প্রতিবেদনঃ বাংলাদেশে পেপাল পুরোপুরি চালু হচ্ছে ১৯ অক্টোবর থেকে

By -

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম পেপাল বাংলাদেশে পূর্ণাঙ্গরূপে চালু হচ্ছে আগামী ১৯ অক্টোবর থেকে। বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ‍জুনাইদ আহমেদ পলক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন বলে লিখেছে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ১৯ অক্টোবর বাংলাদেশে পেপাল উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

পেপালের মূল অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম, যেটি ইন্টারনেটে পণ্য কেনাকাটায় ব্যবহার করা যায়, সেটি বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত চালু হয়নি। তবে পেপাল কোম্পানির অন্য একটি সেবা ‘জুম’ বেশ কিছুদিন আগেই বাংলাদেশে চালু হয়েছে। জুমের মাধ্যমে কেবলমাত্র ব্যাংকে টাকা গ্রহণ করা যায়, কোনো অনলাইন কেনাকাটায় জুম ব্যবহার করা যায়না।

এখন যদি পেপাল পুরোপুরি চালু হয়, তাহলে বাংলাদেশি গ্রাহকরা মূল পেপাল সেবায় একাউন্ট খুলতে পারবেন, এবং পেপালের মাধ্যমে কেনাকাটা ও আন্তর্জাতিকভাবে অর্থ আদানপ্রদান করতে পারবেন।

৯ অক্টোবর সোমবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে ‍জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন “পেইপ্যাল কর্তৃপক্ষ বেশ কিছুদিন ধরেই বাজার যাচাইসহ নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছিল। এরপর বাংলাদেশের সম্ভাবনার কথা ভেবে তাদের সেবা পুরোপুরি চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়। এর ফলে বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সাররা উপকৃত হবেন। মসৃণ হবে ডিজিটাল লেনদেন, বাড়বে রেমিট্যান্স আসার হার।”

পেপাল একাউন্ট খোলার জন্য স্থানীয় ব্যাংকের একাউন্ট এবং ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড দরকার হয়। এক্ষেত্রে বাংলাদেশের সোনালী, রূপালী, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকসহ শুরুতে মোট নয়টি ব্যাংকের মাধ্যমে এই সুবিধাগুলো গ্রহণ করতে পারবেন গ্রাহকরা।

Comments

Leave a Reply