মাইক্রোসফটের নিকট অতিরিক্ত পেটেন্ট ফি দাবী করেছিল মটোরোলা!

microsoft moto.jমাইক্রোসফট ও গুগলের মধ্যে চলমান পেটেন্ট মামলায় গতকাল এক গুরুত্বপূর্ণ রায় ঘোষিত হয়েছে। মটোরোলা মবিলিটির পেটেন্ট নিয়ে কোম্পানিটি উইন্ডোজ নির্মাতার কাছে মেধাস্বত্ব লাইসেন্স বাবদ বছরে প্রায় ৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দাবী করে আসছিল। বিশেষ করে মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম এবং এক্সবক্স গেমিং কনসোলে ব্যবহৃত ভিডিও স্ট্যান্ডার্ড ও ওয়াইফাই নেটওয়ার্কিং সঙ্ক্রান্ত এসব পেটেন্ট নিয়ে উক্ত দুই কোম্পানির মধ্যে আইনী লড়াইয়ের সূচনা হয়।

প্রতিটি উইন্ডোজ ৭ পিসির বিক্রয়মূল্যের ওপর ২.২৫ শতাংশ রয়্যালটি দাবী করেছিল মটোরোলা!

এক পর্যায়ে মটোরোলা প্রত্যেকটি উইন্ডোজ ৭ চালিত পিসির বিক্রয় মূল্য থেকে ২.২৫ শতাংশ রয়্যালটি চেয়ে বসে। মাইক্রোসফট যেহেতু বেশ অভিজ্ঞ একটি কোম্পানি তাই তারাও সরাসরি গুগলের পেটেন্ট মালিকানা সঙ্ক্রান্ত দাবীকেও নাকোচ করে দেয়নি। তবে, আলোচ্য প্রযুক্তিগুলো “স্ট্যান্ডার্ড এসেনশিয়াল পেটেন্ট” বলে বিবেচিত হওয়ায় আইনানুযায়ী এগুলোর লাইসেন্সিংয়ের জন্য গুগল চাইলেই যা ইচ্ছা তাই ফি আদায় করতে পারবে না।

আর মাইক্রোসফট এখানেই সার্চ সেবাদাতার লাগাম টেনে ধরে। উইন্ডোজ নির্মাতা আগে থেকেই বলে এসেছে যে তারা মটোরোলার পেটেন্টের জন্য অবশ্যই লাইসেন্স ফি দিতে ইচ্ছুক, কিন্তু সেটি হতে হবে যুক্তিযুক্ত এবং বৈষম্যবিহীন বা “ফ্র্যান্ড (FRAND)” অর্থাৎ “fair, reasonable, and non-discriminatory”। কিন্তু এক্ষেত্রে গুগল যে পরিমাণ অর্থ দাবী করেছে তা অতিরিক্ত বলেই রায় দিয়েছেন বিচারক।

সেই সাথে নতুন লাইসেন্স ফি’ও নির্ধারিত হয়েছে আদালতে। এতে ভিডিও পেটেন্ট লাইসেন্স ফি প্রতিটি পণ্যের জন্য ০.৫৫৫ সেন্ট এবং ওয়াফাই পেটেন্ট লাইসেন্স ফি ধরা হয় ৩.৪৭১ সেন্ট। নতুন রেট অনুযায়ী আলোচ্য পেটেন্টসমূহের জন্য মাইক্রোসফট গুগলকে প্রতি বছর মাত্র ১.৮ মিলিয়ন ডলার রয়্যালটি প্রদান করবে, যা প্রাথমিকভাবে দাবীকৃত ৪ বিলিয়ন ডলারের চেয়ে অনেক কম।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,434 other subscribers

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.