বাংলাদেশে পেপালের সেবা আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হচ্ছে ১৯ অক্টোবর

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম পেপালের সেবা বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হচ্ছে আগামী ১৯ অক্টোবর থেকে। বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ‍জুনাইদ আহমেদ পলক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন বলে লিখেছে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ১৯ অক্টোবর বাংলাদেশে পেপালের সেবা উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

পেপ্যাল এর মূল অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম, যেটি ইন্টারনেটে পণ্য কেনাকাটায় ব্যবহার করা যায়, সেটি বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত চালু হয়নি। তবে পেপাল কোম্পানির অন্য একটি সেবা ‘জুম’ বেশ কিছুদিন আগেই বাংলাদেশে চালু হয়েছে। জুমের মাধ্যমে কেবলমাত্র ব্যাংকে টাকা গ্রহণ করা যায়, কোনো অনলাইন কেনাকাটায় জুম ব্যবহার করা যায়না।

👉 পেপাল কি? পেপাল এর সুবিধা কি?

৯ অক্টোবর সোমবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে ‍জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন “পেইপ্যাল কর্তৃপক্ষ বেশ কিছুদিন ধরেই বাজার যাচাইসহ নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছিল। এরপর বাংলাদেশের সম্ভাবনার কথা ভেবে তাদের সেবা পুরোপুরি চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়। এর ফলে বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা উপকৃত হবেন। মসৃণ হবে ডিজিটাল লেনদেন, বাড়বে রেমিট্যান্স আসার হার।”

পেপালের উক্ত সেবা নেয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের গ্রাহকদেরকে সোনালী, রূপালী, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকসহ শুরুতে অন্তত নয়টি ব্যাংক সেবা প্রদান করবে।

এ ব্যাপারে আরো বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের আরো কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,556 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *