বাংলাদেশে খুলে দেয়া হল ইউটিউব!

youtube...,.অবশেষে ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউবের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। ফলে আজ ৫ জুন বুধবার বিকেল থেকে দেশ থেকে ভিজিট করা যাচ্ছে গুগলের মালিকানাধীন সোশ্যাল মিডিয়া ভিত্তিক এই সাইটটি। মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সাঃ) ও ইসলামকে কটাক্ষ করে নির্মিত মার্কিন চলচ্চিত্র “ইনোসেন্স অফ মুসলিমস” এর ভিডিও ক্লিপ সাইট থেকে না সরানোয় গত বছর ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে ইউটিউব ব্লক করে দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি); সরকারের পক্ষ থেকে বিটিআরসি এ ব্যাপারে পূর্বে গুগলকে চিঠি দিলেও তাতে কাজ না হওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন।

ব্যক্তিগত/বাক স্বাধীনতার প্রতি আসলে কতটা শ্রদ্ধাশীল গুগল?

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস বুধবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ইউটিউব থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে”; বিকেল চারটার সময় সাইটটির এক্সেস চালু করার ঘোষণা দেয়া হয়। বিটিআরসি থেকে মৌখিক ও ইমেইল উভয় মাধ্যমেই ইউটিউব খুলে দেয়ার জন্য ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারনেট গেইটওয়ে “আইআইজি”সমূহকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। সুতরাং আশা করা যায় শীঘ্রই দেশের সব ইন্টারনেট সংযোগ থেকেই ইউটিউব দেখা যাবে।

বিতর্কিত ও তুমুল সমালোচিত ঐ চলচ্চিত্রটি ইউটিউব থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে কিনা তা জানতে চাইলে জনাব সুনীল কান্তি বোস বলেন, এ বিষয়ে গুগল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এখানো তারা আলোচনা চালাচ্ছেন। “তবে বাংলাদেশে ইউটিউবের মাধ্যমে কেউ এই চলচ্চিত্রটি দেখতে চাইলে একটি সতর্ক বার্তা দেয়া হবে, যাতে এই ভিডিওটি কেউ না দেখে,” বলেন কমিশন চেয়ারম্যান।

অবশ্য এই পোস্টটি পাবলিশ করার সময় (সন্ধ্যা ৬টা ১৫) পর্যন্ত গ্রামীণফোন ইন্টারনেট থেকে ইউটিউবে ঢোকা যাচ্ছিল না।

গত বছর ২৩ জুন যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পায় “ইনোসেন্স অফ মুসলিমস” যা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পরার পর পরই মুসলিম বিশ্বে বিক্ষোভ শুরু হয়। এতে কয়েকজনের প্রাণহানিও হয়েছিল। কিন্তু “বাকস্বাধীনতা”র দোহাই দিয়ে গুগল ঐ ভিডিও ক্লিপগুলি সরিয়ে ফেলতে অস্বীকৃতি জানায়।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 3,164 other subscribers

Comments