের পিছনে থাকছে ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ। ৫০ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরা দিয়ে বেশ ভালো মানের ছবি তোলা যায়। সামনেও রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ফোনের ব্যাটারি ৫০০০ মিলিএম্পের। ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিংও রয়েছে সাথে। ফলে দ্রুত চার্জ কিংবা লম্বা ব্যাটারি ব্যাকাপ পাওয়া যাবে এই ফোন থেকে। এছাড়া এর স্টেরিও স্পিকারটিও বেশ ভালো। সব মিলিয়ে স্বল্প দামে ভালো একটি ফোন এটি।

 Symphony Z60 Plus

সিম্ফনি জেড৬০ প্লাস এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৬১৬
  • র‍্যামঃ ৬ জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ডুয়াল ক্যামেরা ( ৫০ + ২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৬০ প্লাস এর দামঃ

  • ৬ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজঃ ১১,৯৯৯ টাকা

সিম্ফনি ইনোভা ১০ – Symphony Innova 10

Symphony Innova 10

বাজারে নতুন আসা এই ফোনটি সিম্ফনি গেমিং ফোন হিসেবে বাজারে এনেছে। পারফর্মেন্সের দিক থেকে এই ফোনটি বর্তমানে বাজারে থাকা সিম্ফনির অন্যান্য ফোন থেকে এগিয়ে থাকবে। এছাড়া ফোনটির ডিজাইন ও আউটলুকও বেশ সুন্দর।

ফোনের সামনে পেয়ে যাবেন ৬.৬ ইঞ্চির একটি পাঞ্চ হোল আইপিএস ডিসপ্লে। তবে হাই রিফ্রেশ রেটের কোন সুবিধা এই ফোনে থাকছে না। প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি৩৫। এটি মিডিয়াটেকের একটি বাজেট চিপ। অর্থাৎ টুকটাক গেমিং করার ক্ষেত্রে এই চিপ বেশ ভালো কাজ করে। দৈনন্দিন কাজগুলো সাবলীলভাবে করা যাবে ল্যাগ ছাড়াই। এছাড়া ৪ জিব র‍্যামও থাকছে ফোনের সাথে।

ফোনের পিছনে ৫২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা রয়েছে। মোটামুটি মানের ছবি তোলা যায় ক্যামেরা থেকে। পাবেন ৮ মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি ক্যামেরাও। এছাড়া ফোনে রয়েছে ৫০৫০ মিলিএম্পের বিশাল ব্যাটারি। ফলে সহজেই একদিন পর্যন্ত ব্যাকাপ পাওয়া যায় এই ফোন হতে। এছাড়া ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধাও রেখেছে সিম্ফনি। এছাড়াও এসডিকার্ড সুবিধা, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ইত্যাদি বিভিন্ন বাড়তি ফিচারও থাকছে এই ফোনে।

সিম্ফনি ইনোভা ১০ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫
  • র‍্যামঃ ৪ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪/১২৮ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ডুয়াল ক্যামেরা ( ৫২ + ২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০৫০ মিলিএম্প

সিম্ফনি ইনোভা ১০ প্লাস এর দামঃ

  • ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজঃ ১০,৯৯৯ টাকা
  • ৪ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজঃ ১১,৪৯৯ টাকা

সিম্ফনি জেড২২ – Symphony Z22

Symphony Z22

সিম্ফনির ফোনগুলো সবসময়ই কম বাজেটের মধ্যে সেরা সব ফিচার দিয়ে থাকে। এই ফোনটিও ব্যতিক্রম নয় তার। যদিও ফোনটি কিছুটা পুরনো হয়ে গিয়েছে, তবে এর ফিচার এখনও বেশ ভালো লাগতে পারে আপনার। 

৬.৫২ ইঞ্চির একটি ওয়াটারড্রপ নচ ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে এখানে। এটি একটি আইপিএস ডিসপ্লে এবং কোন হাই রিফ্রেশ রেটের সুবিধা নেই। ফোনের প্রসেসর হিসেবে আছে ইউনিসকের এসসি৯৮৬৩এ। এটি একদমই কম বাজেটের প্রসেসর এবং খুব বেশি শক্তিশালী নয়। তবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ গো এডিশন ব্যবহার করায় এই ফোনে সহজেই দৈনন্দিন কাজগুলো করা সম্ভব। ফোনে ৩ জিবি র‍্যাম থাকায় স্বাভাবিক কাজগুলো সাবলীলভাবেই করা যায়।

