নকিয়ার গড়া কিছু রেকর্ড যা আপনাকে অবাক করে দেবে!

By -

Microsoft-Nokia-timeline-RECআমাদের এই নিউজ পোর্টাল ভিজিট করে থাকলে আপনারা নিশ্চয়ই জানেন কিছুদিন আগেই মাইক্রোসফটের নকিয়া অধিগ্রহণ চূড়ান্ত হয়েছে। নকিয়া শুধু একটি ব্রান্ডের নামই ছিলো না, এটি ছিলো এমন এক প্রতিষ্ঠান যা ২০১০ সাল পর্যন্ত মোবাইল বাজারে রাজত্ব করেছে। নকিয়ার বিশেষত্ব হলো এটি শুধু মোবাইলই তৈরী করেনি, জন্ম দিয়েছে কিছু রেকর্ডেরও। তার মধ্যে কিছু নিয়ে আমাদের এই আয়োজন।

সর্বাধিক শ্রুত রিংটোন: নকিয়ার অফিসিয়াল রিংটোন শোনেনি এমন মানুষ পাওয়া যাবে না। স্প্যানিশ সুরকার গ্রেন ভালস এর সুর করা এই সুরটি পৃথিবীর সর্বাধিক শ্রুত রিংটোন। এক হিসেব অনুযায়ী এটি গড়ে প্রতিদিন ১.৮ বিলিয়ন বার এবং প্রতি সেকেন্ডে ২০,০০০ বার শোনা হয়।

সবচেয়ে জনপ্রিয় মোবাইল গেইম: জীবনে গেইম খেলেছেন অথচ নকিয়ার স্নেক গেইম খেলেননি এমন কেউ আছেন? তের বছর আগে তৈরী এই গেইমটি মূলত নকিয়া ৬১০০ সিরিজের জন্য তৈরী হয়েছিল। বর্তমানে এটা বিশ্বের ৩৫০ মিলিয়ন ডিভাইসে প্রচলিত আছে। এটি বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় গেইম।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 2,197 other subscribers

সবচেয়ে বড় ডিজিটাল ক্যামেরা প্রস্তুতকারী: অবাক হয়ে গেলেন, নকিয়া আবার কবে ডিজিটাল ক্যামেরা বানায়? অবাক হওয়ার কিছু নেই, মোবাইলের ক্যামেরাও তো ডিজিটালই। ২০০৮ সাল থেকে নকিয়াই সবচেয়ে বড় ডিজিটাল ক্যামেরা প্রস্তুতকারক।

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সিনেমা পর্দা: গত বছর সুইডেনে নকিয়া ১৪২০ বর্গ মিটারের সিনেমা পর্দা তৈরী করে রেকর্ড গড়ে। দুইটি বড় বড় ক্রেন ব্যবহার করা হয় পর্দাটি ধরে রাখার জন্য। চারটি XLM HD30 প্রজেক্টর ব্যবহার করে এতে প্রিন্স অব পার্সিয়া দেখানো হয়।

সবচেয়ে জনপ্রিয় মোবাইলফোন: বিশ্বের ৫ বিলিয়ন মোবাইল ব্যবহারকারীর মধ্যে কম সংখ্যক মানুষেরই স্মার্টফোন আছে। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো এখন পর্যন্ত প্রায় ২৫০ মিলিয়ন নকিয়া ১১০০ মডেল বিক্রি হয়েছে, যা মোবাইল ইতিহাসে সর্বোচ্চ।

সবচেয়ে সক্ষম মাল্টিটাস্কার: এই রেকর্ডটি গিনেজে না উঠলেও এখন পর্যন্ত এই রেকর্ড ভাঙার খবর পাওয়া যায় নি। ২০১০ সালের সেপ্টেম্বরে নকিয়া ই৫ একসাথে ৭৪ টা এপ্লিকেশন চালাতে সক্ষম হয় যা পূর্বে রেকর্ডকৃত স্যামসাং অমনিয়া এইচডির ৬২ টা এপ্লিকেশন চালানোর রেকর্ড ভেঙে দেয়।

সামনে নকিয়া নামে কোন মোবাইল ফোন না বের হলেও গুণ ও মানের দ্বারা নকিয়া গ্রাহকদের মনে পাকা জায়গা করে নিয়েছে।

বাংলাটেক টোয়েন্টিফোর ডটকমের পক্ষ থেকে নকিয়াকে শুভ বিদায় জানাচ্ছি।

     
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Comments