সফলভাবে সংস্থাপিত হল গবেষণাগারে তৈরি প্রথম কিডনি

lab grown kidneyযুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস জেনারেল হাসপাতালের গবেষকরা পরীক্ষাগারে তৈরি কিডনি কতিপয় ইঁদুরের শরীরে সফলভাবে সংস্থাপন করতে সক্ষম হয়েছেন। কোন প্রাণীদেহে গবেষণাগারে বেড়ে ওঠা কিডনি সংস্থাপন এটাই প্রথমবারের মত ঘটল, যা ভবিষ্যতে মানুষের ক্ষেত্রেও প্রয়োগ করার সম্ভাবনার দিকে হাতছানি দিচ্ছে। গবেষণাগারে জৈবিক অঙ্গপ্রত্যঙ্গ তৈরির ক্ষেত্রে এটি এক মাইলফলক হয়ে থাকবে।

বিজ্ঞানী হ্যারাল্ড অট এবং তার দল পরীক্ষাগারে কোন প্রকার প্রাণীদেহের বাহিরে “বায়োরিএক্টর” এর অভ্যন্তরে সম্পুর্ণ নতুন এবং কর্মক্ষম কিডনি উৎপাদন করেছেন। এসব বায়োরিএক্টরে প্রয়োজনীয় পরিমাণ অক্সিজেন এবং নিউট্রিয়েন্ট সরবারহ করা হয়েছিল।

গবেষণাগারে জৈবিক অঙ্গ উৎপাদন অসংখ্য জীবনকে সহজ করে তুলবে

কিডনিগুলো সঠিক পর্যায়ে বেড়ে ওঠার পর তা থেকে কয়েকটি নিয়ে কতিপয় ইঁদুরের দেহে সংস্থাপন করা হয়। গবেষকরা বলেছেন, নতুন কিডনিসমূহ কোন প্রকার সমস্যা ছাড়াই ইঁদুরগুলোর শরীরের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে পেরেছে এবং অনেকটা প্রাকৃতিকভাবে প্রাপ্ত অঙ্গের মতই কাজ করছে, যদিও এর আরও উন্নয়ন প্রয়োজন।

অবশ্য, উক্ত গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী নতুন কিডনি তৈরি করার জন্য ডাক্তার অটের টিম এখনও দাতার উপর নির্ভরশীল। তবে (সম্ভবত) আপনি যেমনটি ভাবছেন সেভাবে নয়। এক্ষেত্রে জীবিত বা মৃত ইঁদুরের দেহ থেকে অকার্যকর কিডনি সংগ্রহ করে সেগুলোর কোষ নিয়ে বিশেষ থ্রিডি কাঠামোর মধ্যে নিয়ে “রি-সীড” করা হয়।

মিঃ অটের মতে, উক্ত পরীক্ষা থেকে সংশ্লিষ্ট গবেষকরা নতুন অনেক কিছু জানতে পেরেছেন যা পরবর্তীতে আরও বড় আকারের প্রকল্প নিতে সহায়তা করবে। হ্যারাল্ড অট জানান তারা “ট্রায়াল এন্ড এরর” প্রক্রিয়ায় এতদূর আসতে পেরেছেন। ইঁদুরের ক্ষেত্রে এমন সাফল্যের পর একই মূলনীতিতে কোন একদিন মানবদেহেও কিডনি সংস্থাপন সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,949 other subscribers

Comments