১০ বছর চার্জ থাকবে যে ব্যাটারিতে!

বর্তমানে আমাদের দিনের অনেকটাই কেটে যায় ব্যাটারি চালিত ডিভাইসের ওপর। স্মার্টওয়াচ, স্মার্টব্যান্ড, স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট থেকে শুরু করে আইপিএস পর্যন্ত সবখানেই ব্যাটারির দুর্দান্ত ব্যবহার। কিন্তু রিচার্জেবল এসব ব্যাটারির চার্জ যদি আশানুরূপ না টিকে তাহলে আক্ষেপের আর সীমা থাকেনা।

এই ২০১৭ সালে এসে মানুষ যখন জ্ঞানবিজ্ঞানের দারুণ উন্নতি উপভোগ করছে, সেখানে প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যাটারির ক্ষেত্রে তেমন খুব বেশি উন্নয়ন চোখে পড়েনা। আগে ফিচার ফোনে গড়ে দেড়-দুইদিন পর পর চার্জ দিতে হত, আর এখন স্মার্টফোনে সকাল-বিকাল চার্জ দিতে হয়। তুলনামূলক ধারণক্ষমতা বাড়লেও ব্যবহার অনুসারে দক্ষতা সেরকম বাড়ছে, একথা জোড় দিয়ে বলা যাবেনা।

ব্যাটারির চার্জ ধারণক্ষমতা নিয়ে নতুন একটি সুখবর নিয়ে এসেছেন যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক। তারা এমন এক ধরনের ব্যাটারি উদ্ভাবন করেছেন, যেটি ১০ বছর কিংবা তারও বেশি সময়ব্যাপী চার্জ ধরে রাখতে সক্ষম!

চমৎকার দীর্ঘস্থায়ী পারফর্মেন্স দেয়া এই ব্যাটারিগুলো ব্যবহারের ক্ষেত্রে ঝুঁকিও কম। এগুলো লিথিয়াম ব্যাটারির মত কোনো ক্ষতিকর রাসায়নিক দ্রব্য বহন করেনা।

ফ্লো ব্যাটারি (flow battery) নামের এই তড়িৎ কোষগুলো বিশেষ একপ্রকার তরল দ্রবণের মধ্যে চার্জ ‘জমা’ করে। এই দ্রবণের আরও উন্নয়ন সাধন করে একে এমন অবস্থায় আনা সম্ভব যে ১০০০ চার্জ/ডিসচার্জ সাইকেলেও এর মাত্র ১ শতাংশ ক্যাপাসিটি খরচ হবে। যেখানে বর্তমানে বিদ্যমান একটি লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি সারা জীবনে মাত্র ১০০০ এর মত চার্জ/ডিসচার্জ সাইকেল পর্যন্ত টিকে।

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐ বিজ্ঞানীরা আরও জানিয়েছেন, এই ফ্লো ব্যাটারিগুলো তৈরিতে লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির চেয়ে কম খরচ হবে। তারা বর্তমানে এগুলো শিল্পক্ষেত্রে ব্যবহারের উপযোগী করার জন্য কাজ করছেন। নিত্য-ব্যবহার্য ডিভাইসের পাশাপাশি এগুলো বিদ্যুৎকেন্দ্রেও ব্যবহৃত হতে পারবে বলে আশা করছেন তারা।

তবে এ ধরনের নতুন নতুন চমকপ্রদ আবিষ্কারকে আমাদের মত সাধারণ ব্যবহারকারীদের হাতে আসতে বেশ লম্বা পথ পাড়ি দিতে হয়। ১ মাস, দুই মাস, দুই বছর চার্জ টিকবে এরকম খবর এর আগেও বহুবার আমরা পড়েছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত যেই লাউ, সেই কদু। অর্থাৎ এখনও আমাদের ঠিকই সেই সকাল-সন্ধ্যা মোবাইল চার্জে দিতে হয়।

সুতরাং আপাতত এক চার্জে স্মার্টফোনে সপ্তাহখানেক চার্জ টিকলেই আমি খুশি! বর্তমানে সাধারণত দিনে একবার ফোনে ফুল চার্জ দিতেই হয়। আপাতত এতে এক সপ্তাহ করে চার্জ টিকলেই হবে। সামনের বছর নাহয় মাস/বছরের হিসেব করা যাবে!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,039 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.