এছাড়া ফোনে পাওয়া যাবে ৩২ জিবি স্টোরেজ যা এসডিকার্ড ব্যবহারের মাধ্যমে আরও বাড়িয়ে নেয়া যাবে। পিছনে থাকছে ১৩ মেগাপিক্সেলের চলনসই ট্রিপল ক্যামেরা সিস্টেম। সামনে পাবেন ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

ফোনে ৫০০০ মিলিএম্পের বিশাল ব্যাটারি থাকায় সহজেই ২ দিন টানা ব্যাকাপ দিতে পারবে। তবে ফাস্ট চার্জের সুবিধা থাকছে না। এছাড়া নিরাপত্তার জন্য ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও রয়েছে ফোনে।

সিম্ফনি জেড২২ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬৫২ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক এসসি৯৮৬৩
  • র‍্যামঃ ৩ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড২২ এর দামঃ

  • ৩ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজঃ ৮,৯৯০ টাকা

সিম্ফনি জেড৬০ – Symphony Z60

Z60

২০২৪ সালে সিম্ফনির অন্যতম সেরা ফোন এটি। আধুনিক বিভিন্ন ফিচার নিয়ে কম বাজেটেই ফোনটি বাজারে এনেছে তারা। ফোনটিতে সবদিকেই ভারসাম্য রাখা হয়েছে। কম বাজেটেই ভালো পারফর্মেন্স দিতে আছে ইউনিসকের টি৬০৬ প্রসেসর। দৈনন্দিন কাজগুলো বেশ সাবলীলভাবে করা যাবে এই ফোনে। সামনের ৬.৬ ইঞ্চির এলসিডি ডিসপ্লেতে রয়েছে ৯০ হার্টজের হাই রিফ্রেশ রেট প্যানেল। ফলে ফোন ব্যবহারে আরও স্মুথ অভিজ্ঞতা পাওয়া যাবে। ক্যামেরার দিকেও দৃষ্টি দেয়া হয়েছে। ৫০ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপে দিনের আলোতে বেশ ভালো ছবি তোলা সম্ভব। বক্সি ডিজাইনের এই ফোনটি দেখতেও বেশ প্রিমিয়াম। আছে ৫০০০ মিলিএম্পের বিশাল ব্যাটারি এবং ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জের সুবিধা। টাইপ সি পোর্ট থাকায় এই ফোনটি আরও আধুনিক হয়ে উঠেছে। এছাড়া সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ফেস আনলকের মতো বাড়তি ফিচার পাওয়া যাবে।

সিম্ফনি জেড৬০ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৬০৬
  • র‍্যামঃ ৩ জিবি / ৪ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৬০ এর দামঃ

  • ৩ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজঃ ৯,৯৯৯ টাকা
  • ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজঃ ১০,৪৯৯ টাকা

সিম্ফনি জেড৪৫ – Symphony Z45

Z45

বাজেটে ভালো একটি অভিজ্ঞতা দিতে পারে এই ফোনটি। স্লিম ও ক্লিন ডিজাইনের এই ফোনটি বেশ সুন্দর দেখতে। সামনে ৬.৫৩ ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে। প্রসেসর হিসেবে ইউনিসক টি৬১০ ব্যবহার করা হয়েছে। ১২ ন্যানোমিটারের এই বাজেট প্রসেসরে স্বাভাবিক কাজগুলো করা যাবে সহজেই। ফোনের পিছনে ১৩ ও ২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। সামনের সেলফি ক্যামেরাটি ৮ মেগাপিক্সেলের। ব্যাটারির ক্ষেত্রে ফোনটি বেশ শক্তিশালী। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ফোনটিকে এক দিনেরও বেশি ব্যাটারি ব্যাকাপ দেবে। ফোনে নতুন প্রজন্মের টাইপ-সি চার্জ পোর্ট ব্যবহার করায় ভালো গতিতে চার্জও করা যাবে। এছাড়া হেডফোন জ্যাক, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ইত্যাদি বাড়তি কিছু জিনিসও থাকবে এই ফোনে।

সিম্ফনি জেড৪৫ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫৪ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৬১০
  • র‍্যামঃ ৪ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৪৫ এর দামঃ

  • ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজঃ ১১,৪৮৮ টাকা

সিম্ফনি জেড৪২ প্রো – Symphony Z42 Pro

Z42 Pro

সিম্ফনির কিছুটা প্রিমিয়াম সেগমেন্টের ফোন এটি। এই ফোনটিতেও কম বাজেটে অসাধারণ সব ফিচার রয়েছে। মিডিয়াটেকের হেলিও জি২৫ প্রসেসর ব্যবহার করায় ফোনটি যথেষ্ট শক্তিশালী। সেই সাথে সামনে রয়েছে ৬.৫২ ইঞ্চির বড় ডিসপ্লে। বক্সি ডিজাইনের ফোনটি দেখতে বেশ সুন্দর ও প্রিমিয়াম। পিছনে রয়েছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। মূল লেন্সটি ৫২ মেগাপিক্সেলের যা বেশ ভালো ছবি তুলতে সক্ষম। এছাড়া সামনে আছে ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি শ্যুটার। ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারি রয়েছে। ফাস্ট চার্জের সুবিধা না থাকলেও ব্যাটারি ব্যাকাপ নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। এছাড়া ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ফেস আনলকের মতো নিরাপত্তা ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

সিম্ফনি জেড৪২ প্রো এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫২ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি২৫
  • র‍্যামঃ ৪ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫২ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০ মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৪২ প্রো এর দামঃ

  • ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজঃ ১০,৭৯৯ টাকা

সিম্ফনি ভি১৩৯ – Symphony V139

V139

একেবারেই কম বাজেটে ভালো স্মার্টফোন এক্সপেরিয়েন্স দিতে সিম্ফনির এই ভি সিরিজ। ভি১৩৯ মডেলটিও খুবই কম বাজেটে ভালো কিছু ফিচার দেবে। ৫.৭ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই ছোট ফোনটি খুব সহজেই গ্রিপ করা যায়। ইউনিসকের বাজেট চিপ এসসি৯৮৩২ই ব্যবহার করা হয়েছে ফোনে। অ্যান্ড্রয়েডের গো ভার্সন থাকায় সহজেই সব কাজ দ্রুতগতিতে করা যাবে। এছাড়া আছে ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ সুবিধা। পিছনে ও সামনে একটি করে ক্যামেরা রয়েছে। পিছনের ক্যামেরাটি ৫ মেগাপিক্সেলের। এছাড়া ২৬০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ছোট এই ফোনটিকে সারাদিন ব্যাকাপ দিতে সক্ষম।

সিম্ফনি ভি১৩৯ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৫.৭ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ  ইউনিসক এসসি৯৮৩২ই
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ২ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ২৬০০ মিলিএম্প

সিম্ফনি ভি১৩৯ এর দামঃ

  • ২ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজঃ ৫,৫৯৯ টাকা

সিম্ফনি ভি১৩৮ – Symphony V138

V138

কম বাজেটের মধ্যে সিম্ফনির আরেকটি জনপ্রিয় ফোন এটি। এই ফোনটিও বেশ ছোট। ডিসপ্লে রয়েছে ৫.৪৫ ইঞ্চির। সেই সঙ্গে ব্যবহার করা হয়েছে ইউনিসকের এসসি৯৮৬৩এ চিপ। ফোনের সঙ্গে আছে ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ। এছাড়া অ্যান্ড্রয়েডের গো এডিশন ফোনটিকে স্মুথ করেছে। ফোনের অন্যতম ভালো দিক এটি ৪জি সাপোর্টেড এবং ভালো ব্যাটারি ব্যাকাপ দিতে পারে। ফোনে আছে ২৫৮০ মিলিএম্প ব্যাটারি যা ছোট এই ফোনের জন্য যথেষ্ট। এছাড়া ফোনের পিছনে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা পেয়ে যাবেন টুকিটাকি ছবি তোলার জন্য।এই কম দামেও দেয়া হয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, এফএম রেডিওয়ের মতো বিভিন্ন বাড়তি ফিচার।

সিম্ফনি ভি১৩৮ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৫.৪৫ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ  ইউনিসক এসসি৯৮৬৩এ
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ২ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ২৫৮০ মিলিএম্প

