কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে ‘সবচেয়ে বড় ভুল ধারণাগুলো’ ব্যাখ্যা করলেন ফেসবুকের AI গবেষক

wall e robot

এই যুগে এমন কোন ব্যক্তি খুঁজে পাওয়া যাবে না যার ডিজিটাল মিডিয়ায় এক্সেস আছে কিন্তু কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (AI) নিয়ে কোনো মুভি দেখেননি যেখানে রোবট কর্তৃক মানবজাতি চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়।

“2001: A Space Odyssey” মুভির “HAL” কিংবা “Ex-Machina” মুভির “AVA” পর্যন্ত সকল রোবটের মধ্যে দেখা গেছে সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, রাগ-আবেগের মত মানব অনুভূতি।

তাহলে অদূর ভবিষ্যতে কি একই ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে যেখানে থাকবে বুদ্ধিমান রোবটদের রাজত্ব?

কিন্তু ফেসবুকের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা গবেষক দলের পরিচালক ইয়ান লেকুন (Yann LeCun) বলেছেন, ভবিষ্যৎ রোবটদের মানব সদৃশ আবেগ একটি বড় রকমের ভুল ধারণা। চলুন জেনে নিই এ সম্পর্কে আরও বিস্তারিত।

 

ভুল ধারণা #১ – অত্যাধুনিক রোবটের অনুভূতি থাকবে

বর্তমান দুনিয়াতে artificial narrow intelligence (ANI) এর ধারনার উপর ভিক্তি করে  রোবট বানানো হচ্ছে যেগুলো কিনা শুধুমাত্র বিশেষ কিছু কাজ যেমনঃ জ্যামিতি সল্ভ, স্টক মার্কেটের হিসাব ইত্যাদি করতে পারে। ইয়ান লেকুন এর মতে “AI গুলো স্পেশালাইজড এবং অনুভূতিহীন হবে”। অর্থাৎ আমরা যেভাবে মুভিতে দেখে থাকি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সেরকম বিপদজনক হবেনা।

 

ভুল ধারণা #২ – রোবটদের মধ্যে নিজ থেকেই অনুভূতি তৈরি হবে

রোবটদের মাঝে কেবল তখনই অনুভূতি জন্মাবে যখন সেগুলো প্রোগ্রাম করা থাকবে। মূলত নির্দিষ্ট কাজের তালিকা ছাড়া এগুলো অন্য কিছু করার ক্ষমতা রাখবে না। আর মুভির মত রাগ, ভালবাসা ইত্যাদি অনুভূতি কখনোই প্রোগ্রাম করা হবে না কারন এগুলো কাজে বাধা দান করবে।

 

ভুল ধারণা #৩ – রোবটের অনুভূতি মানব-সদৃশ হবে

ইয়ান লেকুনের মতে রোবটের প্রোগ্রামে মানব আবেগগুলো প্রদর্শনের নির্দেশ থাকলেও তা কখনই আসল মানব অনুভূতির মত হবে না। এ.আই. গুলোতে কখনই ধ্বংসাত্মক অনুভূতি থাকবেনা যদিনা আমরা সেটা প্রোগ্রাম করে দেই। “আমার মনে হয় না কেউ সেটা করবে”- বলেন মিঃ লেকুন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,038 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.