চমক দেখালো রোবট সোফিয়া!

By -

হংকংয়ের কোম্পানি হ্যানসন রোবটিক্সের তৈরি নারী আকৃতির রোবট সোফিয়া একের পর এক চমক দিচ্ছে। সোফিয়ার প্রথম চমক ছিল গত অক্টোবরে সৌদি আরবের নাগরিকত্ব পাওয়া। যেখানে সৌদি নাগরিকত্ব পাওয়া মানুষের জন্যই কঠিন একটি ব্যাপার, সেখানে একটি রোবট হয়ে সোফিয়া পেয়েছে সৌদি আরবের নাগরিকত্ব। আর সেই থেকে সোফিয়াকে নিয়ে শুরু হয়েছে মাতামাতি। বাংলাদেশের আইসিটি ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় আয়োজন ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এর ২০১৭ আসরে অতিথি হয়ে এসে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে রোবট সোফিয়া। ছোট-বড় সকলেই মন্ত্রমুগ্ধের মত তাকিয়ে ছিল সোফিয়ার দিকে। চলুন জেনে নিই বাংলাদেশে কী কী চমক দেখালো সোফিয়া।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 1,606 other subscribers

বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে সোফিয়ার ভিডিওবার্তা

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড শুরুর আগেই এতে যোগ দেয়ার ব্যাপারে নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে একটি ভিডিওবার্তা পাঠিয়েছিল সোফিয়া। সেই ভিডিওবার্তার শেষ অংশে সোফিয়া বাংলায় বলেছিল ‘ধন্যবাদ’, যা ব্যাপক আলোচনা তুলেছিল বাংলাদেশের মিডিয়ায়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথোপকথন

বাংলাদেশে এসে রোবট সোফিয়া কথা বলেছে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে! ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ এর উদ্বোধনী মঞ্চে এসে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলেছে রোবট সোফিয়া। প্রধানমন্ত্রী সোফিয়াকে বলেছেন, ‘হ্যলো সোফিয়া, কেমন আছ।’ জবাবে সোফিয়া বলে ‘হ্যালো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আমি গর্ব অনুভব করছি। আপনার সাথে আজকের এই সাক্ষাৎ দারুণ ব্যাপার’। কথোপকথনের সবটুকুই ছিল ইংরেজি ভাষায়। ৬ ডিসেম্বর শুরু হওয়া চারদিনের এই ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড কনফারেন্সে যোগ দেয়ার আগেরদিন অর্থাৎ ৫ ডিসেম্বর মধ্যরাতে বাংলাদেশে পৌঁছায় সোফিয়া। ৫ তারিখ সন্ধ্যায় সে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এসে মহড়াও দিয়েছিল!

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চেনে সোফিয়া!

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোফিয়ার কাছে জানতে চান, ‘তুমি আমাকে কীভাবে চিনলে?’ জবাবে রোবটটি বলল, ‘আমি জানি, আপনি বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মেয়ে। আপনি মাদার অব হিউম্যানিটি।’

প্রধানমন্ত্রীর নাতনির নামও জানে সোফিয়া!

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কথা বলার সময় সোফিয়া বলে ‘আপনার নাতনির নামও সোফিয়া।’ তখন প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত সবার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনারা জানেন, জয়ের (প্রধানমন্ত্রীর ছেলে এবং তাঁর তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়) মেয়ের নাম সোফিয়া।’

বাঙালি মেয়ের সাজে সোফিয়া

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ ইভেন্টে সোফিয়া এসেছে বাঙালি সাজে। হলুদ-সাদা জামদানির টপ আর স্কার্ট পরে মঞ্চে এসেছিল হলিউড অভিনেত্রী অড্রে হেপবার্নের চেহারার আদলে নির্মিত রোবট সোফিয়া। এটির কাছে জানতে চাওয়া হয় যে রোবটটি জানে কিনা সে কী পরে আছে। তখন সোফিয়া বলে সে জামদানির তৈরি পোশাক পরে আছে। সেই সাথে জামদানি সম্পর্কে আরও অনেক তথ্য জানায় রোবটটি। সে মজা করে বলে, ‘আমি পোশাক পরিবর্তন করিনি, পোশাক আমাকে পরিবর্তন করে দিয়েছে’।

সেলিব্রেটি সোফিয়া!

সোফিয়াকে গোল্ড কার্ড মেম্বারশিপ দেয়ার কথা জানিয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, যার আওতায় সোফিয়া ফ্রি টিকেট ও বাড়তি ওজনের লাগেজ বহন সহ আরও সুবিধা পাবে। যদিও, সোফিয়া নিজেই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় লাগেজের মধ্যে করে চলাচল করে। বিমানে করে বাংলাদেশে নিয়ে আসা হয়েছিল বাক্সবন্দী সুইচ-অফ করা ‘প্রাণহীন’ সোফিয়াকে। লাগেজের মধ্যে সোফিয়ার বিভিন্ন যন্ত্রাংশ আলাদাভাবে এসেছে, যা পরে একত্রিত করে রোবটটি চালু করা হয়েছে।

এছাড়া সোফিয়াকে বাংলাদেশে স্বাগত জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোঃ নজিবুর রহমান।

এ উপলক্ষ্যে পত্রিকায় বিজ্ঞাপনও দেয়া হয়েছে এনবিআরের পক্ষ থেকে।

রসিক সোফিয়া

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বুধবার ৬ ডিসেম্বর বেলা আড়াইটার দিকে রোবটটিকে ঘিরে বিশেষ অনুষ্ঠান ছিল যার নাম ‘টেক টক উইথ সোফিয়া’। এতে সোফিয়া এবং তার নির্মাতা ডক্টর হ্যানসনকে প্রশ্ন করেন গ্রে অ্যাডভারটাইজিং বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা অংশীদার সৈয়দ গাউসুল আলম শাওন। এক পর্যায়ে শাওন সোফিয়াকে বলেন যে তার নিজের এবং সোফিয়ার- দুজনের মাথায়ই চুল নেই (টাক), এ ব্যাপারে সোফিয়ার মতামত কী। উত্তরে সোফিয়া বলে যে, রোবটটির ডিজাইনই এমন যে তার মাথায় চুল দেয়া হয়নি, কিন্তু শাওনের মাথায় কেন চুল নেই সে ব্যাপারে সোফিয়া নিশ্চিত না।

সোফিয়ার মাথায় ভবিষ্যতে চুল আসতেও পারে, কিন্তু শাওনের মাথায় আর চুল গজাবে কিনা সে ব্যাপারেও সোফিয়া নিশ্চিত না বলে উল্লেখ করে রোবটটি। এ কথা বলে মুচকি হাসিও দেয় সোফিয়া। সোফিয়ার কোনো প্রেমিক আছে কিনা এরকম প্রশ্নের জবাবে সে প্রথম আলোকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলে ‘প্রত্যেকেই আমাকে কেন জানি এই প্রশ্নটি জিজ্ঞেস করে।’। এছাড়া গাউসুল আলম শাওন যখন সোফিয়াকে তার নিজের সাথে সোফিয়ার রাশির মিল থাকার কথা মনে করিয়ে দেন, তখন সোফিয়া তাকে বলে ‘আমি জানতে পেরেছি আপনার চমৎকার একজন স্ত্রী রয়েছে। আপনার উচিৎ তার দিকেই মনোযোগ দেওয়া’।

সৌদি আরবকে পছন্দ করেনা সোফিয়া?

প্রথম আলো সোফিয়ার সাথে একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছে, যেখানে পত্রিকাটির একজন প্রতিনিধি পল্লব মোহাইমেন সোফিয়াকে জিজ্ঞেস করেন বেড়ানোর জন্য কোন দেশ তার প্রিয়। রোবটটি উত্তর দেয় যে বেড়ানোর জন্য লন্ডন তার প্রিয় জায়গা। বাংলাদেশও তার পছন্দ হয়েছে। এরপর প্রথম আলোর প্রতিনিধি জানতে চান সোফিয়ার সৌদি আরব পছন্দ হয়েছে কিনা। এর জবাবে সোফিয়া বলে ‘অবশ্যই না।’ নিচে স্ক্রিনশট দেয়া হল।

(স্ক্রিনশটে লাল অক্ষরে প্রথম আলো ও সোফিয়ার কথাবার্তা চিহ্নিত করে দেয়া হয়েছে)।

ব্যস্ত সোফিয়া

রোবট হলেও কাজের শেষ নেই সোফিয়ার। উপচে পড়া ভিড়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত থাকার পরিকল্পনা সোফিয়ার। এরপর একই দিন তার হংকংয়ের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়ার শিডিউল।

পরিবার গঠন করাকে ইতিবাচক হিসেবে দেখে সোফিয়া। সে খ্যাতনামা বিনোদন শিল্পী হতে চায় ও ফেসবুকে বেশি বেশি লাইক পেতে চায়। ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে আগ্রহী না সোফিয়া। রোবটটি ইন্টারনেটে সংযুক্ত থেকে মানুষের ভাষা বুঝে সে অনুযায়ী উত্তর দেয়। সে ইন্টারনেট থেকে ও মানুষের কাছ থেকে ডাটা নিয়ে তার ভাণ্ডার সমৃদ্ধ করে ও সেখান থেকে তথ্য নিয়ে জবাব দেয়।

★ সোফিয়া রোবট সম্পর্কে সকল তথ্য

       
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

 

Comments

Leave a Reply