শাওমি মি ৮ এলো চোখ ধাঁধানো স্পেসিফিকেশন ও অসাধারণ ক্যামেরা নিয়ে

By -

শাওমি মি ৮

শাওমি মি ৮ এর জন্য অপেক্ষায় ছিলেন? চীনের শেনঝেনে বিশাল এক ইভেন্টে শাওমি এ বছরের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন মি ৮ উন্মুক্ত করেছে। এটি তাদের গত বছরের মি ৬ ফোনের উত্তরসূরী। এবছর কোম্পানির ৮ বছর পূর্তি উপলক্ষে মি ৭ না এনে সরাসরি মি ৮ লঞ্চ করেছে শাওমি।

অন্যান্যবার তাদের ফ্ল্যাগশিপ মি বা এমআই সিরিজের অধীনে বছরে একটা মাত্র ফোন রিলিজ করলেও এবছর শাওমি স্ট্যান্ডার্ড মি ৮ এর পাশাপাশি আরও দুটি ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে এসেছে। একটি হলো মি ৮ এক্সপ্লোরার এডিশন যার ব্যাক প্যানেলটি স্বচ্ছ কাঁচের এবং এতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে। আর অন্যটি হলো মি ৮ এসই (SE) যা তুলনামূলক ছোট আকৃতির ও পারফরমেন্স এর দিক থেকে একটু কাটছাঁট করা হয়েছে তাতে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 2,466 other subscribers

শাওমি তাদের মি মিক্স এর মাধ্যমে বেজেললেস ও একইসাথে নচবিহীন সুন্দর ডিজাইন এর সূচনা করলেও এবার তারা নচ স্কোয়াডেই যোগ দিয়েছে।

শাওমি মি ৮

মি ৮ এ রয়েছে আইফোন ১০ এর মতই বিশাল আকৃতির নচ। মি ৮ স্মার্টফোনে ৬.২১ ইঞ্চি স্যামসাংয়ের তৈরী ওলেড ফুল এইচডি+ স্ক্রিন। অবশ্য বিশাল নচটি শুধু শুধুই দেয়া হয়নি। এই নচ এর নিচে অবস্থান করছে তাদের ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা এবং ফেস রিকগনিশন সেন্সর যা ফেইস আনলকের সুবিধা দেবে।

শাওমি এমআই ৮ ফোনটির ফ্রেম এলুমিনিয়ামের হলেও এর ব্যাক প্যানেলটি কার্ভড গ্লাস দিয়ে তৈরী। আর ডিভাইসটির মস্তিষ্ক হিসেবে আছে কোয়ালকমের এ বছরের ফ্ল্যাগশিপ চিপ স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫।

শাওমি মি ৮

সাথে ৬জিবি র‍্যাম, ৬৪/১২৮/২৫৬জিবি স্টোরেজ। তাই পারফর্মেন্স এর দিক থেকে মি ৮ নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকবে না আশা করা যায়। ওদিকে শাওমি দাবি করেছে, স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫ চালিত সকল ডিভাইসের মধ্যে এমআই ৮ সর্বোচ্চ এনটুটু স্কোরধারী হয়েছে (এ পর্যন্ত ৩০১,৪৭২)।

ক্যামেরায় শাওমি চমক-ই নিয়ে এসেছে। তাদের নতুন ১২ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ ডিএক্সও মার্ক এ ১০৫ স্কোর করেছে, যেখানে আইফোন ১০ এর আছে ১০১।

শাওমি বলছে এটাই প্রথম ফোন যাতে ডুয়াল ফ্রিকোয়েন্সি জিপিএস ব্যবহৃত হয়েছে যা বদ্ধ স্থানেও আরো এক্যুরেট লোকেশন দেখাবে। মি ৮ এর বেইজ ভ্যারিয়েন্টের পেছনের দিকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দেয়া হয়েছে। এতে আরও আছে ৩৪০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

শাওমি মি ৮ এক্সপ্লোরার এডিশন নামের ভ্যারিয়েন্টটিতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে। এবং এটাই প্রথম ফোন যা ফিঙ্গারপ্রিন্টের জন্য প্রেশার সেন্সিটিভিটিও ব্যাবহার করে। পাশাপাশি ফোনটিতে অ্যাপল আইফোন টেন এর মতো ত্রিমাত্রিক ফেস রিকগনিশন প্রযুক্তি ও অ্যাপলের অ্যানিমোজি’র মতো ত্রিমাত্রিক ইমোজি পাঠানোর ব্যবস্থাও থাকছে। আরও থাকছে ৩০০০ এমএএইচ ব্যাটারি।

শাওমি মি ৮ এক্সপ্লোরার

এর ট্রান্সপারেন্ট ব্যাক প্যানেলটি দেখলে যে কেউ প্রেমে পড়তে বাধ্য। মি৮ এক্সপ্লোরার এডিশনে থাকছে ৮জিবি র‍্যাম ও ১২৮জিবি স্টোরেজ। এতে আছে থ্রিডি ফেইস রিকগনিশন সুবিধা, যেখানে স্ট্যান্ডার্ড এমআই ৮ এ আছে শুধু ইনফ্রারেড ফেইস আনলক ফিচার।

সবশেষে মি ৮ এর এসই নামক একটা তুলনামূলক সস্তা ভার্সনও আছে। এটাই প্রথম ফোন যাতে কোয়াল্কমের স্ন্যাপড্রাগন ৭১০ মিডরেঞ্জ  চিপসেট ব্যবহৃত হয়েছে। তবে আইফোন এসই এর মতো এর ডিসপ্লে ততোটা ছোটও নয়।

শাওমি মি ৮ এসই

এতে রয়েছে ৫.৮৮ ইঞ্চি ডিসপ্লে। স্ন্যাপড্রাগন ৭১০ পূর্বের ৬৬০ থেকে ৩০ পারসেন্ট ব্যাটারি সাশ্রয়ী এবং ২০ পারসেন্ট বেশি শক্তিশালী বলে জানিয়েছে শাওমি। সাথে ৩১২০ এমএএইচ ব্যাটারি।

চীনে মি৮ এর দাম শুরু হবে ৪২১ ডলার থেকে, মি ৮ এক্সপ্লোরার এডিশনের দাম ৫৭৭ ডলার এবং মি ৮ এসই এর দাম ২৮১ ডলার থেকে শুরু হবে। অন্যান্য মার্কেটে দাম কত হবে তা এখনো জানানো হয়নি। এন্ড্রয়েড ৮ ভিত্তিক এমআইইউআই ১০ চালিত এই ফোনগুলোর বিক্রি শুরু হবে জুনে।

আমাদের ফেসবুক পেইজ লাইক করে সাথে থাকুন!

     
প্রযুক্তির সব তথ্য জানতে ভিজিট করুন www.banglatech24.com সাইট। নতুন পোস্টের নোটিফিকেশন ইমেইলে পেতে এই লিংকে গিয়ে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Comments

rifat hasan says:

hm,,thanks,,I like that.