টেকনো পপ ৬ প্রো – কম দামে সবচেয়ে স্টাইলিশ ফোন!

নতুন একটি এন্ট্রি লেভেল স্মার্টফোন নিয়ে এলো টেকনো। পপ ৬ প্রো নামে এই ফোনটি মূলত বাজেট রেঞ্জের গ্রাহকদের জন্য লক্ষ্য করে নির্মিত। দেশের সকল টেকনো ব্র‍্যান্ড ও রিটেইল আউটলেটে পাওয়া যাবে টেকনো পপ ৬ প্রো। চলুন জেনে নেওয়া যাক নতুন টেকনো ফোনটি সম্পর্কে।

আগেই বলেছি লো বাজেটের গ্রাহকের কথা মাথায় রেখে পপ ৬ প্রো ফোনটি নিয়ে এসেছে টেকনো। ২জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি স্টোরেজ এর ফোনটির দাম রাখা হয়েছে বেশ কম! টেকনো পপ ৬ প্রো ফোনটির দাম নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। প্রথমে ফোনটির খুঁটিনাটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানি চলুন।

টেকনো পপ ৬ প্রো ফোনটির প্রধান সেলিং পয়েন্ট হলো এর সুন্দর ডিজাইন। আর আমাদের দেশের অফলাইন মার্কেটে ফোন কেনার ক্ষেত্রে ক্রেতাদের প্রথম চাহিদা থাকে ফোন সুন্দর হতে হবে, সেই বিষয় বিবেচনা করলে এখানে ফোনটি ভালোর কাতারে থাকবে। পপ ৬ প্রো ফোনটির সামনের ও পেছনের ডিজাইন যে কাউকে মুগ্ধ করবে। ফোনটি দেখেই মনে হয়না এর দাম ১১হাজার টাকার চেয়েও কম। 

বাজেট ফোনগুলোতে ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর থাকে ফোনের ব্যাকে, তবে টেকনো পপ ৬ প্রো ফোনটির ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর স্থান পেয়েছে ফোনের সাইডে যা এই দামে বেশ অনন্য একটি ফিচার। এর ফলে ফোনটির ডিজাইন বেশ মিনিমাল ও ট্রেন্ডিং দেখায় বটে। ফোনের ব্যাক প্যানেলে স্ট্রাইক ধরনের প্যাটার্ন রয়েছে তা দেখতে বেশ ভালো লাগে।

টেকনো পপ ৬ প্রো ফোনটিতে বিশাল ৬.৬ইঞ্চির এইচডি+ ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে যা দাম অনুযায়ী ঠিকঠাক বলা চলে। এই দামের অন্য সকল ফোনের মত ফোনটির ফ্রন্টে ডিসপ্লে নচ রয়েছে। ফোনের ব্যাকে ৮মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা রয়েছে, অন্যদিকে সেল্ফি তোলার জন্য ফোনের ফ্রন্টে রাখা হয়েছে ৫মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এই দামে টেকনো পপ ৬ প্রো এর পাশাপাশি সিম্ফনি জেড৩৩ ও প্রিমো এইচ৭ ফোনগুলো বেশ ভালো ক্যামেরা আউটপুট অফার করছে। তবে এই ফোনের দাম যেকোনো সময় পরিবর্তন হতে পারে বলে ধারণা করা যায়।

টেকনো পপ ৬ প্রো - কম দামে সবচেয়ে স্টাইলিশ ফোন!

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

পারফরম্যান্স সেকশনে মিডিয়াটেক হেলিও এ২২ প্রসেসর এর দেখা মিলবে টেকনো পপ ৬ প্রো ফোনটিতে। এন্ট্রি লেভেলের অসংখ্য বাজেট ফোনে আমরা এই চিপসেট দেখেছি। খুব বেসিক স্মার্টফোন ব্যবহারের ক্ষেত্রে এই চিপসেট কাজ চালানোর উপযোগী পারফরম্যান্স প্রদান করবে বলে আশা করা যায়।

আবার ১৫ হাজার টাকার মধ্যে অন্যান্য ব্র‍্যান্ডের আরো ভালো পারফরম্যান্সের ফোন হয়ত পেয়ে যাবেন। ফোনটিতে ২জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি স্টোরেজ রয়েছে, যা ইতিমধ্যে জানতে পেরেছেন। এছাড়া ফোনে ডেডিকেটেড মেমোরি কার্ড স্লটও রয়েছে। আরেকটি ভালো বিষয় হলো এই ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১২ গো ব্যবহার করা হয়েছে। টেকনো পপ ৬ প্রো ফোনটিতে ৫০০০মিলিএম্প এর বিশাল ব্যাটারি রয়েছে।

মূলত পারফরম্যান্স বা ক্যামেরা পারফরম্যান্স এর জন্য টেকনো পপ ৬ প্রো ফোনটি কেনার প্রশ্নই উঠেনা। সাধারণ স্মার্টফোন ব্যবহার, যেমনঃ কল ও মেসেজ করা, ইউটিউবে ভিডিও দেখা, চ্যাটিং করা, ইত্যাদি কাজের জন্য এই ফোনটি মানানসই বলা চলে।

👉 টেকনো মোবাইলের দাম

একদম কম দামে সুন্দর ডিজাইন ও সাইড-মাউন্টেড ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর ফিচার চাইলে এই ফোন কেনা যেতে পারে। তবে অধিকাংশ ব্যবহারকারী ক্যামেরা ও পারফরম্যান্স স্যাক্রিফাইস করে শুধুমাত্র সৌন্দর্যের জন্য এই ফোন কিনবে কিনা সেটা দেখার বিষয়।

একনজরে টেকনো পপ ৬ প্রো এর স্পেসিফিকেশনঃ

  • ডিসপ্লেঃ ৬.৬ইঞ্চি
  • প্রসেসরঃ মিডিয়াটেক হেলিও এ২২
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ ৮মেগাপিক্সেল ডুয়াল ক্যামেরা 
  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৫মেগাপিক্সেল
  • র‍্যামঃ ২জিবি
  • স্টোরেজঃ ৩২জিবি
  • ব্যাটারিঃ ৫০০০মিলিএম্প
  • দামঃ ১০,৪৯০টাকা।

১০,৪৯০টাকায় টেকনো পপ ৬ প্রো কেনাটা কতটা যুক্তিযুক্ত? আপনার মতামত আমাদের জানাতে পারেন কমেন্ট সেকশনে।

👉 ভিডিওঃ আইফোন ১৪ এবং ১৪+ সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,409 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.