১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন ২০২৪

১৫ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে ভালো মোবাইল বা স্মার্টফোন খুঁজছেন? ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ২০২৪ সালে কেনার মতো অসংখ্য ভালো অপশন রয়েছে। ১৫ হাজার টাকার মধ্যে স্যামসাং, শাওমি, রিয়েলমি সহ প্রায় প্রত্যেকটি জনপ্রিয় স্মার্টফোন কোম্পানি এক বা একাধিক ফোন দেশের বাজারে অফিসিয়াল বিক্রি করছে।

আমাদের এই তালিকায় ১৫ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যায় এমন সকল সেরা স্মার্টফোন অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ২০২৪ তালিকায় শাওমি, রিয়েলমি, ইনফিনিক্স, স্যামসাং, টেকনো, ইনফিনিক্সসহ প্রায় সকল ব্র্যান্ডের ফোন রয়েছে।

১৫ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন ২০২৪ তালিকায় অফিসিয়াল ফোনের পাশাপাশি বেশ কিছু আনঅফিশিয়াল ফোনও আমরা রেখেছি। এর কারণ হলো এই ফোনগুলো উল্লেখিত দামে অসাধারণ ভ্যালু অফার করছে। আর আনঅফিশিয়াল ফোনের উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় এসব ফোন কেনাতে কোনো আর্থিক ঝুঁকির সম্ভাবনা নেই।

চলুন জেনে নেয়া যাক, ১৫ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে ভালো মোবাইল স্মার্টফোনসমুহ সম্পর্কে যেগুলো ২০২৪ সালে কিনতে পারবেন।

শাওমি রেডমি নোট ১২ – Xiaomi Redmi Note 12

শাওমি রেডমি নোট ১২ ফোনটির আনঅফিশিয়াল ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়ান্ট পেয়ে যাবেন ১৫ হাজার টাকার মধ্যে, যাতে ৬ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ থাকছে। ১৫ হাজার টাকার মধ্যে ফোনটি মাথানষ্ট সব ফিচার অফার করছে।

৬.৬৭ ইঞ্চি ফুলএইচডি+ ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লে থাকছে শাওমি রেডমি নোট ১২ ফোনটিতে। ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার সাথে ফ্রন্টে থাকছে ১৩ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ও ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ফিচার থাকছে রেডমি নোট ১২ তে। স্ন্যাপড্রাগন ৬৮৪৫ চালিত এই ফোনটিতে স্টিরিও স্পিকার এর সাথে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সরও র‍য়েছে। 

শাওমি রেডমি নোট ১২ এর দাম: ১৪, ৯৯৯ টাকা (আনঅফিশিয়াল ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়ান্ট)

👉 শাওমি মোবাইল দাম বাংলাদেশ জানুন

ইনফিনিক্স হট ৪০আই – Infinix Hot 40i

Infinix HOT 40i

ইনফিনিক্স হট ৪০আই ফোনটিতে ১৫ হাজার টাকা প্রাইস রেঞ্জেই পেয়ে যাচ্ছেন ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। ফোনটিতে ৬.৫৬ ইঞ্চি ডিসপ্লে রয়েছে যাতে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের পাশাপাশি নোটিফিকেশন বার এর মত স্পেশাল ফিচারও রয়েছে।

৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরার ফোনটি চলবে ইউনিসক টি৬০৬ প্রসেসর দ্বারা। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারির সাথে এখানে থাকছে ১৮ ওয়াট ফআস্ট চার্জিং। ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা ও ৩২ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা থাকছে এই ফোনে। 

ইনফিনিক্স হট ৪০আই এর দাম: ১৩,৯৯৯ টাকা

ইনফিনিক্স স্মার্ট ৮ – Infinix Smart 8

infinix smart 8

বেশ আকর্ষণীয় ডিজাইনের ফোন ইনফিনিক্স স্মার্ট ৮ এ পাচ্ছেন ৬.৬ ইঞ্চি ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লে। ১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরার সাথে এই ফোনে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ও ১০ ওয়াট চার্জিং থাকছে এই ফোনে। ইনফিনিক্স স্মার্ট ৮ ফোনটি চলবে ইউনিসক টি৬০৬ প্রসেসর দ্বারা।

ইনফিনিক্স স্মার্ট ৮ এর দাম: 

  • ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ: ১০,৪৯৯ টাকা
  • ৪ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ১১,৪৯৯ টাকা

👉ইনফিনিক্স মোবাইলের দাম জানুন

টেকনো স্পার্ক গো ২০২৪ – Tecno Spark Go 2024

Tecno Spark Go 2024 phone

১১ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে যে কারো জন্য সহজ পছন্দ হতে পারে টেকনো স্পার্ক গো ২০২৪ ফোনটি। ৬.৬ ইঞ্চি ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট এর ডিসপ্লের এই ফোনে ইউনিসক টি৬০৬ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। থাকছে ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ।

১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ব্যাক ক্যামেরার সাথে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা থাকছে টেকনো স্পার্ক গো ২০২৪ ফোনটিতে। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি ও ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং থাকছে এই ফোনে। ফিংগারপ্রিন্ট ও ডুয়াল স্টিরিও স্পিকার এর মত ফিচারও থাকছে এই ফোনে।

টেকনো স্পার্ক গো ২০২৪ এর দাম: ১০,৬৯০ টাকা

👉টেকনো মোবাইলের দাম জানুন

অনার এক্স৫ প্লাস – Honor X5 Plus

Honor X5 Plus

১৫ হাজার টাকার মধ্যে চিরাচরিত ব্র্যান্ডগুলোর বাইরে যদি ফোন কিনতে আপনার আপত্তি না থাকে, তাহলে অনার এক্স৫ প্লাস ফোনটি আপনার জন্য একটি দারুণ পছন্দ হতে পারে।

৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ এর এই ফোনটির ডিজাইন বেশ প্রিমিয়াম দেখতে, সাথে রয়েছে মানানসই ফিচার। ৬.৫৬ ইঞ্চি এইচডি+ ডিসপ্লেতে থাকছে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট। ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ব্যাক ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকছে এই ফোনে।

অনার এক্স৫ প্লাস ফোনটিতে মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৬ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ৫২০০ মিলিএম্প ব্যাটারির ফোনটির সাথে পেয়ে যাবেন ১০ ওয়াট চার্জার। এছাড়াও ফোনটিতে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সরও রয়েছে।

অনার এক্স৫ প্লাস এর দাম: ১২,৯৯৯ টাকা

শাওমি রেডমি ১৩সি – Xiaomi Redmi 13C

Xiaomi Redmi 13C

৬.৭৪ ইঞ্চি এইচডি+ ডিসপ্লের ফোন রেডমি ১৩সি তে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ফিচার রয়েছে। ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ রয়েছে ফোনটির ব্যাকে ও ফ্রন্টে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

একাধিক র‍্যাম ও স্টোরেজ ভ্যারিয়ান্টে ফোনটি পাওয়া যাবে। রেডমি ১৩সি ফোনটি চলবে মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৫ প্রসেসর দ্বারা। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারির সাথে এখানে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধাও পেয়ে যাচ্ছেন।

শাওমি রেডমি ১৩সি এর দাম: 

  • ৪ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ১৪,৪৯৯ টাকা (অফিশিয়াল)
  • ৪ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ১২,৯৯০ টাকা (আনঅফিশিয়াল)
  • ৬ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ: ১৩,৯৯০ টাকা (আনঅফিশিয়াল)

স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ০৪ – Samsung Galaxy F04

Samsung Galaxy F04

১১ হাজার টাকার মধ্যে আনঅফিশিয়ালি পেয়ে যাবেন স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ০৪ ফোনটি। ৬.৫ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লে থাকছে এই ফোনে, তবে কোনো ধরনের হাই রিফ্রেশ রেট ফিচার নেই এখানে।

১৩ মেগাপিক্সেল ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরার সাথে ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা থাকছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ০৪ ফোনটিতে। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারির সাথে এখানে ১৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিংও রয়েছে। মিডিয়াটেক এর হেলিও পি৩৫ প্রসেসর দ্বারা এই ফোনটি চলবে। ফিংগারপ্রিন্ট সুবিধা না থাকলেও ফেস আনলক ফিচার রয়েছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ০৪ ফোনটিতে। 

স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ০৪ এর দাম: ১০,৯৯৯ টাকা

👉স্যামসাং মোবাইল ফোনের দাম জানুন

শাওমি রেডমি এ২+  – Xiaomi Redmi A2+

Xiaomi Redmi A2 and A2 Plus

বাজেট শাওমি ফোনের তালিকায় নতুন সংযোজন রেডমি এ২+ যা অল্পদিনেই ক্রেতাদের মন জয় করে নিয়েছে। ৬.৫২ ইঞ্চি ডিসপ্লের এই ফোনটিতে ব্যাক মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। এছাড়া ফেস আনলক সুবিধাও পেয়ে যাবেন এই ফোনে। 

৬৪ জিবি স্টোরেজ এর পাশাপাশি ৩ জিবি ও ৪ জিবি র‍্যাম ভ্যারিয়ান্টে ফোনটি পাওয়া যাবে। মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৬ প্রসেসর দ্বারা চলবে ফোনটি। ফোনটির ব্যাকে ৮ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরার পাশাপাশি ফোনের ফ্রন্টে ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে। ৫০০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি থাকছে রেডমি এ২+ ফোনটিতে। 

শাওমি রেডমি এ২+ এর দাম:

  • ৩ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ – ৯,৯৯৯টাকা
  • ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ – ১০,৯৯৯ টাকা

আরো জানুনঃ ১০ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন

সিম্ফোনি জেড৬০ প্লাস – Symphony Z60 Plus

সিম্ফোনি জেড৬০ এর আপডেটেড ভার্সন হলো সিম্ফোনি জেড৬০ প্লাস। মাত্র ১২ হাজার টাকার ফোন হলেও এই ফোনে ফিচারের কোনো কমতি চোখেই পড়বেনা। প্রথমত এখানে পেয়ে যাচ্ছেন ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ যা ১২ হাজার টাকা দামের ফোন হিসাবে বেশ অসাধারণ।

সিম্ফোনি জেড৬০ প্লাস ফোনটিতে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে যা এর ডিজাইনে বাড়তি মাত্রা যোগ করেছে। ইউনিসক টি৬১৬ প্রসেসর দ্বারা চালিত ফোনটিতে ৫০০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি ও ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং রয়েছে। ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে এই ফোনে। 

সিম্ফোনি জেড৬০ প্লাস এর দাম: ১১,৯৯০ টাকা

👉সিম্ফনি মোবাইলের দাম জানুন

আইটেল এস২৩ – itel S23

itel s23

১৫ হাজার টাকার মধ্যে ৮ জিবি র‍্যাম, সাথে আবার ২৫৬ জিবি স্টোরেজ দিচ্ছে আইটেল এস২৩ ফোনটি। এই ফোনটির চমক এখানেই শেষ নয়, ইউনিসক টি৬০৬ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে, পেয়ে যাচ্ছেন একাধিক র‍্যাম ও স্টোরেজ অপশন।

৬.৬ ইঞ্চি ডিসপ্লে রয়েছে ফোনটিতে যাতে আবার ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ফিচারও রয়েছে। ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা রয়েছে ফোনটিতে। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারির এই ফোনে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সরও রয়েছে।

আইটেল এস২৩ এর দাম:

  • ৪ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ – ১০,৪৯০ টাকা
  • ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ – ১১,৪৯০ টাকা
  • ৮ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ – ১৩,৯০০ টাকা

👉আইটেল মোবাইলের দাম জানুন

টেকনো স্পার্ক ১০ প্রো  – Tecno Spark 10 Pro

Tecno SPARK 10 Pro

১৫ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে টেকনো স্পার্ক ১০ প্রো ফোনটি, যাতে ৪ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ রয়েছে। ৬.৮ ইঞ্চির বিশাল ডিসপ্লের এই ফোনটিতে সাইড মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। পাঞ্চ-হোল ডিসপ্লের ফোনটির ডিজাইন বেশ সুন্দর বলা চলে।

মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৮ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে যা বেশ শক্তিশালী একটি প্রসেসর। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারির পাশাপাশি ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং পাওয়া যাবে ফোনটির সাথে। ৩২ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরার পাশাপাশি ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা সেটাপ রয়েছে ফোনটির ব্যাকে। কিছুটা বেশি দামে ফোনটির ৮ জিবি র‍্যাম ভ্যারিয়ান্টও পাওয়া যাবে। 

টেকনো স্পার্ক ১০ প্রো এর দাম: ১৪,৯৯০ টাকা

রেডমি ১২সি – Xiaomi Redmi 12C

Xiaomi Redmi 12C

৬.৭১ ইঞ্চির বিশাল ডিসপ্লের ফোন রেডমি ১২সি তে রয়েছে ব্যাক-মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর। একাধিক স্টোরেজ ও র‍্যাম ভ্যারিয়ান্টে ফোনটি পাওয়া যাবে। মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৫ দ্বারা চালিত এই ফোনে ৫০০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি থাকছে। ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরার সাথে ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি কামেরা থাকছে রেডমি ১২সি ফোনটিতে।

রেডমি ১২সি এর দাম: 

  • ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ – ১১,৯৯৯ টাকা
  • ৪ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ – ১২,৯৯৯ টাকা
  • ৬ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ – ১৩,৯৯৯ টাকা

রিয়েলমি সি৫১ – Realme C51

রিয়েলমি সি৫১ ফোনটিতে ৬.৭৪ ইঞ্চি ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট স্ক্রিন পেয়ে যাবেন। ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারির এই ফোনটির সাথে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং রয়েছে যা দাম বিবেচনায় বেশ অসাধারণ বলা চলে।

রিয়েলমি সি৫১ ফোনটিতে ৫০ মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা সেটাপ রয়েছে, ফোনের ফ্রন্টে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল এর সেলফি ক্যামেরা। ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ এর ফোনটিতে ইউনিসক টাইগার টি৬১২ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে।

রিয়েলমি সি৫১ এর দাম: ১২,৯৯৯ টাকা

👉রিয়েলমি ফোনের দাম জানুন

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ – Samsung Galaxy A03

এটি স্যামসাংয়ের বিগত বছরের বাজেট ফোন হলেও ক্যামেরা ফোন হিসেবে এখনও এটি এই বাজেটে অন্যতম সেরা। ফোনের ক্যামেরার দিকে বাড়তি দৃষ্টি দেয়ায় অনেক জনপ্রিয় হয়েছে এই ফোনটি। ফোনের সামনে ৬.৫ ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে। আর পারফর্মেন্স দিচ্ছে ইউনিসকের টি৬০৬ চিপ। এটি খুব শক্তিশালী চিপ না হলেও দৈনন্দিন কাজ সহজেই করা যায়। ৩ জিবি র‍্যাম পারফর্মেন্সে সাহায্য করবে। এছাড়া এই বাজেট ফোনেও ব্যবহার করতে পারবেন লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড ১৩। ফলে বেশ ভালো অভিজ্ঞতা হবে ফোনটির ব্যবহারে।

Samsung Galaxy A03

এছাড়া ফোনের মূল আকর্ষণ এর ৪৮ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা। এই ক্যামেরার মাধ্যমে দিনের আলোতে খুব ভালো ছবি তোলা সম্ভব। ফলে যারা ছবি তুলতে পছন্দ করেন তাদের জন্য সেরা একটি ফোন এটি। এছাড়া সামনে আছে ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। ব্যাটারি হিসেবে রয়েছে ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি। তবে চার্জ দিতে হবে মাইক্রো ইউএসবি দিয়ে যা এই সময়ে এসে কিছুটা পুরনো প্রযুক্তি। ফোনে থাকছে না কোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ (৩ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজ) এর দামঃ ১৪,৯৯৯ টাকা

সিম্ফনি ইনোভা ১০ – Symphony Innova 10

Symphony Innova 10

বাজেটে খুব ভালো পারফর্মেন্সের ফোন নিয়ে আসে সবসময় সিম্ফনি। এবার ভালো পারফরমেন্স ও ক্যামেরার সাথে তারা বাজারে এনেছে ইনোভা ১০ মডেলটি। যারা বাজেটেই মোটামুটি গেমিং করতে চান তারা এই ফোনটি দেখতে পারেন। ৬.৬ ইঞ্চির বড় পাঞ্চ হোল ডিসপ্লের ফোন এটি। ফোনটির ডিজাইন ও ডিসপ্লে পুরোপুরি আধুনিক। ভিতরে আছে এই বাজেটের হিসেবে বেশ শক্তিশালী মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ প্রসেসর। ফলে দৈনন্দিন কাজ বা গেমে খুব বেশি সমস্যায় পড়তে হবে না। ক্যামেরার দিক থেকেও পিছিয়ে নেই ফোনটি। আছে ৫২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ।

সামনের ক্যামেরাটি ৮ মেগাপিক্সেলের। এছাড়াও আছে ৫০৫০ মিলিএম্পের বিশাল ব্যাটারি সারদিন ব্যাকাপ দেয়ার মতো। ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জ সুবিধাও রাখা হয়েছে। ৪ জিবি র‍্যাম রয়েছে গেমিংয়ে বাড়তি সুবিধা দিতে। ১২৮ জিবি স্টোরেজও পাওয়া যাবে। এছাড়াও ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, মাইক্রোএসডি কার্ডের সুবিধা দেবে ফোনটি।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৪ই (৪ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ) এর দামঃ ১১,৪৯৯ টাকা

সিম্ফনি জেড৬০ – Symphony Z60

Symphony Z60

স্মুথ পারফর্মেন্স ও কন্টেন্ট ওয়াচিংয়ের জন্য সেরা সিম্ফনির এই ফোনটি। এখানে আধুনিক বেশ কিছু ফিচার আছে যা সাধারণত ১৫ হাজার টাকা বাজেটে দেখা যায় না। সবথেকে ভালো ফিচার হচ্ছে এই ফোনের ৬.৬ ইঞ্চির এলসিডি ডিসপ্লেটি। এটি একটি হাই রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লে। ৯০ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট পাওয়া যায় এখানে। তাই স্ক্রলিং বা দৈনন্দিন ব্যবহারে স্মুথ অভিজ্ঞতা দেয়। এছাড়া ভালো পারফর্মেন্সে সাহায্য করে ইউনিসকের টি৬০৬ চিপ। এটি খুব শক্তিশালী না হলেও দৈনন্দিন কাজগুলো করা যায় সহজেই। ফোনটি ৪ জিবি র‍্যামে পাবেন। এছাড়া ফোনের স্পিকারটিও বেশ লাউড ও ভালো সাউন্ড তৈরি করে।

পিছনে আছে ৫২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ। সাধারণ দিনের আলোতে ছবি তোলা যায় বেশ ভালো। এছাড়া ম্যাক্রো শট নেয়া যায় অপর ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরায়। সামনে আছে ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। ৫০০০ মিলিএম্প বিশাল ব্যাটারি ও ১৪ ওয়াট ফাস্ট চার্জের সুবিধা থাকায় ব্যাটারি ব্যাকাপ নিয়েও চিন্তা থাকছে না কোন। সব মিলিয়ে এই দামে খুবই ভালো একটি প্যাকেজ এই ফোনটি। 

সিম্ফনি জেড৬০ (৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ) এর দামঃ ১০,৪৯৯ টাকা

টেকনো স্পার্ক ৯টি – Tecno Spark 9T

Tecno Spark 9T

এই বছরে টেকনোর নতুন এই বাজেট ফোন মূলত সেলফি প্রিয়দের জন্য তৈরি করা হয়েছে। কাজেই খুব ভালো সেলফি ক্যামেরা দেয়া হয়েছে এই বাজেটেই। ফোনের সামনে পাবেন ৬.৬ ইঞ্চির বিশাল আকারের একটি ডিসপ্লে যেখানে ৯০ হার্টজ হাই রিফ্রেশ রেটের সুবিধা রাখা হয়েছে। ফলে কন্টেন্ট ওয়াচিংয়ের ক্ষেত্রে খুব ভালো অভিজ্ঞতা পাওয়া যায়। এছাড়া হাই রিফ্রেশ রেটের কারণে ফোনের পারফর্মেন্সও অনেক স্মুথ। আছে হেলিও জি৩৭ প্রসেসর।

বাজেটে বেশ ভালো পারফর্মেন্স দেয়ার সাথে কিছুটা গেমিংও করা যাবে এই চিপের সাহায্যে। ৪ জিবি র‍্যামকে সফটওয়্যারের সাথে বাড়িয়ে ৭ জিবি পর্যন্ত পাওয়া যাবে। ফোনের মূল আকর্ষণ এর ক্যামেরা। পিছনে ১৩ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ আছে। পিছনের ক্যামেরা মোটামুটি মানের হলেও সামনে আছে ৩২ মেগাপিক্সেলের খুবই ভালো একটি সেলফি ক্যামেরা। ফলে যারা সেলফি তুলতে পছন্দ করে তাদের জন্য সেরা ফোন এটি। এছাড়া ৫০০০ মিলিএম্প ব্যাটারি, টাইপ সি চার্জিং, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ইত্যাদি অনেক কিছুই আছে এই ফোনে।

টেকনো স্পার্ক ৯টি (৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ) এর দামঃ ১৩,৯৯০ টাকা

টেকনো স্পার্ক ১০সি – Tecno Spark 10C

Tecno Spark 10C

এই বছরে টেকনোর আরেকটি নতুন ফোন এটি। এই ফোনে সকল ক্যামেরার মানের দিকে বিশেষ দৃষ্টি রাখা হয়েছে। এছাড়া ফোনের ডিজাইন ও আউটলুক অত্যন্ত সুন্দর হওয়ায় অনেকেরই পছন্দ হয়ে যাবে এই ফোনটি। ৬.৬ ইঞ্চির ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের সুন্দর একটি স্মুথ ডিসপ্লে আছে এই ফোনেও। সেই সাথে পারফর্মেন্স দিতে আছে অক্টা কোরের একটি প্রসেসর। এটি দৈনন্দিন কাজগুলো কোন সমস্যা ছাড়াই করে ফেলতে পারলেও গেমিংয়ের জন্য ভালো হবে না ফোনটি। এই ফোনের মূল আকর্ষণ এর পিছনের ক্যামেরা সেটআপ। ১৬ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে।

কম মেগাপিক্সেল হলেও ক্যামেরার মান ভালো হওয়ায় অনেক সুন্দর সুন্দর ছবি তোলা সম্ভব এই ক্যামেরার মাধ্যমে। এছাড়া সামনে ৮ মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে। ফোনে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট থাকায় নিরাপত্তার দিক থেকেও ফোনটি বেশ ভালো। এছাড়া আছে ৫০০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি। ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জ থাকায় দ্রুত ফোনটি চার্জও করে ফেলা যায়। ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ রয়েছে এই ফোনটির।

টেকনো স্পার্ক ১০সি (৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ) এর দামঃ ১৪,৪৯০ টাকা

👉কম দামে ভালো গেমিং ফোন সম্পর্কে জানুন

ওয়ালটন প্রিমো এস৮ মিনি – Walton Primo S8 Mini

Walton Primo S8 Mini

ওয়ালটন বাজেট গেমিং ফোন হিসেবে এই ফোনটি বাজারে এনেছে। বলা যায় ১৫ হাজার টাকা বাজেটে এটি পারফর্মেন্সের দিক থেকে অন্যতম সেরা ফোন। কেননা এতে কোয়ালকমের শক্তিশালী প্রসেসর রয়েছে। ফোনের সামনে পাবেন ৬.৫৩ ইঞ্চির একটি সুন্দর উজ্জ্বল ডিসপ্লে। সেই সাথে পারফর্মেন্স দিতে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ চিপ। এটি এই বাজেটে সেরা একটি চিপ যা অনেক শক্তিশালী গেম খেলতে ও অন্যান্য কাজে স্মুথ পারফর্মেন্স দিতে পারে। ফলে সহজেই সকল ধরণের কাজ এই ফোনের মাধ্যমে করা যায়। ১৫ হাজার টাকা বাজেটে এই চিপ দিচ্ছে না আর কোন ফোন। ৪ জিবি র‍্যামের সাথে পাবেন ৬৪ জিবি স্টোরেজ।

পিছনে ক্যামেরা হিসেবে আছে ১৬ মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা। আর সামনে ১৩ মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি ক্যামেরাও রয়েছে। ৫০০০ মিলিএম্পের বড় ব্যাটারি থাকায় ব্যাকাপ নিয়েও থাকছে না কোন চিন্তা। ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জ সুবিধাও দিয়েছে ওয়ালটন। ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ সি আধুনিক পোর্ট। কন্টেন্ট স্ট্রিমিং করতে ওয়াইডভাইন এল১ সাপোর্টও পাবেন। এছাড়া আছে ফিঙ্গাপ্রিন্ত সেন্সরের সুবিধা। সব মিলিয়ে এই বাজেটে সেরা ফিচার ও পারফর্মেন্সের ফোন এটি।

ওয়ালটন প্রিমো এস৮ মিনি (৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ) এর দামঃ ১৪,৯৯৯ টাকা

👉ওয়ালটন মোবাইলের দাম জানুন

সিম্ফনি জেড৪৭ – Symphony Z47

Symphony Z47

সিম্ফনি স্মার্টফোনের জন্য তেমন জনপ্রিয় ব্র্যান্ড না হলেও কম বাজেটে ভালো কিছু ফোন বাজারে আনে সবসময়। এমন একটি ফোন সিম্ফনি জেড৪৭। এই ফোনটিও দেখতে বেশ প্রিমিয়াম। ৬.৬ ইঞ্চির এলসিডি ডিসপ্লে পাবেন এই ফোনের সামনে। পিছনে আছে ৫২ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। ছবি তোলার ক্ষেত্রে বেশ ভালো ফোনটি। পারফর্মেন্স দিতে আছে ইউনিসকের টি৬০৬ চিপ। চিপটি সাধারণ কাজে ভালো পারফর্ম করলেও গেমিং করে আরাম পাবেন না। ফোনে আছে ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবির স্টোরেজ। এছাড়াও ৫০৩০ মিলিএম্প ব্যাটারি বেশ লম্বা সময় ফোনটি ব্যবহার করতে সাহায্য করবে। এছাড়াও ফিঙ্গারপ্রিন্ট, মাইক্রোএসডি কার্ড স্লটের সুবিধাও থাকছে।

সিম্ফনি জেড৪৭ এর দামঃ ১০,৪৯৯ টাকা

ইনফিনিক্স হট ১২ – Infinix Hot 12

ইনফিনিক্স বেশ সুলভ মূল্যে ভালো কনফিগারেশনের ফোন বাজারে আনছে। ১৫ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে তাদের অন্যতম সেরা ফোন ইনফিনিক্স হট ১২। ফোনটির ডিজাইন বেশ স্টাইলিশ। ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেকের হেলিও জি৮৫ গেমিং প্রসেসর। ফলে টুকটাক গেম খেলতে ফোনটি নিতে পারেন। গেম খেলার সুবিধার জন্য ১৮০ হার্টজ টাচ স্যামপ্লিং রেট দেয়া আছে। ৬.৮২ ইঞ্চির বড় ডিসপ্লে আছে এই ফোনে।

ডিসপ্লের সবথেকে আকর্ষণীয় ফিচার ৯০ হার্টজের রিফ্রেশ রেট যা এই বাজেটের আর কোন ফোনে নেই। তাই ফোনটি বেশ স্মুথ কাজ করে। কন্টেন্ট দেখতেও এই ডিসপ্লেটি বেশ ভালো। তাছাড়াও আছে ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং এবং ৫০০০ মিলিএম্পের ব্যাটারি। ফলে ব্যাটারি ব্যাকাপ নিয়েও চিন্তা করতে হবে না। এছাড়া পিছনে ১৩ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। ১৫ হাজার টাকা বাজেটে গেমিং ফোন চাইলে এই ফোনটি বিবেচনায় রাখতে পারেন।

ইনফিনিক্স হট ১২ এর দামঃ ১৪,৯৯৫ টাকা

আরো জানুনঃ ২০ হাজার টাকার মধ্যে সেরা স্মার্টফোন

টেকনো স্পার্ক ৮সি – Tecno Spark 8C

১৫হাজার টাকার মধ্যে বাজিমাত করার মত সব ফিচার রয়েছে টেকনো স্পার্ক ৮সি ফোনটিতে। দামে কম হলেও ফোনটির ফিচারের দিক দিয়ে কোনো ধরণের ছাড় দেয়নি টেকনো। এছাড়া বাজটের মধ্যে ফোনের বাড়তি স্টোরেজ কাজে আসবে যেকোনো ধরনের ব্যবহারকারীর।

সস্তায় টেকনো স্পার্ক ৮সি স্মার্টফোন দিচ্ছে দারুণ সুবিধা

টেকনো স্পার্ক ৮সি এর ডিসপ্লে ৬.৬ ইঞ্চি ও ৯০ হার্টজ এর। ব্যাক ক্যামেরা হিসেবে থাকছে ১৩মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা ও ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে ৮মেগাপিক্সেল এর। টেকনো স্পার্ক ৮সি এর ব্যাটারি ৫০০০ মিলিএম্প এর।

টেকনো স্পার্ক ৮সি ফোনটির

  • ৩জিবি র‍্যাম ও ৬৪জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১১৯৯০টাকা
  • ৪জিবি র‍্যাম ও ১২৮জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৩৪৯০টাকা

👉 টেকনো মোবাইলের দাম জেনে নিন

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস- Samsung Galaxy M02s

স্যামসাং এর মোবাইল যাদের পছন্দ, তাদের জন্য স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস ডিভাইসটি অসাধারণ একটি চয়েজ হতে পারে। ফোনটিতে রয়েছে ১৩মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ। ৪জিবি র‍্যাম ও ৬৪জিবি স্টোরেজের এই ফোনটিতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৫০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে।

Samsung Galaxy M02s

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস ফোনটিতে ৫০০০মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি রয়েছে। তবে অদ্ভুত কোনো কারণে ফোনটিতে ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর দেয়নি স্যামসাং, যা আজকালকার সকল দামের ফোনেই একটি অত্যাবশ্যকীয় ফিচার। তবে ফেস আনলক ফিচার ঠিকই রয়েছে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস এর দামঃ ১২,৯৯৯টাকা

রিয়েলমি নারজো ৩০এ – Realme Narzo 30A

রিয়েলমি নারজো সিরিজের রিয়েলমি নারজো ৩০এ যেকোনো দামের স্মার্টফোন এর লিস্টেই সেরার কাতারে থাকবে কম দামে অসাধারণ স্পেসিফিকেশন এর জন্য। ৬০০০ মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি ও মিডিয়াটেক এর হেলিও জি৮৫ প্রসেসর এর রিয়েলমি নারজো ৩০এ দেশের বাজেট গেমারদের প্রথম পছন্দ হতে পারে।

রিয়েলমি নারজো ৩০এ
রিয়েলমি নারজো ৩০এ

গেমিং-সেন্ট্রিক ফোন হওয়ায় ফোনটির প্রধান ফোকাস এর চিপসেটেই থাকছে। রয়েছে ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট। ১৩ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরার ফোন রিয়েলমি নারজো ৩০এ ফোনটিতে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেলের সেল্ফি ক্যামেরা।

রিয়েলমি নারজো ৩০এ এর দামঃ ১২,৯৯০ টাকা

আরো জানুনঃ কম দামে ভালো ফোন

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো – Tecno Spark 7 Pro

সাধ্যের মধ্যে সবটুকু সুখ এর অনন্য উদাহরণ টেকনো ব্র‍্যান্ড এর টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো ফোনটি। অসাধারণ ডিজাইন এর সাথে ৪৮ মেগাপিক্সেল ট্রিপল ক্যামেরা আর ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেটযুক্ত ৬.৬ ইঞ্চির ডিসপ্লে মিলিয়ে যেকোনো ধরনের ব্যবহারকারীর জন্য অসাধারণ একটি প্যাকেজ এই ফোনটি।

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো
টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো ফোনটিতে প্রসেসর হিসেবে রয়েছে হেলিও জি৮০, যা বাজেটের মধ্যে অসাধারণ গেমিং পারফরম্যান্স দিতে সক্ষম। এছাড়াও ৫০০০ মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি রয়েছে ফোনটিতে। টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো এর ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ পাওয়া যাবে ১৩,৪৯০ টাকায়। অন্যদিকে ৬ জিবি র‍্যামের ভ্যারিয়েন্টটি পাওয়া যাবে ১৪,৯৯০ টাকায়।

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো এর দামঃ ১৩,৪৯০ টাকা।

১৫ হাজার টাকার মধ্যে আপনার পছন্দের সবচেয়ে সেরা ও ভালো মোবাইল স্মার্টফোন কোনটি? আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে। 

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,586 other subscribers

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *