৮০,০০০ ভোল্টের স্টান গান নিয়ে আক্রমণ করবে যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি ড্রোন!

টেক্সাসভিত্তিক কোম্পানি ‘কেওটিক মুন স্টুডিওস’ সম্প্রতি এমন একটি নিরাপত্তামূলক ড্রোন প্রদর্শন করেছে যেটি ৮০,০০০ ভোল্টের স্টান গান নিয়ে আক্রমণ করতে পারবে। ড্রোনটি মোবাইল ফোনের অ্যাপের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। চালক অনুমতি দিলেই এই মারাত্নক ক্ষমতা নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বে ডিভাইসটি।

ওয়েব ফার্ম কেওটিক মুন জানাচ্ছে, তারা ড্রোনে মিসাইলের পরিবর্তে টেসার ব্যবহার করেছে যা সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ক্ষেত্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নতুন বন্ধু হিসেবে আবির্ভূত হবে।

‘কিউপিড’ নামের এই ড্রোনটি মুহুর্তেই ধ্বংসাত্বক হয়ে উঠতে সক্ষম। ইংরেজি শব্দ ‘CUPID’ অর্থ হচ্ছে ‘সুন্দর বালক/মদন’ প্রভৃতি। কিন্তু এই কিউপিড মোটেই সুখকর নয়। আর এখানে CUPID এর পূর্ণরূপ হচ্ছে ‘Chaotic Unmanned Personal Intercept Drone’ যা কিনা ভয়ঙ্কর শক্তি নিয়ে মাথার ওপরে উড়ে বেড়াবে।

ড্রোনটি ব্যবহারকারীর নিকট এর অবস্থানের লাইভ ভিডিও পাঠাবে। স্মার্টফোন অ্যাপে সরাসরি পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে নিয়ন্ত্রণকারী ব্যক্তি দূর থেকেই ডিভাইসটিকে ‘ফায়ার’ কমান্ড দিতে পারবে। ড্রোনটির ৮০,০০০ ভোল্ট বিশিষ্ট বাণ টার্গেটকৃত লোকজনকে আক্ষরিক অর্থেই অক্ষম করে তুলবে। ব্যবহারকারী চাইলে একে ‘স্বয়ংক্রিয়’ মুডেও চালাতে পারবে- অর্থাৎ, তখন ড্রোনটি নিজেই আক্রমণ চালু/বন্ধ করবে।

কেওটিক মুন স্টুডিওস ইলেকট্রিক শকের মাধ্যমে আক্রমণকারী ড্রোনের পাশাপাশি এর পিপার স্প্রে ভার্সনও তৈরি করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে।

৮০,০০০ ভোল্টের ইলেকট্রিক শক দিতে সক্ষম ‘কিউপিড’ ড্রোনের ব্যাপারে আপনার মতামত কী? এটি মানবতার জন্য কতটা ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারবে বলে মনে করেন?

সর্বশেষ প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য সরাসরি আপনার ইমেইলে পেতে ফ্রি সাবস্ক্রাইব করুন!

Join 7,834 other subscribers

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.