অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো এলো আইফোনের সাথে টেক্কা দিতে!

ইমেজ প্রসেসিং এর ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য উন্নতি নিয়ে চলে এলো অপো ফাইন্ড এক্স৫ সিরিজ। এই সিরিজের প্রধান আকর্ষণ হলো ফ্ল্যাগশিপ মডেল, অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো। ভ্যানিলা মডেল অপো ফাইন্ড এক্স৫ এ একই ক্যামেরা সেন্সর ব্যবহার করা হলেও তাতে প্রসেসর হিসেবে রয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮। এই পোস্টে অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো সম্পর্কে বিস্তারিত জানবেন।

ফাইন্ড এক্স৩ সিরিজের মডেলগুলোর মত এক্স৫ সিরিজের ফোনেও আইএমএক্স৭৬৬ সেন্সরের ৫০মেগাপিক্সেলের দুইটি ক্যামেরা (ওয়াইড ও আলট্রাওয়াইড) রয়েছে। তবে উন্নতি এসেছে সাপোর্ট হার্ডওয়্যার ও প্রসেসিং এলগরিদমের ক্ষেত্রে, যার ফলে এই ক্যামেরা সিস্টেম একই হওয়ার পরও আরো এডভান্সড আউটপুট প্রদান করে। এই ফোনটি মূলত বাজারের অন্যান্য ফ্লাগশিপ ফোন যেমন আইফোন ১৩, পিক্সেল ৬, এবং গ্যালাক্সি এস ২২ সিরিজের সাথে প্রতিযোগিতা করবে।

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে কাস্টম ম্যারিসিলিকিন এক্স চিপ, যার ফলে এসেছে বিভিন্ন উন্নতি। ৪কে আলট্রা নাইট ভিডিও যুক্ত হয়েছে, যাতে বেশ কম নয়েজ ও সাধারণ নাইট ভিডিও এর চেয়ে ভালো কালার দেখা যাবে।

ওয়াইড ও আলট্রাওয়াইড, উভয় ক্যামেরার ক্ষেত্রে এই ফিচার প্রযোজ্য। কাস্টম চিপের কল্যাণে ২০-বিট পার চ্যানেল এইচডিআর ভিডিও রেকর্ড করতে সক্ষম এই ফোন, এমনটিই জানা গেছে।

অপো ও হ্যাসেলব্লেড এর নতুন পার্টনারশিপের অংশ হিসেবে অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটিতে হ্যাসেলব্লেড এর প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটির প্রো মোডে হ্যাসেলব্লাড ন্যাচারাল কালার ক্যালিবারেশন ফিচার রয়েছে যা ১৩-চ্যানেল কালার সেন্সরের সাহায্য কাজ করে।

এছাড়া ক্যামেরাতে গ্লাস ফ্রন্ট এলিমেন্ট ব্যবহার করা হয়েছে যা কালার অ্যাকুরেসি ইম্প্রুভ করার পাশাপাশি কমাবে ক্রোমাটিক অ্যাবেরেশন।

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো এর মেইন ক্যামেরা সেন্সরটিতে ৫-অক্ষবিশিষ্ট অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন সিস্টেম রয়েছে যা লেন্স ও সেন্সর শিফট প্রযুক্তিকে একসাথে করে। এই ধরনের প্রযুক্তি মোবাইলে এই প্রথম ব্যবহার হচ্ছে বলে জানায় অপো।

এই অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন ছবি ও ভিডিও, উভয়ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। টেলিফটো ক্যামেরার ক্ষেত্রে এক্স৩ এর মতো একই সেন্সর থাকছে অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটিতেও। 

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো এর সেল্ফি ক্যামেরাতে রয়েছে সনি’র কাস্টম আইএমএক্স৭০৯ সেন্সর যাতে আরজিবিডব্লিউ সাব-পিক্সেল রয়েছে। এই সাব-পিক্সেল এর জন্য প্রায় ৬০শতাংশ অধিক লাইট পৌঁছাতে পারে সেন্সরে। এছাড়াও ক্যামেরার ডিফল্ট ফিল্ড অফ ভিউ ৮০ডিগ্রি হলেও গ্রুপ সেল্ফির ক্ষেত্রে ফিল্ড অফ ভিউ অটোমেটিক ৯০ডিগ্রি হয়ে যায়।

এইতো গেলো অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটির ক্যামেরানামা। এবার কথা বলা যাক ফোনটির অন্যসব কম্পোনেন্ট সম্পর্কে। ৬.৭ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে যা আবার ১ হার্জ থেকে ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের মধ্যে রিফ্রেশ রেট এডজাস্ট করতে পারে।

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো

ফোনটির ডিসপ্লের ব্রাইটনেস সর্বোচ্চ ১,৩০০নিট পর্যন্ত হতে পারে। অর্থাৎ যেকোনো ধরনের পরিস্থিতিতে অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো এর ডিসপ্লের ভিজিবিলিটি নিয়ে কোনো সমস্যা হবেনা।

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটিতে ৫,০০০মিলিএম্প এর ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। ওয়্যারড ও ওয়্যারলেস উভয় ক্ষেত্রে বেশ দ্রুত চার্জিং এর ফিচার থাকছে ফোনটির ক্ষেত্রে৷ ফোনটি ৮০ওয়াট সুপারভুক চার্জিং সাপোর্ট করে, যা মাত্র ১২মিনিটে ফোনটিকে অর্ধেক চার্জ করতে সক্ষম৷ অন্যদিকে ৫০ ওয়াটের এয়ারভুক ওয়্যারলেস চার্জার দ্বারা ফোনটি মাত্র ৪৭মিনিটে ফুল চার্জ করা যাবে।

ফাস্ট চার্জিং নিয়ে সকলের মধ্যে কিছুটা দ্বিধা কাজ করে সে সম্পর্কে অবগত রয়েছে অপো। তাই অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটিতে ব্যাটারি হেলথ ইঞ্জিন ফিচার রাখা হয়েছে যা ফোনটির ব্যাটারির কার্যক্ষমতা চার্জের সাথে রক্ষা করবে।

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো

৩ডি গ্রাফিন ফিল্ম ফোনটির চার্জিং কয়েল ও মাদারবোর্ড কভার করে আছে যা ফোনটির ব্যাটারির দীর্ঘমেয়াদ নিশ্চিত করবে। অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটিতে ডলবি এটমোস সাপোর্টড স্টিরিও স্পিকার রয়েছে। ফোনটিতে একটি মাত্র ওয়্যারড পোর্ট রয়েছে, যা হলো ইউএসবি-সি পোর্ট।

👉 অপো ফোনের দাম ২০২২

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটি মার্চের ১৪তারিখ থেকে বিক্রি শুরু হবে। এই ৫জি ফোনটি ১২জিবি র‍্যাম ও ২৫৬জিবি স্টোরেজ মডেলে পাওয়া যাবে ১,৩০০ইউরো দামে। সিরামিক হোয়াইট ও গ্ল্যাজ ব্ল্যাক – এই দুইটি রংয়ে পাওয়া যাবে অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো ফোনটি।

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো

অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো এর স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ
    • ৬.৭ইঞ্চি অ্যামোলেড
    • ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১
  • র‍্যামঃ ১২জিবি
  • স্টোরেজঃ ২৫৬জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ
    • ৫০মেগাপিক্সেল মেইন সেন্সর
    • ১৩মেগাপিক্সেল টেলিফটো
    • ৫০মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প
  • চার্জিংঃ
    • ৮০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং
    • ৫০ওয়াট ফাস্ট ওয়্যারলেস চার্জিং
    • ১০ওয়াট রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং

আপনার কাছে কেমন লেগেছে অপো ফাইন্ড এক্স৫ প্রো? ফোনটি সম্পর্কে আপনার মতামত আমাদের জানান কমেন্ট সেকশনে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,060 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.