সিম্ফনি ভি১৩৮ এর দামঃ

  • ২ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজঃ ৬,৪৯০ টাকা

সিম্ফনি আই৯৬ – Symphony i96

i96

একদম কম বাজেটের মধ্যেই ফোনে প্রিমিয়াম একটি অভিজ্ঞতা পেতে চাইলে এই ফোনটি হতে পারে আপনার প্রথম পছন্দ। আধুনিক বক্সি ক্লিন ডিজাইনের সাথে বেশ কিছু ভালো ফিচার দেয়া হয়েছে এখানে। ৬.৬ ইঞ্চির বড় ডিসপ্লের ফোন এটি। ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও এ২২ প্রসেসর যা এই বাজেটে সেরা। সেই সাথে আছে ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ। ফোনটিতে লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশন থাকায় সব কাজে বেশ স্মুথ এটি। সামনে পিছনে দুদিকেই ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরাও রয়েছে। এছাড়া ফোনটির ব্যাটারি ৪১৫০ মিলিএম্প যা সহজেই সারাদিন ব্যাকাপ দিতে পারবে। ফোনটির সবথেকে বড় সুবিধা এখানে টাইপ-সি পোর্ট ব্যবহার করা হয়েছে। এই বাজেটের অন্য ফোনে এটি খুঁজে পাওয়া যাবে না। ফলে ডাটা ট্রান্সফার ও চার্জিং আরও সহজ হয়ে যাবে। সব মিলিয়েই ভালো একটি ফোন এটি।

সিম্ফনি আই৯৬ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২২
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪১৫০ মিলিএম্প

সিম্ফনি আই৯৬ এর দামঃ

  • ২ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজঃ ৭,৯৯৯ টাকা

সিম্ফনি আই৭১ – Symphony i71

i71

কম বাজেটের ফোনের মধ্যে এটি আরেকটি জনপ্রিয় ফোন সিম্ফনির। ছোট ফোনটির ডিসপ্লে ৫.৭ ইঞ্চির। ফোনের প্রসেসর হিসেবে আছে ইউনিসক এসসি৯৮৩২ই। ২ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি রম যুক্ত এই ফোন চলছে অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশনে। ফলে সব কাজ সাবলীলভাবেই করা যায়। ফোনের শক্তিশালী দিক এতে থাকা ৩০০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি। লম্বা সময় সহজেই ফোনটি ব্যবহার করা যাবে। পিছনে এবং সামনে দেয়া আছে ৫ মেগাপিক্সেলের একটি করে ক্যামেরা। ফোনটি ৪জি সাপোর্ট করে। ফোনের ডিজাইনটি কিছুটা আগের হলেও কম বাজেটে এই ফোন আপনাকে সন্তুষ্ট করবে সহজেই। এছাড়া এই বাজেটেও ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও ফেস আনলকের মতো ফিচার রেখেছে সিম্ফনি।

সিম্ফনি আই৭১ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৫.৭ ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক এসসি৯৮৩২ই
  • র‍্যামঃ ২ জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২ জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩০০০ মিলিএম্প

সিম্ফনি আই৭১ এর দামঃ

  • ২ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজঃ ৭,৪০০ টাকা

সিম্ফনি হেলিও ৩০ – Helio 30

সিম্ফনির হেলিও বাজেটে খুব ভালো ফোন বাজারে আনে। এই ফোনটিও তার ব্যতিক্রম নয়। অনেক ফিচারের এই ফোনটিতে আছে মিডিয়াটেকের হেলিও পি৭০। ১০৮ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরাসহ ৪ টি ক্যামেরা আছে এতে। ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজও আছে এই ফোনে। এছাড়া ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারি সারাদিন ব্যাকাপ দিতে পারবে। এছাড়া অন্যান্য বিভিন্ন ফিচার এই ফোনকে বাজেটে ভালো একটি ফোন করেছে।

হেলিও ৩০ এর স্পেসিফিকেশন

সিম্ফনি হেলিও ৩০ – Helio 30
  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬৭ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও পি৭০
  • র‍্যামঃ ৬জিবি
  • স্টোরেজঃ ১২৮জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১০৮ মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

