ক্রমেই কার্যক্ষমতা হারিয়ে ফেলছে প্রচলিত অ্যান্টিবায়োটিক

bacteria dghdবিশ্বজুড়ে নানান ধরনের ব্যাকটেরিয়া ক্রমেই প্রচলিত অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ প্রতিরোধের ক্ষমতা অর্জন করে নিচ্ছে, যা চিকিৎসাবিজ্ঞানে উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, সামান্য কারণেই অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ গ্রহণ করার ফলে এই সমস্যার উদ্ভব হচ্ছে।

এখন এমন কিছু ব্যাকটেরিয়া জন্ম নিচ্ছে যেগুলো কোন ওষুধেই ঠেকানো সম্ভব হচ্ছে না। বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন, কিছুদিন পরে সাধারণ সংক্রমণ চিকিৎসায় হয়ত অ্যান্টিবায়োটিকের কার্যকারিতাই থাকবে না। এসব সমস্যা নিয়ে আলোচনা করার উদ্দেশ্যে বুধবার লন্ডনে জি-এইট এর এক সম্মেলন শুরু হয়েছে, যেখানে বিশ্বের ধনী দেশগুলোর বিজ্ঞান বিষয়ক মন্ত্রীরা উপস্থিত রয়েছেন।

অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ গ্রহণের ব্যাপারে আরও দায়িত্বশীল হওয়ার সময় এখনই…

ইতোমধ্যেই ওষুধ-প্রতিরোধী ক্ষমতা অর্জন করে নেয়া ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকে বাঁচতে নতুন অ্যান্টিবায়োটিক তৈরি আবশ্যক হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর সেই সাথে অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহারেও সবাইকে আরও দায়িত্বশীল হতে হবে।

প্রশ্ন করতে পারেন, ব্যাকটেরিয়াগুলো কীভাবে এই প্রতিরোধ ক্ষমতা অর্জন করে নিচ্ছে? এর বেশ কিছু কারণ রয়েছে। প্রথমত, গবেষণায় দেখা গেছে সব ব্যাকটেরিয়া অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধে মরে না। যেগুলো বেঁচে যায় তাদের মধ্যে অনেকেই অধিকতর দ্রুত গতিতে বাড়তে থাকে।

অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহারের ফলেও ব্যাকটেরিয়ার মধ্যে এই প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয়। অনেকেই অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের পুরো ডোজ গ্রহণ করেন না, বরং কিছুদিন ওষুধ নেয়ার পর আপাতদৃষ্টিতে রোগ সেরে উঠেছে বলে মনে হওয়ায় সেবন বন্ধ করে দেন। মাঝ পথে এসে এভাবে অ্যান্টিবায়োটিক গ্রহণ অসম্পূর্ণ রাখার ফলেও ব্যাকটেরিয়াগুলো রেজিস্ট্যান্স লাভ করে থাকে।

আর এসব কারণে এরই মধ্যে যক্ষা সহ আরও কিছু রোগের চিকিৎসায় অ্যান্টিবায়োটিক আর আগের মত কাজ করছে না।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,806 other subscribers

Comments