টিকটক একাউন্ট খোলার নিয়ম

২০২১ সালে সবচেয়ে অধিক ভিজিট হওয়া ওয়েবসাইট ছিলো টিকটক। সার্চ জায়ান্ট গুগলকে রীতিমতো পেছনে ফেলে দিয়েছে এই জনপ্রিয় শর্ট ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্মটি। বিশ্বব্যাপী কম দৈর্ঘ্যের কনটেন্টের জনপ্রিয়তার পেছনে টিকটক বিশাল ভূমিকা রেখেছে।

যে হারে টিকটক দিনদিন আরো জনপ্রিয় হয়ে উঠছে, মনে হয়না শীঘ্রই এই অ্যাপের জৌলুস কমতে চলেছে। অনেকে টিকটক অ্যাপ ব্যবহার করলেও একাউন্ট না থাকার কারণে এতে ভিডিও পোস্ট করতে পারেন না। এই পোস্টে আমরা জানবো কিভাবে টিকটক একাউন্ট খুলতে হয়।

টিকটক এর ফিচারসমূহ

টিকটক অ্যাপ অসংখ্য মজার ফিচারে ভর্তি। টিকটক একাউন্ট খোলার আগে টিকটক এর বেসিক ফিচারসমূহ সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

  • ভিডিও আপলোডিংঃ ফোনের স্টোরেজে সেভ থাকা ভিডিও টিকটকে পোস্ট করা যায়।
  • ভিডিও এডিটিংঃ ইতোমধ্যে রেকর্ড করা ভিডিও, কিংবা তৎক্ষণাৎ রেকর্ড করা ভিডিও সরাসরি টিকটক অ্যাপ থেকে এডিট করা যায়। মিউজিক লাইব্রেরী ও অসাধারণ সব ইফেক্টসে ভর্তি টিকটক অ্যাপ।
  • ফিল্টার ও ইফেক্টঃ ভিডিও এডিটরে রয়েছে অসংখ্য ফিল্টার ও ইফেক্ট। বিউটি ফিল্টার থেকে শুরু করে, বিভিন্ন ধরনের স্টিকার ও এনিমেশন ব্যবহার করা যায় ইন-বিল্ট টিকটক ভিডিও লাইব্রেরী থেকে। রয়েছে বিভিন্ন ধরনের এআর (AR) ইফেক্ট, যেগুলো ব্যবহার করে অসাধারণ সব ভিডিও তৈরী করা যায়।
  • সোশ্যাল শেয়ারিংঃ টিকটকে ভিডিও পোস্ট করার পাশাপাশি শেয়ার অপশন ব্যবহার করে যেকোনো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ভিডিও শেয়ার করা যাবে। এছাড়া অন্যান্য একাউন্ট টিকটক একাউন্টে লিংক করার সুযোগ ও রয়েছে।
  • লাইক ও কমেন্টঃ অন্যসব সোশ্যাল মিডিয়ার মতো টিকটকেও লাইক ও কমেন্টের ফিচার রয়েছে।
  • নোটিফিকেশনঃ টিকটক একাউন্টে আসা নোটিফিকেশন নিজের ইচ্ছামত সেট করার সুযোগ রয়েছে।
  • হ্যাশট্যাগঃ বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের ভিডিও একই ছাদের নিচে আনতে টিকটক ভিডিওতে হ্যাশট্যাগ ব্যবহার বেশ কাজে দেয়।
  • সাইন-আপ করা ছাড়া ভিডিও প্রিভিউঃ টিকটক এর জনপ্রিয়তার অন্যতম সেরা কারণ হলো কোনো একাউন্ট ছাড়াই টিকটক অ্যাপ ইন্সটল করেই টিকটক প্ল্যাটফর্ম এক্সপ্লোর করা যায়।

TikTok এর সাধারণ ফিচারসমূহ সম্পর্কে জানা গেলো। এবার জানি চলুন কিভাবে টিকটক একাউন্ট খুলতে হয়।

টিকটক একাউন্ট খোলার নিয়ম 

টিকটক একাউন্ট খোলার নিয়ম 

দুই ধরনের টিকটক একাউন্ট হয়ে থাকে – ব্যক্তিগত বা পারসোনাল, এবং প্রফেশনাল বা বিজনেস। তবে উভয় একাউন্ট খোলার নিয়ম একই। প্রথমে সাধারণ একাউন্ট খুলে পরে সেটিকে বিজনেস একাউন্টে কনভার্ট করা যায়।

কিভাবে টিকটক একাউন্ট খুলতে হয়

টিকটক একাউন্ট খোলা অনেক সহজ। ইমেইল, ফেসবুক, টুইটার, এমনকি ফোন নাম্বার ব্যবহার করেও টিকটক একাউন্ট খোলা যায়। টিকটক একাউন্ট খুলতেঃ

  • মোবাইল থেকে টিকটক একাউন্ট খুলতে চাইলে প্রথমে প্লে স্টোর বা অ্যাপ স্টোর থেকে টিকটক অ্যাপ ইন্সটল করুন। কম্পিউটার থেকে একাউন্ট খুলতে চাইলে টিকটক এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।
  • প্রথমবার টিকটক অ্যাপে প্রবেশ করলে টার্মস এন্ড কন্ডিশনস মেনে নিতে Agree & Continue তে ট্যাপ করুন।
  • এরপর আপনার কি ধরনের ভিডিওতে ইন্টারেস্ট রয়েছে তা জিজ্ঞেস করা হবে। এখান থেকে চাইলে পছন্দের ভিডিও ক্যাটাগরি নির্বাচন করে Next চাপতে পারেন বা Skip অপশনেও ট্যাপ করতে পারেন।
  • এরপর আপনার লিঙ্গ Male ও Female থেকে সিলেক্ট করুন।
  • এরপর সোয়াইপ আপ করলে সরাসরি টিকটক অ্যাপে প্রবেশ করবেন।
  • এবার Profile ট্যাবে ট্যাপ করুন ও Sign Up সিলেক্ট করুন।
  • এরপর ফোন নাম্বার বা ইমেইল দিয়ে টিকটক একাউন্ট খুলতে Use phone or email অপশন সিলেক্ট করুন।
  • এহাড়াও ফেসবুক বা গুগল একাউন্ট ব্যবহার করেও টিকটক একাউন্ট খোলা যাবে।
  • আপনার জন্মতারিখ সিলেক্ট করুন ও Next চাপুন।
  • ফোন নাম্বার বা ইমেওল প্রদান করে Send Code এ ট্যাপ করুন।
  • চালু থাকা (যেটা ব্যবহার করছেন) সেটের ফোন নাম্বার প্রদান করলে সেক্ষেত্রে অটোমেটিক ভেরিফাই হয়ে যাবে।
  • ইমেইল প্রদান করে থাকলে ইমেইলে আসা কোড প্রদান করে ভেরিফাই প্রসেস সম্পন্ন করুন।

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

উল্লিখিত পদ্ধতি সঠিকভাবে অনুসরণ করলে আপনার টিকটক একাউন্ট তৈরী হয়ে যাবে। এই প্রক্রিয়াতে “I’m not a robot” ক্যাপচা পূরণ করতে হতে পারে। এভাবে খুব সহজে উল্লেখিত উপায়ে টিকটক একাউন্ট খুলতে পারবেন।

টিকটক বিজনেস একাউন্ট খোলার নিয়ম

টিকটক অ্যাপ

টিকটক একাউন্টকে বিজনেস একাউন্টে পরিণত করার বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য সুবিধা রয়েছে। যেমনঃ বিজনেস একাউন্টের প্রোফাইলে ওয়বেসাইট ইউআরএল এড করা যায়। আলাদাভাবে বিজনেস একাউন্ট খোলার কোনো নিয়ম নেই। সাধারণ টিকটক একাউন্টকে খুব সহজে বিজনেস একাউন্টে পরিণত করা যাবে। টিকটক একাউন্টকে বিজনেস একাউন্টে পরিণত করতেঃ

  • টিকটক অ্যাপে প্রবেশ করে Profile এ ট্যাপ করুন
  • এরপর হ্যামবার্গার মেন্যু সিলেক্ট করে সেখান থেকে Settings & Privacy অপশনে ট্যাপ করুন
  • Manage Account এ ট্যাপ করুন
  • Siwtch to Business Account এ ট্যাপ করুন, Next চাপুন
  • প্রোফাইলের ক্যাটাগরি সিলেক্ট করে Next এ ট্যাপ করলে আপনার টিকটক একাউন্ট বিজনেস একাউন্টে পরিণত হবে
  • এরপর Edit Profile এ ট্যাপ করে প্রোফাইলে ওয়েবসাইট, ইমেইল, ইত্যাদি যুক্ত করতে পারবেন।

👉 ডাটা এন্ট্রি করে আয় করার উপায়

বেসিক টিকটক সেটিংস

টিকটক একাউন্ট খোলার পর কিছু বেসিক বা সাধারণ সেটিংস কিভাবে সেট করবেন তা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

টিকটক অ্যাপ

প্রোফাইল ফটো বা ভিডিও এড করা

টিকটক একাউন্টের প্রোফাইল ফটো বা ভিডিও আপলোড বা পরিবর্তন করতেঃ

  • বোটম মেন্যু থেকে Profile ট্যাব সিলেক্ট করুন
  • Edit Profile এ ট্যাপ করুন
  • Change Photo বা Change Video সিলেক্ট করুন
  • কাংখিত ছবি বা ভিডিও সিলেক্ট করে আপলোড করুন

ইউনজারনেম পরিবর্তন করা

টিকটক ইউজারনেম একটি ট্যাগ, যা দ্বারা খুব সহজে একাউন্ট খুঁজে পাওয়া যায়। @username এমন ইউজারনেম হয়ে থাকে। টিকটক ইউজারনেম পরিবর্তন করতেঃ

  • Profile ট্যাব সিলেক্ট করুন
  • Edit Profile এ ট্যাপ করুন
  • Username এ ট্যাপ করুন
  • কাংখিত ইউজারনেম প্রদান করে Save এ ট্যাপ করুন

অন্য সোশ্যাল মিডিয়া যুক্ত করা

টিকটক একাউন্টে ইন্সটাগ্রাম একাউন্ট বা ইউটিউব চ্যানেল লিংক করা যায়। এসব সোশ্যাল মিডিয়া এড করতেঃ

  • বোটম মেন্যু থেকে Profile ট্যাব সিলেক্ট করুন
  • Edit Profile এ ট্যাপ করুন
  • নিচের দিকে Add Instagram to your profile ও Add YouTube to your profile নামে দুইটি অপশন দেখতে পাবেন
  • উল্লেখিত অপশনসমূহে ট্যাপ করলে ইউটিউব বা ইন্সটাগ্রামে লগিন করে একাউন্ট অথেনটিকেট করতে হবে
  • একাউন্ট অথেনটিকেট করার পর টিকটক একাউন্টে সরাসরি ইন্সটাগ্রাম বা ইউটিউব বাটন দেখানো হবে, যাতে ক্লিক করে ইন্সটাগ্রাম একাউন্ট বা ইউটিউব চ্যানেলে ঢুকা যাবে।

আপনি কি নিয়মিত টিকটক ব্যবহার করেন? আপনার অভিজ্ঞতা জানান কমেন্ট সেকশনে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,060 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.