গুগল গ্লাস সফলভাবে “রুট” করল হ্যাকাররা !

google-glass-545747মাত্র কয়েকদিন আগেই সীমিত কিছু আগ্রহী ব্যক্তি প্রাথমিক এপ ডেভলপমেন্ট ও পরীক্ষা-নীরিক্ষার জন্য ১৫০০ ডলারের বিনিময়ে গুগলের অত্যাধুনিক স্মার্টগ্লাসের এক্সপ্লোরার এডিশন হাতে পেয়েছেন। তবে এই পরিমাণ অর্থ খরচ করার পরেও গুগলের দাদাগিরি থেকে রেহাই পাননি ক্রেতারা। কোম্পানিটি স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছে, এক্সপ্লোরার এডিশনের কোন ক্রেতা এটি অন্য কারো নিকট বিক্রি করে দিলে ডিভাইসটি ডিএক্টিভেট করে দেবে গুগল। কিন্তু তাই বলে ব্যয়বহুল এই স্মার্টগ্লাসটি নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট থেমে থাকেনি। কেউ কেউ তো এটিকে হ্যাক করেই ফেলেছেন!

গুগলের দাদাগিরির ভালই জবাব দিল হ্যাকাররা!

গুগল গ্লাসে ব্যবহৃত এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে ইতোমধ্যেই রুট (এক্সেস অর্জন) করা সম্ভব হয়েছে। ফরবেস জানাচ্ছে, বিখ্যাত আইওএস জেইলব্রেকার জে ফ্রিম্যান গুগল গ্লাসে পুরোপুরি এক্সেস হাতিয়ে নিয়েছেন। বাইনারি (B1nary) নামের আরেকজন হ্যাকার কর্তৃক প্রথম চিহ্নিত এন্ড্রয়েড ৪.০ ওএসের একটি ট্রিক ব্যবহার করে ডিভাইসটি ক্র্যাক করেছেন তিনি।

মিঃ ফ্রিম্যান বলছেন, এটি একটি সাধারণ কাজ ছিল যা সম্পন্ন করতে মাত্র কয়েক ঘন্টা সময় লেগেছে। এক্ষেত্রে গুগল গ্লাস সিস্টেমকে আসল হার্ডওয়্যারের বদলে একটি এম্যুলেশন বলে বুঝিয়ে বোকা বানানো হয়। যেহেতু পরীক্ষামূলক কাজে এম্যুলেশন ব্যবহৃত হয়ে থাকে, তাই এই অবস্থায় এতে সকল পারমিশন চালু থাকে এবং রুট এক্সেস পাওয়া যায়।

ফ্রিম্যান ছাড়াও লিয়াম ম্যাক লাফলিন নামের অন্য একজন ডেভলপার গুগলের স্মার্ট গ্লাস রুট করেছেন। উভয় জেইলব্রেকই গ্লাসটির বর্তমান এক্সপ্লোরার এডিশনে সম্পন্ন হয়েছে। কিন্তু চূড়ান্ত কনস্যুমার ভার্সনেও এভাবে রুট সম্ভব হবে কিনা সেটি স্পষ্ট নয়। তবে ১৫০০ ডলার দামের এই ডিভাইসটি বিক্রি করেও এর ওপর গুগল যে পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ স্থাপন করতে চেয়েছিল তার প্রতি ভালই জবাব হয়ে থাকবে এই হ্যাকিংয়ের ঘটনা।

ইতোপূর্বে চলতি বছরের শেষ নাগাদ গুগল গ্লাসের পাবলিক এডিশন বাজারে আসার কথা শোনা গেলেও সাম্প্রতিক তথ্যানুযায়ী ডিভাইসটির উপলভ্যতা ২০১৪ পর্যন্ত গড়াতে পারে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,949 other subscribers

Comments