জাতীয় পরিচয়পত্র হিসেবে স্মার্টকার্ড দেয়ার পরিকল্পনা করছে ইসি

Smart ID card Sample by Banglatech24.com

বাংলাদেশের নাগরিকদের জাতীয় পরিচয়পত্র হিসেবে স্মার্টকার্ড দেয়ার পরিকল্পনা করছে নির্বাচন কমিশনের পরিচয় নিবন্ধন বিভাগ। বিশ্বব্যাংকের ১৩০০ কোটি টাকার একটি প্রকল্পের আংশিক অর্থায়নে এটি বাস্তবায়নের প্রস্তাব করা হয়েছে। স্মার্টকার্ড হবে মেশিন রিডেবল, যা কার্ড জালিয়াতির হাত থেকে বাড়তি নিরাপত্তা প্রদান করবে।

সম্প্রতি এ সঙ্ক্রান্ত একটি আইন সংশোধনী প্রস্তাব আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অণুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সালিম আহমেদ খান। সংশোধিত আইনের অধীনে জাতীয় পরিচয়পত্র এবং এসব স্মার্টকার্ডের মেয়াদ ১০ বছর নির্ধারন করারও প্রস্তাব রাখা হয়েছে।

এছাড়া দেশের সকল নাগরিককেই জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার পরিকল্পনা করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সালিম আহমেদ খান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এখন সব নাগরিককে জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার সুযোগ রেখে আইন সংশোধনের জন্য সরকারের কাছে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। প্রস্তাবটি পাস হলে পর্যায়ক্রমে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন বিভাগ ১৮ বছরের কম বয়সীদেরও তথ্যসংগ্রহ করে কার্ড দিতে পারবে।”

তিনি আরও জানান, বর্তমানে ভোটারদের কাছে বিদ্যমান লেমিনেটেড ন্যাশনাল আইডি কার্ড ফেরত নিয়ে প্রথমবারের মত বিনামূল্যেই স্মার্টকার্ড দেয়া হবে। এরপর পুনরায় মেশিনে পাঠযোগ্য এই কার্ড পেতে চাইলে একটি নির্দিষ্ট ফি দিতে হবে।

সর্বশেষ আদমশুমারি অনুযায়ী বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যা ১৫ কোটির বেশি, যার মধ্যে ছবিসহ ভোটার তালিকায় প্রায় ৯ কোটি ২২ লাখ জন অন্তর্ভুক্ত আছেন। দেশে প্রচলিত কাগজের তৈরি (লেমিনেশন করা) জাতীয় পরিচয়পত্রের মেয়াদ ১৫ বছর। বিভিন্ন পাবলিক সার্ভিস নিতে এই আইডি কার্ড প্রদর্শন আবশ্যক করার পরিকল্পনাও রয়েছে সরকারের।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,575 other subscribers

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *