ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গার্ড কী? এটা কি আসলেই কাজ করে?

By -

প্রোফাইল পিকচার গার্ড

ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গার্ড ফিচার চালু করেছে প্রায় এক বছর হতে চলল। প্রথমে শুধু ভারতীয়দের জন্য এই ফিচার ব্যবহারের সুযোগ থাকলেও বর্তমানে বাংলাদেশ সহ বেশ কিছু দেশেই ফেসবুক সুবিধাটি উন্মুক্ত করে দিয়েছে। ফেসবুকের দাবি অনুযায়ী গ্রাহকদের প্রোফাইল ইমেজের সুরক্ষা দিতেই তারা ফিচারটি চালু করেছে। আজকাল বাংলাদেশেও অনেকেই এই ফিচার ব্যবহার করছেন। তবে বাস্তবতা হলো, অনেকেই প্রোফাইল পিকচার গার্ড ব্যবহারের কারণ না জেনেই শুধুমাত্র প্রোফাইল পিকচারে একটি নীল রঙের ফ্রেম পাওয়ার উদ্দেশ্যে এটি ব্যবহার করছেন। আবার অনেকে হয়তো এই ফিচারটি সম্পর্কেই জানেনই না। তো চলুন জেনে নিই ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গার্ড এর বিস্তারিত।

প্রোফাইল পিকচার গার্ড কী?

ভারত সহ আমাদের উপমহাদেশের অনেক নারীকেই দেখা যায় তাদের ছবির অনৈতিক ব্যবহারের ভয়ে ফেসবুকে নিজের ছবি আপলোড করেন না। কিন্তু ফেসবুকের পলিসি সবাইকেই নিজের প্রকৃত পরিচয় ব্যবহারে উৎসাহ দিয়ে থাকে। এই উভয় সংকট দূর করতেই মূলত প্রোফাইল পিকচার গার্ড চালু করেছে ফেসবুক। আপনি যখন আপনার ফেসবুক প্রোফাইল পিকচারে গার্ড ব্যবহার করবেন তখন সাধারণ অবস্থায় কেউ আপনার প্রোফাইল পিকচারটি ওপেন করতে কিংবা ডাউনলোড করতে পারবে না। শুধুমাত্র ছোট থাম্বনাইল আকারেই দেখতে পারবে। এই ফিচারটি নারীরা বেশি ব্যবহার করলেও নারী পুরুষ সকলের জন্যই ফিচারটি উন্মুক্ত। (এবং অনেকে আবার ফুল/ফল এমনকি নায়ক/নায়িকাদের ছবি নিজের প্রোফাইল পিকচার হিসেবে সেট করেও তাতে গার্ড লাগায়! ব্যাপারটা নিঃসন্দেহে অদ্ভুত। সেদিকে নাইবা গেলাম!)

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 2,460 other subscribers

কীভাবে কাজ করে ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গার্ড?

ফেসবুকের মতে এটি তিনটি ধাপে আপনার প্রোফাইল পিকচারকে সুরক্ষা দেয়। প্রথমত, এটি আপনার ছবি কাউকে শেয়ার, ডাউনলোড কিংবা মেসেঞ্জারে সেন্ড করতে দিবে না। দ্বিতীয়ত, আপনার গার্ডযুক্ত প্রোফাইল পিকচারে আপনার বন্ধু নয় এমন কেউ কাউকে ট্যাগ করতে পারবে না। তৃতীয়ত, এটা আপনার প্রোফাইল পিকচারে নীল রং এর ব্যাজযুক্ত ফ্রেম সংযুক্ত করে দিবে যা আপনার ছবি অন্য কাউকে কপি করা থেকে বিরত থাকতে সংকেত দেবে। ফেসবুকের মতে এটা আপনার ছবি কপি হওয়ার সম্ভাবনা ৭৫ শতাংশ কমিয়ে দেয়।

কীভাবে ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গার্ড চালু করবেন?

আপনি এই ফিচারটি ব্যবহার না করলে ফেসবুক নিজেই বিভিন্ন পপ-আপ নোটিফিকেশনের মাধ্যমে এটি চালু করার কথা মনে করিয়ে দিবে। চাইলে আপনি নিজেও নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে গিয়ে প্রোফাইল পিকচারের ওপর ক্লিক/ট্যাপ করে অপশন থেকে এই ফিচার চালু করতে পারবেন। অথবা সরাসরি https://www.facebook.com/?profile_picture_guard=1 লিংকে ভিজিট করেও আপনার বর্তমান প্রোফাইল পিকচারের জন্য গার্ড চালু করতে পারবেন। বাড়তি সুরক্ষার জন্য নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে গিয়ে প্রোফাইল পিকচারের ওপর ক্লিক/ট্যাপ করে অপশন থেকে ‘অ্যাড এ ডিজাইন’ সিলেক্ট করে ছবির ওপর জলছাপ দিয়ে দিতে পারেন। ফলে এই ছবির স্ক্রিনশট নিলেও সেখানে জলছাপ দেখা যাবে। এই সবকিছুই ফেসবুকের মূল এন্ড্রয়েড অ্যাপ এবং মোবাইল ব্রাউজারে সহজে করতে পারবেন। অনেকসময় পিসি বা ফেসবুক লাইট অ্যাপে ফিচারগুলো নাও পেতে পারেন।

আপনি চাইলে প্রোফাইল পিকচার অপশনে গিয়ে পরে এগুলো আবার বন্ধও করতে পারবেন।

ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গার্ড কতটুকু কার্যকরী?

প্রথমেই বলে রাখছি, এই ফিচারটি আপনার প্রোফাইল পিকচারের শতভাগ গোপনীয়তার নিশ্চয়তা দিবেনা। কারণ বিভিন্ন থার্ড পার্টি ব্রাউজার যেমন অপেরা মিনি, ইউসি ব্রাউজার অথবা পিসিতে বিভিন্ন টুল বা অ্যাড-অন ব্যবহার করে আপনার প্রোফাইল পিকচার ডাউনলোড করা সম্ভব। এছাড়া স্ক্রিনশট নেয়াও যায়। তবে ফেসবুক এই টুলটির আরো উন্নয়নের চেষ্টা করে যাচ্ছে এবং এই ফিচারটি ব্যবহারকারীদের কাছেও যথেষ্ট সাড়া ফেলেছে। ফেসবুক প্রোফাইল পিকচার গার্ড ব্যবহার করলে অন্তত ফেসবুকের অভ্যন্তরে আপনার প্রোফাইল ইমেজের অনেকটাই সুরক্ষা দেয়া সম্ভব। কিন্তু যেহেতু প্রোফাইল পিকচার পাবলিক থাকে, তাই এটা অন্যের হাতে যাওয়া কোনোভাবেই ঠেকানো যাবেনা।

আরো পড়ুনঃ ফেসবুক টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করে হ্যাকিং থেকে সুরক্ষিত থাকুন!

এছাড়া আপনার ফেসবুক অ্যালবামে থাকা অন্যান্য ছবি প্রাইভেসি সেটিংস অনুযায়ী ব্যবহারকারীদের নিকট প্রদর্শিত হবে। সেখানে কিন্তু এরকম কোনো গার্ড নেই। সুতরাং ফেসবুকে আপলোডকৃত অন্য ছবিগুলো থেকেও আপনার ছবি অন্যের হাতে চলে যেতে পারে। তাই, শুধু প্রোফাইল পিকচার গার্ড চালু করলেই ফেসবুকে নিজের ফটোর নিরাপত্তা দেয়া সম্ভব হবেনা। তবে এই গার্ড চিহ্নটি একটি বার্তা, যে আপনি আপনার ছবিটির গোপনীয়তার ব্যাপারে সচেতন।

বোনাসঃ যেভাবে ফেসবুকে আপনার পাঠানো ফ্রেন্ড রিকোয়েস্টগুলো দেখবেন

আমাদের ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুন!

     
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Comments