হেলিও ৩০ এর দামঃ ১৪,৯৯৯ টাকা

সিম্ফনি জেড৫৫ – Symphony Z55

সিম্ফনির আরেকটি বাজেট ফোন। দাম অনুযায়ী বেশ ভালো ফিচার রয়েছে এই ফোনেও। মাত্র ১২ হাজার টাকা বাজেটেই এই ফোন অফার করছে ৫২ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। চিপসেট দেয়া হয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি২৫। তাই টুকিটাকি গেমও খেলতে পারবেন ফোনে। লেটেস্ট অ্যান্ডয়েড ১২ তে রান করছে এই ফোনটি। ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারিও আছে। বাজেটে বেশ ভালো একটি অপশন হতে পারে এই ফোন।

সিম্ফনি জেড৫৫ – Symphony Z55

সিম্ফনি জেড৫৫ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫২ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও জি২৫
  • র‍্যামঃ ৪জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪/১২৮জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫২ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৫৫ এর দামঃ 

  • ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজঃ ১১,৯৯৯ টাকা
  • ৪ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজঃ ১২,৫৯৯ টাকা

সিম্ফনি জেড৪৭ – Symphony Z47

সিম্ফনির জেড৫৫ এর মতোই একইরকম স্পেক এই ফোনেরও। শুধু চিপসেটে মিডিয়াটেকের বদলে ব্যবহার করা হয়েছে ইউনিসকের টি৬০৬ প্রসেসর। দৈনন্দিন কাজগুলো সহজেই সামলাতে পারবে ফোনটি। সাথে ৫২ মেগাপিক্সেলের ভালো ক্যামেরা ভালো ছবি তুলতেও সাহায্য করবে। ৫০৩০ মিলিএম্পের ব্যাটারি সারাদিন ব্যাকাপ দিতে পারবে। 

সিম্ফনি জেড৪৭ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৬০৬
  • র‍্যামঃ ৪জিবি
  • স্টোরেজঃ ৬৪জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫২ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০৩০মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৪৭ এর দামঃ ১১,৪৯৯ টাকা

সিম্ফনি জেড৪২ – Symphony Z42

সিম্ফনি জেড৪২ – Symphony Z42

সুন্দর দেখতে এই বাজেট ফোনটি খুব কম দামেই ভালো পারফর্মেন্স দিতে সক্ষম। হেলিও এ২২ আছে প্রসেসরে। ১৩ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ দেয়া হয়েছে কম দামের মধ্যেই। এছাড়া ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি আছে এই ফোনে। কম দামেই খুব ভালো কিছু ফিচার আছে এতে। 

সিম্ফনি জেড৪২ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫২ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২২
  • র‍্যামঃ ৩জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩  মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৪২ এর দামঃ ১০,৭৯৯ টাকা

সিম্ফনি এটম ৩ – Symphony ATOM 3

সিম্ফনি এটম ৩ – Symphony ATOM 3

১০ হাজার বা কাছাকাছি বাজেটের সিম্ফনির ফোনগুলো বেশিরভাগই একইধরনের স্পেকের হয়ে থাকে। এটিও তার ব্যাতিক্রম নয়। মিডিয়াটেক এ২২ প্রসেসরের সাথে আছে ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ। ডুয়াল ক্যামেরা আছে পিছনে যার মূল সেন্সর ৮ মেগাপিক্সেলের। ৫০৭০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারি দীর্ঘসময় ব্যাকাপ দিতে পারবে। ব্যাসিক দৈনন্দিন কাজ করতে সমস্যা হবে না এই ফোনে।

সিম্ফনি এটম ৩ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২২
  • র‍্যামঃ ৩জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০৭০মিলিএম্প

সিম্ফনি এটম ৩ এর দামঃ ৮,৭৯৯ টাকা

সিম্ফনি আই৮৫ – Symphony i85

সিম্ফনি আই৮৫ – Symphony i85

একদম কম বাজেটের সিম্ফনি ফোন এটি। নিচে এবং ডিসপ্লের পাশে বেশ বড় রকমের চিন ও বেজেল আছে। ১.৬ গিগাহার্টজের অক্টাকোর প্রসেসর দেয়া হয়েছে, পারফরমেন্স স্মুথ রাখতে এতে অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশন রেখেছে সিম্ফনি। ৪০৫০ মিলিএম্পের ব্যাটারি সারাদিন ব্যাকাপ দিতে পারবে। ফোনটি ব্যাসিক কাজের জন্য ভালো হলেও এতে ভারি কোন অ্যাপ চালানোর অভিজ্ঞতা ভালো হবে না। ডুয়াল ক্যামেরা আছে পিছনে, মেইন ক্যামেরা ৫ মেগাপিক্সেলের।

