অপ্রাপ্তবয়স্কদের ফেসবুক প্রাইভেসি সেটিংসে এলো ‘পাবলিক’ শেয়ারিং অপশন

facebook eng১৮ বছরের কম বয়সী ব্যবহারকারীদের জন্য পোস্ট প্রাইভেসি সেটিংসে পরিবর্তন এনেছে ফেসবুক। এখন থেকে ১৩-১৭ বছর বয়সী ফেসবুকাররা প্রথমবার সাইন-ইন করার পরেই শেয়ারিং অপশনে ডিফল্টভাবে “ফ্রেন্ডস” লেভেলের প্রাইভেসি পলিসির আওতাভুক্ত থাকবেন। সুতরাং, আপনি যদি একজন টিনএজার (কিশোর/কিশোরী) হন এবং ফেসবুকে একাউন্ট খোলেন, তাহলে আপনার স্ট্যাটাস, ফটো, ভিডিও প্রভৃতি পোস্ট বাই ডিফল্ট শুধুমাত্র আপনার ফেসবুক বন্ধুদের নিকট দৃশ্যমান হবে।

ডিফল্ট প্রাইভেসি লেভেল হবে “ফ্রেন্ডস”, যুক্ত হয়েছে ‘পাবলিক’ শেয়ারিং অপশন

এছাড়া নতুন প্রাইভেসি পলিসির ফলে ১৮ বছরের কম বয়সীরাও এখন তাদের পোস্ট ‘পাবলিকলি’ বা ‘ফেসবুকের সবার সাথে’ শেয়ার করতে পারবেন। এর আগে ‘আন্ডার এইটিন (-18) বা অপ্রাপ্তবয়স্ক” ফেসবুক ইউজারদের ডিফল্ট ও সর্বোচ্চ শেয়রিং লেভেল ছিল “ফ্রেন্ডস অব ফ্রেন্ডস” পর্যন্ত। অর্থাৎ, কিশোরদের ফেসবুক পোস্টসমূহ পাবলিকলি দৃশ্যমান হতনা, বড়জোর ‘বন্ধুদের বন্ধু’ পর্যন্ত সীমাবদ্ধ থাকত।

fb privacy s১৬ অক্টোবর ঘোষিত এই নতুন গোপনীয়তা নীতিমালায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আরও বলেছে যে তারা শিশুদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সচেতন এবং কোন পোস্ট পাবলিকলি শেয়ার করা সময় ব্যবহারকারীকে এর বিস্তৃতি সঙ্ক্রান্ত রিমাইন্ডার দেয়া হবে।

টিনএজারদের ফেসবুক অভিজ্ঞতায় উন্নয়ন আনার লক্ষ্যেই উক্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং কোম্পানি।

আপনি কী মনে করেন, অপ্রাপ্তবয়স্ক ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ওপর ‘পাবলিক পোস্টিং’য়ের কেমন প্রভাব পড়তে পারে?

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,958 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.