ইন্টারনেট সেন্সরশিপ ফাঁকি দিতে নিজস্ব ব্রাউজার আনল ‘দি পাইরেট বে’

the-pirate-bay imageফাইল শেয়ারিং সাইট ‘দি পাইরেট বে’ তাদের নিজস্ব ইন্টারনেট ব্রাউজার তৈরি করেছে যার সাহায্যে যেকোন দেশে সরকার/আইএসপি কর্তৃক ব্লককৃত ওয়েবসাইটসমূহ কোন বাধা ছাড়াই ভিজিট করা সম্ভব হবে। পাইরেট বে’র ১০ বছর পুর্তি উপলক্ষ্যে ‘পাইরেট ব্রাউজার’ নামের এই সফটওয়্যারটি লঞ্চ করা হয়। বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিটটরেন্ট ট্র্যাকার এই সাইটটি বন্ধ করার জন্য বেশ কয়েক বছর ধরেই বিভিন্ন ছবি, গান, সফটওয়্যার প্রভৃতির কপিরাইট মালিকরা চেষ্টা করে আসছিল। কিন্তু এখনও বহাল তবীয়তেই রয়েছে পোর্টালটি।

পাইরেট ব্রাউজারের জন্য চালু করা আলাদা একটি সাইট (http://piratebrowser.com) থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। একই পেইজে ব্রাউজারটির ব্যবহারবিধিও জানা যাবে। এপ্লিকেশনটি মূলত জনপ্রিয় ওপেন সোর্স ব্রাউজার মজিলা ফায়ারফক্সের পোর্টেবল এডিশন থেকেই তৈরি করা হয়েছে। এতে আরও যুক্ত আছে অ্যানোনিমাস ডেটা কানেক্টর “টর প্রজেক্ট-ভিডালিয়া”, ফক্সিপ্রক্সি এডঅন এবং আরও কিছু কাস্টম কনফিগারেশন।

পাইরেট বে দাবি করছে, তাদের এই ব্রাউজারটি আসলে কনটেন্ট পাইরেসির উদ্দেশ্যে তৈরি নয়, বরং এটি একটি এন্টি-সেন্সরশিপ টুল। পাইরেট ব্রাউজার ব্যবহার করে সেন্সরড ইউকে, ইরান, নেদারল্যান্ড, ফিনল্যান্ড, ইতালি, আয়ারল্যান্ড প্রভৃতি দেশের লোকজন মুক্ত ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবে বলেই উল্লেখ করেছে ওয়েবসাইটটি।

দি পাইরেট বে’র এই পদক্ষেপ কপিরাইট হোল্ডারদের প্রতি বাস্তবিকই একটি বড় ধরণের চ্যালেঞ্জ। কেননা ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডাররা প্রায়ই কোর্টের আদেশে বিভিন্ন ফাইল শেয়ারিং সাইট ব্লক করে দিয়ে থাকে। কিন্তু পাইরেট ব্রাউজারের মত সফটওয়্যার ব্যবহার করে আইএসপিসমূহের এসব ব্লক আর তেমন কোন কাজে আসেনা।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,634 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.