এন্ড্রয়েডের বিরুদ্ধে এন্টিট্রাস্ট মামলা করল মাইক্রোসফটসহ অন্যান্যরা

গুগল নির্মিত এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের বিরুদ্ধে প্রতিযোগিতা-বিমুখ আচরণের অভিযোগ তুলে ইউরোপীয় ইউনিয়নে এন্টিট্রাস্ট অভিযোগপত্র দাখিল করেছে একদল কোম্পানি। মাইক্রোসফট, নকিয়া ও ওরাকল সহ ঐ গ্রুপের অন্তর্ভুক্ত অন্যান্য কোম্পানিগুলোর দাবী করছে এন্ড্রয়েড ওএস গুগলের মোবাইল এপ্লিকেশনসমূহকে অন্যায্য সুবিধা দিয়ে থাকে।

ফেয়ারসার্চ ইউরোপ নামের উক্ত গ্রুপ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলছে, মূল এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম বিনামূল্যে সরবরাহ করা হলেও কোন ওইএম (ওরিজিনাল ইকুইপমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার) যখন গুগল ম্যাপস, ইউটিউব, প্লে স্টোর বা অন্যান্য গুগল এপস লাইসেন্স করতে চায় তখন তাদের পুরো এপ স্যুট নিয়ে ডিভাইসের মধ্যে সেগুলোকে ডিফল্টভাবে বিশেষ কিছু সুবিধা দিতে হয় যা প্রতিযোগিতাবান্ধব নয়।

গ্রুপটি আরও উল্লেখ করেছে, এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ফ্রি (অথবা “বিলো কষ্ট” অর্থাৎ এটি ডেভলপ করতে যে ব্যয়ে হয় তার চেয়ে কম খরচে) সরবরাহ করার ফলে উক্ত খাতে অন্যান্য প্রতিযোগী কোম্পানিগুলোর পক্ষে বিনিয়োগ তুলে আনা কঠিন হয়। সফটওয়্যারটি ডিস্ট্রিবিউট করতে গুগল যে কৌশল অবলম্বন করে সেটিকে “লুণ্ঠনমূলক” কর্মকান্ডের সাথে তুলনা করেছে ফেয়ারসার্চ।

অভিযোগকারী গ্রুপটির প্রধান কৌঁসুলি থমাস ভিঞ্জ এন্ড্রয়েড ওএসকে একটি “ট্রোজান হর্স”এর সাথে তুলনা করেছেন যা পার্টনারদের ধোঁকা দিয়ে বাজারে একনায়কতন্ত্র সৃষ্টির মাধ্যমে ভোক্তাতথ্য নিয়ন্ত্রণ করতে চাচ্ছে। এক্ষেত্রে মোবাইল সার্চে গুগলের ৯৬ শতাংশ এবং স্মার্টফোন শিপমেন্টে ৭০ শতাংশ মার্কেট শেয়ারকে প্রমাণ হিসেবে উপস্থাপন করে ফেয়ারসার্চ।

গুগলের বিরুদ্ধে “এন্টিট্রাস্ট” বা প্রতিযোগিতার বাজারে অনাস্থামূলক অভিযোগ এটাই প্রথমবারের মত নয়। এর আগেও ইউরোপ আমেরিকায় সার্চ, তথ্য সংগ্রহ, এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের স্বচ্ছতা, গোপনীয়তা নীতি প্রভৃতি নিয়ে তদন্তের মুখোমুখি হয়েছে এই ওয়েব জায়ান্ট।

📌 পোস্টটি শেয়ার করুন! 🔥

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 8,558 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *