স্মার্টওয়াচ “তৈরির” তালিকায় এবার যোগ হল এলজি

lg phone watchঅ্যাপল, স্যামসাং এবং এমনকি গুগলেরও সম্ভাব্য স্মার্টওয়াচ তৈরির খবর ইতোমধ্যেই শুনে থাকবেন। কিন্তু কোরিয়ান আরেক ইলেকট্রনিকস নির্মাতা এলজি চুপি চুপি পরবর্তী প্রজন্মের এই হাতঘড়ি বানাতে যাচ্ছে তা কি জানেন?

কোরিয়া টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী এলজি স্মার্টওয়াচ এবং গুগল স্মার্টগ্লাসের মত ডিভাইস তৈরির কাজ শুরু করেছে। তবে ডিভাইসটির কোন বিস্তারিত ফিচার বর্ণনা করেনি কোরিয়া টাইমস সূত্র। এটি এন্ড্রয়েড নাকি ফায়ারফক্স ওএসে (অথবা অন্যকিছু) চলবে সেই প্রশ্নেরও কোন জবাব দেয়নি পত্রিকাটির সোর্স।

বলাই বাহুল্য, এ পর্যন্ত যতগুলো পরিধানযোগ্য গেজেটের খবর পাওয়া গিয়েছে তার মধ্যে গুগলের স্মার্টগ্লাসের ব্যাপারেই সবচেয়ে বেশি তথ্য পাওয়া যায়। বড় বড় কোম্পানি কর্তৃক স্মার্টওয়াচ তৈরি সম্পর্কিত সকল খবরই মূলত “গুজব”।

হতে পারে নির্মাতারা স্মার্টওয়াচকে অধিক গুরুত্ব দেয়ার কারণে সেগুলো সম্পর্কে কোন তথ্য আগে থেকে প্রকাশ করতে চাইছে না। এছাড়া গুগলের মটোরোলা মবিলিটি ইউনিট বহু আগেই স্মার্টওয়াচ ঘরানার হাতঘড়ি বাজারে এনেছে। সুতরাং এবার আরেকটু আপডেট ভার্সন আসতেই পারে। এলজির ক্ষেত্রেও একই ঘটনা। এরাও “ফোন ওয়াচ” নামক হাইব্রিড ডিভাইস বিক্রি করেছে। তাই বাজারের চাহিদা মেটাতে অদূর ভবিষ্যতে আরও আধুনিক হাতঘড়ি (স্মার্টওয়াচ) এর ঘোষণা দিলে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবেনা।

স্যামসাং এবং এলজি ইতোমধ্যেই নমনীয় কাঁচের ডিসপ্লে তৈরিতে অগ্রগতি অর্জন করেছে যা স্মার্টওয়াচ প্রকল্পকে আরও একধাপ এগিয়ে নেবে।

এদিকে অ্যাপল তাদের স্মার্টওয়াচ (আইওয়াচ) ডেভলপ করার পেছনে ১০০ জনের দল নিয়োগ দিয়েছে বলেও বিভিন্ন পত্রপত্রিকা রিপোর্ট করেছে।

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 5,039 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.