ইউটিউব থেকে আলাদা হচ্ছে গুগল প্লাসঃ ব্যর্থতা স্বীকার করে নিলো গুগল?

google plus fate img

গুগলের সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সেবা ‘গুগল প্লাস’ নিয়ে কোম্পানিটির স্বপ্ন ছিল আকাশছোঁয়া। ওয়েব জায়ান্ট ভেবেছিল গুগল প্লাস একদিন ফেসবুক ও টুইটারের সাথে প্রতিযোগিতা করবে। কিন্তু সেটি আর হয়ে উঠলোনা। গুগল প্লাসের কর্মকর্তারা হাল ছেড়ে দেয়ার পর এখন সার্ভিসটি নিয়ে নতুন করে ভাবতে শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

অনেকদিন ধরেই জিমেইল একাউন্ট খোলার সাথে সাথে ব্যবহারকারীদের গুগল প্লাস প্রোফাইল তৈরি করতে বাধ্য করা হত। এরপর গুগলের জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউবের ওপরও গুগল প্লাস চাপিয়ে দেয়া হয়। এমন একটি সময় এলো যখন ইউটিউবে ভিডিও লাইক, শেয়ার কমেন্ট করতে গেলে গুগল প্লাস একাউন্ট দরকার হতো। এমনকি ইউটিউব প্রোফাইল পিকচার সেট করতে গেলেও আপনার গুগল প্লাস প্রোফাইলের মাধ্যমে সেটি করতে হত। এখনও এই পলিসিটি চালু আছে।

কিন্তু আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই ইউটিউব থেকে গুগল প্লাস প্রোফাইলের এই বাধ্যবাধকতা সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে গুগল।

সম্প্রতি এক ব্লগ পোস্টে গুগল জানিয়েছে যে, কয়েক মাস পর থেকে ইউটিউব একাউন্টে আর কোনো গুগল প্লাস প্রোফাইল দরকার হবেনা। শুধু একটি জিমেইল (গুগল) একাউন্ট থাকলেই চলবে। এখন থেকে ইউটিউবে কমেন্ট করলে সেগুলো গুগল প্লাস প্রোফাইলে যাবেনা। কিন্তু গুগল প্লাস প্রোফাইল ছাড়া ইউটিউব ইউটিউব চ্যানেল তৈরি, ভিডিও আপলোড ও কমেন্ট করতে চাইলে আপনাকে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। আগামী কয়েক মাস পরেই আপনার ইউটিউব একাউন্ট থেকে গুগল প্লাস প্রোফাইল বাদ দিয়ে দিতে পারবেন। তবে এখনই সেটি করতে যাবেন না, কারণ তাহলে পুরো ইউটিউব একাউন্টটিই বন্ধ হয়ে যেতে পারে। গুগল সবেমাত্র ঘোষণা দিয়েছে যে ইউটিউব ও গুগল প্লাস প্রোফাইল আলাদা করে দেয়া হবে। এখনও পর্যন্ত সেটি কার্যকর হওয়া শুরু করেনি। সুতরাং আরও কিছুদিন অপেক্ষা করতেই হচ্ছে।

কিছুদিন আগে ‘গুগল প্লাস ফটোস’ সার্ভিস বন্ধ করে ‘গুগল ফটোস’ নামের আলাদা সার্ভিস চালুর ঘোষণা দিয়েছে গুগল। আর এখন গুগল প্লাসের আরও কিছু কার্যক্রম বন্ধ করে দিচ্ছে কোম্পানিটি। এসবের মাধ্যমে দৃশ্যত গুগল প্লাসের ব্যর্থতাই কি স্বীকার করে নিচ্ছে গুগল?

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,533 other subscribers

Comments