মেইজু আনলো মিডরেঞ্জ ফ্ল্যাগশিপ মেইজু ১৫ স্মার্টফোন সিরিজ

By -

অন্যান্য চায়নিজ স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের সাথে মেইজু তাদের স্মার্টফোন বিজনেস নিয়ে ভালোই এগিয়ে যাচ্ছে। একসময় চীনের বাইরে খুব নামডাক না শোনা গেলেও বর্তমানে বাংলাদেশ সহ এশিয়ান ও ইউরোপিয়ান মার্কেটে নিজেদের অবস্থান বেশ ভালোভাবেই জানান দিচ্ছে মেইজু। বিশেষ করে কোম্পানিটির ফোনগুলোর ডিজাইন ও নিজস্ব ফ্লাইমি ইউআই তাদের অনন্য করেছে। ওদিকে কোম্পানি হিসেবে মেইজুর বয়সও কিন্তু কম না। এই বছরই তারা ১৫ বছর পূর্ণ করল। আর এরই ধারাবাহিকতায় ১৫ বছর পূর্তিতে মেইজু নিয়ে আসলো কোম্পানিটির স্পেশাল স্মার্টফোন মেইজু ১৫ সিরিজ।

মেইজু এর আগে ডুয়াল ডিসপ্লে সহ অনেক ইউনিক ডিজাইনের স্মার্টফোন নিয়ে এলেও সিরিজ ১৫ এর ক্ষেত্রে তারা বেজেললেস এর এই যুগে এসেও গতানুগতিক বড় বেজেল ও চিনওয়ালা ডিজাইন ই বেছে নিয়েছে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 2,019 other subscribers

১৫ সিরিজের মোট ৩টি স্মার্টফোন লঞ্চ করেছে মেইজু। প্রথমটি হলো মেইজু ১৫ প্লাস, যাতে থাকছে ৫.৯৫ ইঞ্চি ১৪৪০ পিক্সেল স্যামসাং এর তৈরি সুপার এমোলেড  ডিসপ্লে। তারপর আছে মেইজু ১৫ এবং তুলনামূলক সস্তা মেইজু ১৫ লাইট। এদের উভয়ের ডিসপ্লে ৫.৪৬ ইঞ্চি (ফুল এইচডি)। কিন্তু মেইজু ১৫ লাইটে এমোলেড ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয় নি (এলসিডি দেয়া হয়েছে)।

সবচেয়ে শক্তিশালী মেইজু ১৫ প্লাসে ব্যবহৃত হয়েছে স্যামসাং এর এক্সিনস ৮৮৯৫ চিপ যা গত বছর স্যামসাং তাদের গ্যালাক্সি এস৮ এ ব্যবহার করেছিলো। তাই এটার পারফরমেন্স নিয়ে কোন প্রশ্নই থাকবে না আশা করা যায়। এর সাথে দেয়া হয়েছে ৬ জিবি র‍্যাম।

মাঝারি মানের মেইজু ১৫ এ কোয়ালকমের মিডরেঞ্জ চিপ এসডি ৬৬০ ব্যবহার করা হয়েছে। আর সাথে রয়েছে ৪ জিবি র‍্যাম। এটা পারফরমেন্স ও ব্যাটারি ব্যাকআপ দুই দিক থেকেই খুব ভালো।

আর সবশেষে মেইজু ১৫ লাইটে আছে ২০ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা, স্ন্যাপড্রাগন ৬২৬ ও ৪ জিবি র‍্যাম এর কম্বিনেশন।

মেইজু ১৫ প্লাস ও ১৫ উভয় ফোনেই রয়েছে ১২ ও ২০ মেগাপিক্সেলের  সনি সেন্সরযুক্ত ডুয়াল ব্যাক ক্যামেরা সেটআপ। তিনটি ফোনেই ব্যবহৃত হয়েছে ২০ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা এবং ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক। সামনের দিকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরে বিশেষ এক ধরনের ভাইব্রেটর দেয়া হয়েছে যা আপনাকে ফিজিক্যাল হোম বাটন প্রেস করার অনুভূতি দিবে। ৬৪ থেকে ১২৮জিবি, বিভিন্ন স্টোরেজ ক্যাপাসিটি নিয়ে বাজারে আসবে ফোনগুলো।

এই সবগুলো ফোন মেইজুর এন্ড্রয়েড বেইজড কাস্টম রম ফ্লাইমি ওএস এর লেটেস্ট ভার্সন ৭ প্রিলোডেড অবস্থায় আসবে। গতবছর মেইজু তাদের বাজেট ফোন মেইজু প্রো ৬ দিয়ে চায়না এমনকি বাংলাদেশের বাজারেও ভালো সাড়া ফেলেছিল। আশা করা যাচ্ছে এবারো তারা নতুন চমক নিয়েই আসছে।

মেইজু ১৫ প্লাস এর দাম শুরু  হবে ৪৭৫ ডলার থেকে। মেইজু ১৫ এর দাম ৪০০ ডলার থেকে এবং ১৫ লাইটের দাম ২৭০ ডলার থেকে শুরু। খুব শীঘ্রই চায়নাতে প্রিঅর্ডার নেয়া শুরু হবে ফোনগুলোর। চাহিদা থাকলে হয়ত এর পর পর বাংলাদেশের বিক্রেতারাও নিয়ে আসবেন মেইজু ১৫ সিরিজ।

     
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *