প্রকাশিত হল ফেসবুক হ্যাকাথনের সেরা ৭টি অর্জন

mark zuckerberg on facebook newsfeed systemবিশ্বের সবচেয়ে বড় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুক প্রতি বছর বেশ কয়েকটি “হ্যাকাথন” বা “হ্যাকার ওয়ে” ইভেন্ট আয়োজন করে থাকে যা সাইটটির বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন সাধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এসব ইভেন্টে ফেসবুকের নিজস্ব ইঞ্জিনিয়ারিং টিম ও কোম্পানিটির অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশ নেন। সাধারণত প্রতি ৬ সপ্তাহ পর পর ফেসবুক হ্যাকাথন ফিরে আসে। সেই হিসেবে ২০১৩ সালে মোট ৮টি হ্যাকার ওয়ে ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নতুন বছর শুরুর ঠিক আগের দিন, অর্থাৎ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে বর্ষসেরা সাতটি হ্যাকাথন অর্জনের তালিকা প্রকাশ করেছে ফেসবুক। চলুন সেগুলো দেখা যাক!

১. এয়ার ট্র্যাফিক কনট্রোল

এই ফিচারটির মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে ফেসবুকের মোবাইল ভার্সনকে আরও ভালোভাবে পৌঁছে দেয়ার জন্য কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। যেসব দেশের ইন্টারনেট ব্যবস্থা খুব একটা উন্নত নয় সেখানে ফেসবুক মোবাইল অ্যাপ নেটের স্পিড অনুযায়ী কনটেন্ট ও অন্যান্য ক্ষেত্রে সমন্বয় আনতে এয়ার ট্র্যাফিক কনট্রোলের সাহায্য নেয়।

২. শেয়ার্ড ফটো অ্যালবাম

আমাদের সাইটটি নিয়মিত ভিজিট করে থাকলে নিশ্চয়ই জানেন, ২০১৩ সালের অগাস্টে “শেয়ারড ফটো অ্যালবাম” ফিচার চালু করেছে ফেসবুক। এটি একাধিক ব্যবহারকারীকে একটি নির্দিষ্ট ফটো অ্যালবামে ছবি আপলোড করার সুবিধা দেয়। একজন ফেসবুক ইউজার যখনই কোন ছবির অ্যালবাম তৈরি করবেন, তখন পেজের উপরের দিকে বাম কোণায় ‘অ্যাড কনট্রিবিউটরস’ অপশন লেখা নতুন একটি বাটন পাবেন যাতে ক্লিক করে অন্য ফেসবুকারদেরও অ্যালবামে ছবি যোগ করার জন্য অনুমতি দেয়া যাবে।

৩. পাওয়ার প্লেয়ার

এটি মূলত আইফোনে ফেসবুক অ্যাপ ব্যবহার করার সময় ডিভাইসটির ব্যাটারি সাশ্রয়ের উদ্দেশ্যে তৈরি করা হয়েছিল। ফেসবুকের লন্ডন অফিসে কর্মরত ইঞ্জিনিয়াররা এই ‘হ্যাক’টি ডেভলপ করেছিলেন যা পরবর্তীতে আইফোন ব্যবহারকারীদের আরও দীর্ঘস্থায়ী সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং অভিজ্ঞতা দিতে কাজে লাগানো হয়েছে।

৪. থাম্বস আপ

ডিসেম্বরে লঞ্চ করা নতুন থাম্বস আপ স্টিকার প্যাকও ফেসবুকের “টপ লিস্টে” স্থান পেয়েছে। এর মাধ্যমে আপনি বন্ধুদের সাথে চমৎকার সব স্টিকার বিনিময় করে চ্যাটিংয়ে মেতে উঠতে পারেন। এতে বহুল আকাঙ্ক্ষিত থাম্বস ডাউন বা ডিসলাইক অশনও দেয়া আছে!

৫. ওয়েদার অন ইভেন্টস

ফেসবুকে আমরা প্রায়ই বিভিন্ন স্থানে ইভেন্টের আয়োজন করে থাকি অথবা ইভেন্টে যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ পাই। ‘ওয়েদার অন ইভেন্টস’ ফিচারটি সেসব ইভেন্ট লোকেশনের আবহাওয়ার খবর জানায়, যাতে করে সে অনুযায়ী প্রস্তুতি নেয়া সম্ভব হয়। উদাহরণস্বরূপ, ইভেন্ট চলাকালীন সেখানে রোদ থাকবে নাকি বৃষ্টি হবে, তাপমাত্রা কেমন যাবে এসব সম্পর্কে ধারণা দিতেই ফেসবুক ‘ওয়েদার অন ইভেন্টস’ এর আত্নপ্রকাশ।

৬. “অ্যা সেলফ আপগ্রেডিং নেটওয়ার্ক”

ফেসবুকের মেইনটেন্যান্স বা রক্ষণাবেক্ষণ কার্যক্রম স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন করার জন্য এই হ্যাকটির সৃষ্টি। এর প্রয়োগের ফলে সাইটটির প্রযুক্তিগত উন্নয়ন আরও গতিশীল হয়েছে এবং টেকনিক্যাল আপগ্রেড করার সময় প্রক্রিয়াটির নেতিবাচক প্রভাব থেকে ব্যবহারকারীরা রক্ষা পাচ্ছে।

৭. লেট ইট স্নো

ফেসবুকের এন্ড্রয়েড ও আইওএস ভার্সনে বিশেষ মেজেজিং ফিচার ‘চ্যাট হেড’এ এবার বড়দিন উপলক্ষ্যে “লেট ইট স্নো” (তুষারপাত/স্নোফল ইফেক্ট) যোগ করা হয়েছিল। নতুন বছরে চ্যাট হেডে আরও চমক থাকবে বলে জানিয়েছে ফেসবুক।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,572 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.