কেমন আছে নকিয়া?

nokia 3d

মাইক্রোসফটের নিকট নকিয়া তাদের ফোন ব্যবসা বিক্রি করে দেয়ার পরেও ফিনল্যান্ডের এই কোম্পানিটি বিভিন্ন সময়ে ঘুরেফিরে খবরের শিরোনাম হয়েছে। কখনও ম্যাপিং সার্ভিস নিয়ে, কখনওবা বিশাল পেটেন্ট সংগ্রহ নিয়ে। সম্প্রতি তারা স্পটলাইটে এসেছে সাড়া জাগানো নকিয়া এন১ এন্ড্রয়েড ট্যাবলেট নিয়ে। কিন্তু সবকিছুর পরেও, নকিয়াকে আমরা মোবাইল ফোন কোম্পানি হিসেবেই চিনেছি। আর নকিয়া তাদের সেই মোবাইল ডিভিশন বিক্রি করেছে মাইক্রোসফটের কাছে।

গতকাল অ্যাপলের সম্ভাব্য কিছু নতুন পণ্য সম্পর্কিত একটি পোস্ট পড়ে আমাদের একজন পাঠক জানতে চেয়েছিলেন, নকিয়ার কোনো খবর আমাদের কাছে আছে কিনা। হতে পারে ঐ পাঠক নকিয়ার একজন ভক্ত, আর তাই বিদায় নেয়া প্রিয় ব্র্যান্ডের খবর জানার জন্যই তিনি উক্ত মন্তব্য করেছেন।

মোবাইল ফোন বিহীন সময়ে কেমন আছে নকিয়া?

মোবাইল ফোন বিহীন দিনগুলিতে এখন কেমন আছে নকিয়া? হয়ত আপনার মনেও মাঝে মাঝে এই প্রশ্ন জাগে। আগামীকাল ভোরে আমাদের ফেসবুক পেইজ থেকে ব্রেকিং নিউজে যদি নকিয়ার ৪১ মেগাপিক্সেল পিওরভিউ ক্যামেরাযুক্ত নতুন স্মার্টফোন আসার খবর দেখতে পান, তাহলে আপনার হয়ত বেশ আনন্দ হবে।

….. কিন্তু সেই সময় এখন আর নেই নকিয়ার।

মাইক্রোসফটের সাথে সর্বশেষ চুক্তির অংশ হিসেবে ৭.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার লেনদেনের ফলে নকিয়ার মালিকানাধীন “লুমিয়া” ও “আশা” ট্রেডমার্কও চলে গেছে মাইক্রোসফটের ঝুলিতে। অবশ্য “নকিয়া” ট্রেডমার্ক ফিনিশ কোম্পানিটিরই থেকে যাবে। ডিলের টার্মস এন্ড কন্ডিশনস অনুসারে, “নকিয়া” ট্রেডমার্ক ব্যবহার করে ১০ বছরের একটি লাইসেন্স এগ্রিমেন্টের আওতায় শুধুমাত্র ফিচারফোন রিলিজ করা যাবে। কিন্তু কিন্তু নকিয়া বা মাইক্রোসফট কেউই আর ফিচার ফোন তৈরি করবে- এমনটি ভাবা বোধ হয় ঠিক হবেনা। বর্তমানে বাজারে চলমান নকিয়া ডিভাইসগুলোর জন্য একটি লাইসেন্সিং প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকবে উভয় কোম্পানি। ঐ চুক্তির শর্তানুযায়ী ২০১৬’র শেষ প্রান্তিকের আগে নকিয়া নিজে কোনো স্মার্টফোন তৈরি করতে পারবেনা।

মোবাইল ইউনিট বিক্রির পর অর্থনৈতিক দিক দিয়ে এখন আগের চেয়ে ভালই আছে নকিয়া। তারা ২০১৪ জুড়ে একটি ভাল বছর পার করল যেখানে কোম্পানিটি ৫০৫ মিলিয়ন ডলার মুনাফা পায় যা ২০১৪তে তাদের প্রত্যাশার থেকে অনেক বেশি।

নকিয়া ইন্ডাস্ট্রি এনালিস্ট ইয়ান ফগ বলেন, এন১ ট্যাবলেট কোম্পানিটির নতুন পথ চলার প্রথম পদক্ষেপ। গত এপ্রিলে তাদের ব্যবসার একটি অংশ মাইক্রোসফটের কাছে চলে গেলেও নেটওয়ার্ক ইকুইপমেন্ট, ম্যাপিং ডাটা প্রভৃতি সফলতার সাথে এগিয়ে যাচ্ছে।

নতুন চমক হিসাবে ভবিষ্যতে নকিয়া আরও ট্যাবলেট, মিউজিক প্লেয়ার, ল্যাপটপ নিয়ে হাজির হতে পারে। নকিয়ার সিইও রাজিভ সুরি বলেছেন ২০১৪ ছিল রিইনভেসন আর ২০১৫ হবে এক্সিকিউসন এর বছর।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,230 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.