সিম্ফনি আই৮৫ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ১.৬ গিগাহার্টজ অক্টাকোর
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪০৫০মিলিএম্প

সিম্ফনি আই৮৫ এর দামঃ ৭,১৯৯ টাকা

সিম্ফনি আই৮০ – Symphony i80

সিম্ফনি আই৮০ – Symphony i80

৬.০৯ ইঞ্চি ডিসপ্লের ফোন এটি। ইউনিসকের টি৩১০ চিপসেট আছে ফোনে, দৈনন্দিন কাজ করা যাবে। ৩৫০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি আছে, এর ব্যাটারি পুরো একদিন ব্যাকাপ দিতে পারবে না। তাই দীর্ঘ ব্যাকাপ প্রয়োজন যাদের আরও বড় ব্যাটারির ফোন কেনার উপদেশ থাকবে। তবে অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশন থাকায় ব্যাটারি খরচ কম হবে। পিছনে ডুয়াল ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা আছে। এই দামেও সামনে ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দিয়েছে সিম্ফনি।

সিম্ফনি আই৮০ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.০৯ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৩১০
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ডুয়াল ( ৮+২ মেগাপিক্সেল )
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩৫০০মিলিএম্প

সিম্ফনি আই৮০ এর দামঃ ৭,৯৯০ টাকা

সিম্ফনি আই৭৩ – Symphony i73

সিম্ফনি আই৭৩ – Symphony i73

সিম্ফনির আই সিরিজের ফোনগুলো কম বাজেটে কম স্পেকের ফোন হয়ে থাকে। এই ফোনটিও ব্যাসিক একটি স্মার্টফোন। ফোনটির চারপাশে চিন, বেজেল আর নচ থাকায় ফোনটির ডিজাইন অনেক পুরোনো মনে হয়। ৬ ইঞ্চি ডিসপ্লের ফোনটি ১.৪ গিগাহার্টজের কোয়াডকোর প্রসেসরে চলছে। খুব ব্যাসিক কিছু কাজ করতে পারবেন এতে। ৮ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা আছে পিছনে। ৩১৫০ মিলিএম্পের ব্যাটারি ফোনটিকে মোটামুটি সারাদিন চলার মতো ব্যাকাপ দিতে পারবে।

সিম্ফনি আই৭৩ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ  ১.৪ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৮ মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩১৫০মিলিএম্প

সিম্ফনি আই৭৩ এর দামঃ ৫,৯৯৯ টাকা

সিম্ফনি ভি১৩৮ লাইট – Symphony V138 lite

সিম্ফনি ভি১৩৮ লাইট – Symphony V138 lite

৫.৪৫ ইঞ্চির ডিসপ্লের ছোট ফোনটিতেও আছে চিন, বেজেল আর নচ। পুরনো ডিজাইনের ফোনটি একদম কম দামের ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশনে চলছে। এটাও ব্যাসিক কাজ করার জন্য একটি স্মার্টফোন। ২৬৫০ মিলিএম্পের ছোট ব্যাটারি আছে এতে, তবে সারাদিন ব্যাকাপ দিতে পারবে ফোনটি। কারো একদম ব্যাসিক ফোনের দরকার হলে কম দামে এই ফোনটি দেখতে পারেন।

সিম্ফনি ভি১৩৮ লাইট এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৫.৪৫ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ  ১.৪ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ২ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ২৬৫০মিলিএম্প

সিম্ফনি ভি১৩৮ লাইট এর দামঃ ৬,৫৯০ টাকা

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

সিম্ফনি জি৫০ – Symphony G50

সিম্ফনি জি৫০ – Symphony G50

সিম্ফনির সবথেকে কম মুল্যের স্মার্টফোন এটি। এই দামে একদম ব্যাসিক ফিচার ছাড়া স্মার্টফোন আশা করা যায় না। এটিও তেমন একটি ফোন। অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশনে চলা ফোনটিতে ৩০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি আছে যা সারাদিন ব্যাকাপ দেবে। ১ জিবি র‍্যামের ফোনটি এই সময়ে এসে খুব একটা ভালো পারফর্মেন্স দেবে না। তাই বাজেট থাকলে আরেক্তু বাড়িয়ে কমপক্ষে ২ জিবি র‍্যামের ফোন নেয়ার পরামর্শ রইলো।

সিম্ফনি জি৫০ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৫.৭ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ  ১.৪ গিগাহার্টজ কোয়াডকোর
  • র‍্যামঃ ১জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৫ মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ২ মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩০০০মিলিএম্প

সিম্ফনি জি৫০ এর দামঃ ৫,৯৯০ টাকা

সিম্ফনি কি বাংলাদেশী মোবাইল ব্র‍্যান্ড?

হ্যাঁ, সিম্ফনি বাংলাদেশী মোবাইল ব্র‍্যান্ড। ২০০৮সালে এডিসন গ্রুপের শাখা, সিম্ফনি, স্মার্টফোন ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করে।

সিম্ফনি’র ফোনগুলো কি ভালো?

দাম বিবেচনায় সিম্ফনির ফোনগুলোর স্পেসিফিকেশন বেশ মানানসই। বাজারের অন্য কোম্পানিসমূহ থেকে একই বাজেট রেঞ্জে প্রতিযোগিতামূলক ফোন তৈরী করছে সিম্ফনি।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

👉 শাওমি রেডমি ফোনের দাম

সিম্ফনি জেড৩৩ – Symphony Z33

সিম্ফনি জেড৩৩ ফোনটিতে রয়েছে ৩জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি স্টোরেজ। ৫০০০মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারির ফোন, সিম্ফনি জেড৩৩ এ রয়েছে ১৩মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা ও ৮মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

Symphony Z33

সিম্ফনি জেড৩৩ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫২ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক টি৬১০
  • র‍্যামঃ ৩জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প

সিম্ফনি জেড৩৩ এর দামঃ ১০,৪৯০টাকা

👉 স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম

সিম্ফনি এটম ২ – Symphony ATOM II

সিম্ফনি এটম ও সিম্ফনি এটম ২ এর মধ্যে ডিসপ্লে ও ক্যামেরাতে পার্থক্য রয়েছে। অপেক্ষাকৃত বড় ডিসপ্লে ও কার্যকরী ক্যামেরা রয়েছে সিম্ফনি এটম ২ ফোনটিতে। তবে দামে একই থাকছে এটম ও এটম ২ ফোন দুইটি।

 Symphony ATOM II

সিম্ফনি এটম ২ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৫২ইঞ্চি 
  • র‍্যামঃ ২জিবি 
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪০০০মিলিএম্প

সিম্ফনি এটম ২ এর দামঃ ৮,৫৯০টাকা

👉 রিয়েলমি ফোনের দাম

সিম্ফনি আই৬৯ – Symphony i69

সিম্ফনি এর এক্সট্রিম বাজেট রেঞ্জের ফোন হলো সিম্ফনি আই৬৯। যাদের বাজেট অত্যন্ত কম, তাদের জন্য সিম্ফনি আই৬৯ এর মতো ফোন রেখেছে সিম্ফনি। ২জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি স্টোরেজ এর ফোন, সিম্ফনি আই৬৯ এ রয়েছে ১৩মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা ও ৮মেগাপিক্সেল সেল্ফি ক্যামেরা। ইউনিসক এর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে এই ফোনটিতে। ৭হাজার টাকা যদি হয় আপনার বাজেট, তাহলে সিম্ফনি আই৬৯ ফোনটি দেখতে পারেন।

Symphony i69

সিম্ফনি আই৬৯ এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ ৬.০৯ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ ইউনিসক এসসি৯৮৬৩এ
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ১৬জিবি 
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ১৩মেগাপিক্সেল
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৩৫০০মিলিএম্প

সিম্ফনি আই৬৯ এর দামঃ ৬,৯৯০টাকা

👉 কম দামে ভালো ফোন

সিম্ফনি মোবাইল সম্পর্কে আপনার মতামত কি? আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,586 other subscribers

3 comments

    • আরাফাত বিন সুলতান Reply

      অনেক ধন্যবাদ। আপনি কি সিম্ফনি ফোন ব্যবহার করেন? আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে পারেন!

  1. A.K.M.Mortuza Reply

    As a mobile phone Symphony is very best for most user. Searching a display for Symphony model V-85 !
    Thanks

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *