তিন মাসে ৬.৪৫ বিলিয়ন ডলার মুনাফা অর্জন করেছে স্যামসাং

samsung adljandljansljদক্ষিণ কোরীয় ইলেকট্রনিকস জায়ান্ট স্যামসাং চলতি বছর প্রথম প্রান্তিকে ৭.১৫ ট্রিলিয়ন ওন মুনাফা (নেট প্রফিট ৬.৪৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং অপারেটিং প্রফিট ৭.৯ বিলিয়ন ডলার) অর্জন করেছে। জানুয়ারি থেকে মার্চ ২০১৩ জুড়ে গ্যালাক্সি ডিভাইস নির্মাতার মোট বিক্রয় ছিল ৫২.৮৭ ট্রিলিয়ন ওন (৪৬.৬ বিলিয়ন ডলার); গত বছরের একই সময়ে কোম্পানিটি ৫.০৫ ট্রিলিওয়ন ওন মুনাফা আয় করেছিল যা থেকে এবার প্রায় ৪২ শতাংশ বেশি মুনাফা অর্জিত হয়েছে।

২০১৩ সালের প্রথম তিন মাসে স্যামসাংয়ের অধিক পরিমাণ স্মার্টফোন বিক্রয় এবং হ্রাসকৃত বিপণন ব্যয়ের কারণে প্রতিষ্ঠানটির আইটি ও মোবাইল কমিউনিকেশন ডিভিশন একাই আয় করে ৩২.৮২ ট্রিলিয়ন ওন। তবে মৌসুমগত কারণে উক্ত কোয়ার্টারে টিভি এবং হোম এপ্লিকেশন বিক্রির হার কিছুটা কম ছিল।

শুধুমাত্র স্মার্টফোন বিভাগের কথা হিসেবে আনলে গত তিন মাসে এই খাতে ২০১২ সালের প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় স্যামসাংয়ের প্রায় ৫৫ শতাংশ বেশি মুনাফা অর্জিত হয়েছে। বিশ্লেষকরা বলছেন, এর অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে, দক্ষিণ কোরীয় কোম্পানিটি তাদের সবচেয়ে কাছের প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাপলের চেয়ে অনেক বেশি পণ্য সরবরাহ করে থাকে। অ্যাপল যেখানে শুধুমাত্র আইফোন আর আইপ্যাডের সীমিত কয়েকটি মডেল বিক্রি করে, সেই একই সময়ে স্যামসাং বেশ কয়েক প্রকার স্মার্টফোন, ট্যাবলেট এমনকি ফ্যাবলেটও বাজারজাত করে।

প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেটের পাশাপাশি স্বল্প এবং মাঝামাঝি মূল্যের ডিভাইসও বিক্রি করে স্যামসাং। তবে সামনের কয়েক মাসে বাজারে প্রতিযোগিতা বৃদ্ধি পাওয়ার পূর্বাভাস দিয়ে মিড এবং লোয়ার রেঞ্জ হ্যান্ডসেটের ক্ষেত্রে কিছুটা ধীরগতির প্রবৃদ্ধি আসতে পারে বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

স্যামসাংয়ের সর্বশেষ ফ্ল্যাগশিপ এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন গ্যালাক্সি এস ৪ এর শিপমেন্ট ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে। এতে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, আই কন্ট্রোল, ৫ ইঞ্চি এইচডি স্ক্রিন প্রভৃতি। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ৪ সম্পর্কে আরও জানতে আমাদের এই পোস্টটি দেখতে পারেন।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 4,378 other subscribers

Comments