ওয়েবসাইটের ডোমেইন ও হোস্টিং কী?

slow internet for cyber attack

ডোমেইন ( Domain ) কী?

আপনি যখন ফেসবুক ভিজিট করেন, তখন নিশ্চয়ই খেয়াল করেছেন, ব্রাউজারে আপনাকে একটা এড্রেস এন্টার করতে হয়। এই facebook.com হচ্ছে ফেসবুকের এড্রেস। এখানে facebook.com হচ্ছে ডোমেইন নেম, যেখানে .com অংশটা মূলত domain suffix. এরকম আরও বেশ কিছু ডোমেইন সাফিক্স আছে যেমন .net , .info .gov প্রভৃতি।

m.facebook.com এড্রেসে m হচ্ছে সাবডোমেইন। ইন্টারনেটে ওয়েব অ্যাড্রেসমূহ ইউআরএল (URL –  Uniform Resource Locator) হিসেবে পরিচিত।

সহজ কথায়, ডোমেইন নেম হচ্ছে একটা ওয়েবসাইটের নাম বা পরিচিতি।

 

ডোমেইন কেনো দরকার?

প্রত্যেকটা ওয়েবসাইটের জন্য একটা আইপি এড্রেস নির্ধারিত আছে (এটা শেয়ার্ডও হতে পারে)। আইপি এড্রেস হচ্ছে অনেকটা ফোন নাম্বারের মত। উদাহরণস্বরূপ 159.203.7.113 হচ্ছে একটা আইপি এড্রেস। এই নাম্বারটা ব্রাউজারের এড্রেস বারে হুবহু লিখে এন্টার করলে আপনি আমাদের ওয়েবসাইটে চলে আসবেন। এভাবে আলাদা আলাদা সাইটের জন্য আলাদা আইপি এড্রেস মনে রাখা খুব কঠিন কাজ। তার চেয়ে আমাদের সাইটের অ্যাড্রেস মনে রাখার জন্য banglatech24.com ঠিকানাটি মনে রাখাই সহজ। এছাড়া গুগলে সার্চ করেও পাওয়া যাবে।

এজন্যই ডোমেইন নেম ব্যবহার করা হয়। একটা স্ট্যান্ডার্ড .Com ডোমেইনের দাম বর্তমানে মোটামুটি ১০-১২ ডলারের মত।

ডোমেইন হচ্ছে একটা ওয়েবসাইটের অস্তিত্বের পূর্বশর্ত, যেটা আন্তর্জাতিক একটা নিয়ন্ত্রক সংস্থার নিকট নিবন্ধন করাতে হয়। এজন্য সব মিলিয়ে ১০-১২ ডলার খরচ হবে। ডোমেইন কেনার জন্য জনপ্রিয় কিছু সার্ভিস হচ্ছে গোড্যাডি, নেমচিপ প্রভৃতি। ডোমেইন কিনতে চাইলে নেমচিপে আমার এই অ্যাফিলিয়েট এড্রেসে ভিজিট করতে পারেন।

 

হোস্টিং ( Hosting ) কী?

ডোমেইন কেনা হয়ে গেলে এবার আপনার সাইটের জন্য হোস্টিং সার্ভিস দরকার। কারণ সাইটের পোস্ট, ছবি প্রভৃতি সংরক্ষণের জন্য একটা জায়গা আবশ্যক। সাইটটি চালাতে যে সফটওয়্যার প্রয়োজন সেগুলোও তো কোথাও না কোথাও ইনস্টল করা থাকতে হবে, তাইনা? হোস্টিং হচ্ছে সেই জায়গা যেখানে আপনার সাইটের ফাইলপত্র সংরক্ষিত থাকে। বিভিন্ন কোম্পানি হোস্টিং সার্ভিস দিয়ে থাকে। জনপ্রিয় কয়েকটি হোস্টিং কোম্পানি হচ্ছে ডিজিটাল ওশান, হোস্টগেটর, ব্লুহোস্ট, ড্রিমহোস্ট প্রভৃতি। ব্যক্তিগতভাবে আমি ডিজিটাল ওশান পছন্দ করি। আপনি চাইলে ডিজিটাল ওশানে আমার এই অ্যাফিলিয়েট লিংক ভিজিট করে হোস্টিং কিনে ১০ ডলার বোনাস পেতে পারেন।

আজ এ পর্যন্তই। ভবিষ্যতে আরও গুরত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে আসার প্রত্যাশা রইল। ধন্যবাদ।

 

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,567 other subscribers

আপনি কোন কোম্পানির ডোমেইন-হোস্টিং ব্যবহার করেন?

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.